Advertisement
Advertisement
Brij Bhushan Sharan Singh

‘পকসো আইন ব্যবহার করে ফাঁসানো হচ্ছে, ওটা বদলে দেব’, হুমকি ব্রিজভূষণের

সাধুসন্তদের নেতৃত্বে সরকারের উপর চাপ সৃষ্টি করে আইন বদলাতে হবে, দাবি ব্রিজভূষণের।

POCSO Act misused, will put pressure to change it, says Brij Bhushan Sharan Singh | Sangbad Pratidin
Published by: Anwesha Adhikary
  • Posted:May 26, 2023 10:05 am
  • Updated:May 26, 2023 10:05 am

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পকসো (POCSO) আইনের অপব্যবহার হচ্ছে দেশজুড়ে। তার ফল ভুগতে হচ্ছে শিশু থেকে ভবিষ্যৎদ্রষ্টা সাধুসন্ত সকলকেই। এখন সরকারকে চাপ দিয়ে এই আইন বদলাতে হবে। অযোধ্যায় শক্তি প্রদর্শনী সভার প্রস্তুতিতে এমনই বলেছেন কুস্তি ফেডারেশনের প্রেসিডেন্ট ব্রিজভূষণ শরণ সিং (Brij Bhushan Sharan Singh)। প্রসঙ্গত, তাঁর বিরুদ্ধে কুস্তিগিরদের যৌন হেনস্তার অভিযোগ উঠেছে। পকসো আইনেও মামলা দায়ের হয়েছে বিজেপি (BJP) সাংসদের বিরুদ্ধে।

গত ২৩ এপ্রিল থেকে যন্তর মন্তরে ব্রিজভূষণের গ্রেপ্তারির দাবিতে ধরনায় বসেছেন দেশের প্রথমসারির কুস্তিগিররা। যৌন হেনস্তার দায়ে তাঁকে অবিলম্বে আটক করা হোক, এই দাবিতে লাগাতার আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন ভিনেশ ফোগাট (Vinesh Phogat), সাক্ষী মালিক (Sakshi Malik), বজরং পুনিয়ারা। বাধ্য হয়ে রাস্তাতেই আগামী টুর্নামেন্টে নামার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। অন্যদিকে, ব্রিজভূষণের বিরুদ্ধে পকসো-সহ দুটি মামলা দায়ের হলেও এখনও তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়নি। বিজেপি সাংসদ বলেই কি তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি, সেই প্রশ্নও উঠছে। 

Advertisement

[আরও পড়ুন: সলমনের বাড়িতে রাতভর পার্টি আমির, শাহরুখের! কোনও ফন্দি আঁটছেন তিন খান? জল্পনা তুঙ্গে]

এহেন পরিস্থিতিতে অযোধ্যার রাম কথা পার্কে ‘চেতনা মহা সভা’র ডাক দিয়েছেন ব্রিজভূষণ। এক সময় যাঁর বিরুদ্ধে ছিল ৬০টিরও বেশি ফৌজদারি মামলা। এই সভায় আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে বিভিন্ন রাজ্যের সাধুসন্ত, সমাজকর্মী, আইনজ্ঞদের। যদিও এই সভায় ব্রিজভূষণের পাশে নেই বিজেপি। তবে দমে না গিয়ে জোর কদমে এই সভার প্রস্তুতি চালাচ্ছেন ব্রিজভূষণ। বৃহস্পতিবার সেখানেই বিস্ফোরক মন্তব্য করেন তিনি।

Advertisement

বিজেপি সাংসদ বলেন, “পকসো আইনের অপব্যবহার চলছে। শিশু, বৃদ্ধ, সাধু সকলেই এর ভুক্তভোগী। এমনকি আধিকারিকরাও এই অপব্যবহারের সঙ্গে জড়িত। তবে এবার বদলাতে হবে এই আইন। সাধুসন্তদের নেতৃত্বে সরকারের উপর চাপ সৃষ্টি করতে হবে যেন এই আইন পালটানো হয়। কোনও পরীক্ষানিরীক্ষা ছাড়াই পকসো আইন পাশ করিয়েছিল কংগ্রেস সরকার।” ব্রিজভূষণের দাবি, তাঁর বিরুদ্ধে ভিত্তিহীন অভিযোগ আনা হয়েছে। নিজেকে নির্দোষ বলেই দাবি করেছেন বিজেপি সাংসদ।

[আরও পড়ুন: বিশ্বকাপের ইডেনে হয়তো ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচ, সঙ্গে আরও তিন]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ