১ আশ্বিন  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ব্যাডমিন্টনের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপ জিতে ইতিহাস গড়লেন পিভি সিন্ধু। বিধ্বংসী মেজাজে ফাইনালে স্রেফ উড়িয়ে দিলেন জাপানি প্রতিদ্বন্দ্বী ওকুহারাকে। ২০১৭ সালে তাঁর কাছে হেরেই বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হওয়ার স্বপ্নভঙ্গ হয়েছিল হায়দরাবাদি শাটলারের। এর আগে পরপর দুবার ফাইনালে উঠেও হারের মুখোমুখি হয়েছিলেন গোপীচাঁদের ছাত্রী। রবিবার বাসেলে সেই নোজোমি ওকুহারাকেই মাটি ধরিয়ে প্রথম ভারতীয় শাটলার হিসাবে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হলেন সিন্ধু। এই জয় নিজের মাকে উৎসর্গ করলেন তিনি।

বিশ্ব ব়্যাঙ্কিংয়ে ওকুহারা সিন্ধুর থেকে এগিয়ে। এর আগেও ওকুহারার কাছে হেরে কোর্ট ছাড়তে হয়েছিল সিন্ধুকে। এদিন তারই মধুর প্রতিশোধ নিলেন হায়দরাবাদি শাটলার। বারবার ফাইনালে হেরে চোকার্স তকমা একপ্রকার সেঁটে গিয়েছিল সিন্ধুর গায়ে। তাই এদিন শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক ছিলেন সিন্ধু। প্রতিপক্ষকে একফোঁটাও জায়গা দেননি তিনি। স্ট্রেট সেটে জাপানি শাটলারকে হারিয়ে একপেশে ম্যাচ জিতে নেন সিন্ধু। ফাইনালের ফল সিন্ধুর পক্ষে ২১-৭, ২১-৭। এমন ফল দেখে বোঝাই যাচ্ছে জয়ের জন্য কতটা মরিয়া খেলেছিলেন সিন্ধু।

এদিনই মায়ের জন্মদিন ছিল। তাই বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয়ে এই জয় মাকেই উৎসর্গ করলেন তিনি। সেইসঙ্গে দীর্ঘ পরিশ্রমের ফল হাতে পেয়ে কোচ গোপীচাঁদ ও অন্য কোচিং স্টাফদেরও কৃতজ্ঞতা জানাতে ভোলেননি সিন্ধু। যখন তিনি এই কথাগুলো বলছিলেন তখন তো বটেই, এমনকী গোটা ম্যাচে সারাক্ষণ গ্যালারি থেকে ‘সিন্ধু…সিন্ধু’ বলে প্রবল চিৎকার করছিলেন ভারতীয় দর্শকরা। যা তাঁকে গোটা ম্যাচ উজ্জীবিত করে রেখেছিল। বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয়ে প্রথম ভারতীয় শাটলার হিসাবে ইতিহাসের পাতায় নাম লেখালেন সিন্ধু। সিন্ধুর এই অবিস্মরণীয় জয়ে দেশ গর্বিত বলে টুইট করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং