BREAKING NEWS

৫ মাঘ  ১৪২৮  বুধবার ১৯ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

জার্মানিতে টুর্নামেন্ট শেষ, গ্রেপ্তারি এড়াতেই দেশে ফিরলেন না সৌম্যজিৎ!

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: March 26, 2018 2:01 pm|    Updated: March 26, 2018 2:01 pm

Paddler Soumyajit Ghosh delays return to India

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  জার্মানিতে এক আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট খেলতে গিয়েছিল ভারতীয় টেবিল টেনিস দল। দলে ছিলেন বাংলার টেবিল টেনিস তারকা সৌম্যজিৎ ঘোষ। বাকী সকলেই ফিরে এসেছেন। কিন্তু, দেশে ফিরলেন না বাঙালি এই অলিম্পিয়ান। সূত্রের খবর, টেনিস ফেডারেশনকে মেল করে সৌম্যজিৎ জানিয়েছেন, তিনি অসুস্থ। নিজের শারীরিক অবস্থা সম্পর্কিত নথিও পাঠিয়েছেন তিনি। তবে টেনিস কর্তাদের কাছে বিষয়টি পরিষ্কার নয়। বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাসের  অভিযোগে সৌম্যজিৎ ঘোষের বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা রুজু করেছে পুলিশ। শোনা যাচ্ছে, দেশে ফিরলে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হতে পারে। পুলিশের একাংশের অনুমান, সম্ভবত গ্রেপ্তারি এড়াতে আপাতত দেশে না ফেরার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বাংলার এই নামী টেবিল টেনিস প্লেয়ার।

[কমনওয়েলথে নেই সৌম্যজিৎ,পরিবর্ত হিসেবে দলে সানিল শেঠি]

২০১২ সালে লন্ডন অলিম্পিকে কনিষ্ঠতম ক্রীড়াবিদ হিসেবে দেশের প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন টেবিল টেনিস প্লেয়ার সৌম্যজিৎ ঘোষ। মাত্র ১৯ বছর বয়সেই জাতীয় স্তরে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন তিনি। ওয়ার্ল্ড জুনিয়র টেবিল টেনিস চ্যাম্পিয়নশিপে জিতেছে ব্রোঞ্জ মেডেল। কিন্ত, সৌম্যজিৎ ঘোষের বিরুদ্ধে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাস, গর্ভপাতে বাধ্য করানোর মতো গুরুতর অভিযোগ করেছেন এক তরুণী। বারাসাত মহিলা থানায় এফআইআর করেছেন তিনি। আদালতে অভিযোগকারী গোপন জবানবন্দি দেওয়ার পর, সৌম্যজিতের বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা রুজু করেছে পুলিশ। ওই তরুণী নিজেও স্কুল পর্যায়ের টেবিল টেনিস খেলতেন। তাঁর অভিযোগ, সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে সৌম্যজিতের সঙ্গে আলাপ হয় তাঁর। অল্প কিছুদিনে বাড়ে ঘনিষ্ঠতা। নামী এই টেনিস তারকার কাছে প্রশিক্ষণ নিতে চেয়েছিলেন তিনি। অভিযোগ, প্রশিক্ষণ দেওয়ার নাম করে ওই তরুণীকে বিভিন্ন জায়গায় নিতে যেতেন সৌম্যজিৎ। তাঁর বাঘাযতীনের ফ্ল্যাটে দু’জনের শারীরিক সম্পর্কও হয়েছিল। সৌম্যজিৎ ঘোষকে অস্ট্রেলিয়ায় কমনওয়েলথ গেমসের দল থেকে বাদ দিয়েছে টেবিল টেনিস ফেডারেশন অফ ইন্ডিয়া। তাঁকে সাময়িকভাবে সাসপেন্ডও করা হয়েছে।

[সৌম্যজিৎ বিয়েতে রাজি হলে মামলা তুলতে প্রস্তুত, দাবি তরুণীর বাবার]

দেশে যখন তাঁর বিরুদ্ধে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাসের অভিযোগে তোলপাড় চলছে, তখন জার্মানিতে ছিলেন সৌম্যজিৎ। ব্রেমন শহরে ভারতীয় দলের হয়ে একটি টুর্নামেন্টে খেলছিলেন তিনি। কিন্তু, ইতিমধ্যেই সেই টুর্নামেন্ট শেষ হয়ে গিয়েছে। ভারতীয় টেবিল টেনিস প্লেয়ারা সকলেই দেশে ফিরেছেন। একমাত্র ব্যতিক্রম বাংলার সৌম্যজিৎ ঘোষ। জানা গিয়েছে, টেনিস ফেডারেশন কর্তাদের মেল করে এই বাঙালি অলিম্পিয়ান জানিয়েছেন, তিনি অসুস্থ। নিজের শারীরিক সম্পর্কিত বেশ কিছু নথি পাঠিয়ে দিয়েছেন। কিন্তু, ঠিক কী হয়েছে সৌম্যজিতের? তিনি কতটা অসুস্থ?  তা নিয়ে অন্ধকারে টেনিস কর্তারা। এদিকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাসের অভিযোগে তাঁর বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা রুজু হয়েছে। তাই এই টেবিল টেনিস তারকার গ্রেপ্তারির সম্ভাবনাও উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। শোনা যাচ্ছে, দেশের ফিরলেই সৌম্যজিৎ ঘোষকে গ্রেপ্তার করা হতে পারে। পুলিশের একাংশে অনুমান, সম্ভবত গ্রেপ্তারি এড়াতেই আপাতত দেশে না ফেরার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। আগাম জামিনের আবেদন করার জন্য সময় নিচ্ছেন সৌম্যজিৎ।

[মুম্বইতে ৩৪ কোটি টাকার স্বপ্নের স্কাই বাংলোটি কিনছেন না বিরাট!]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে