BREAKING NEWS

৪ মাঘ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ১৮ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

ভারতীয় মহিলা দলে শেষ পাওয়ার জমানা, নতুন কোচের খোঁজে বোর্ড

Published by: Sulaya Singha |    Posted: November 30, 2018 9:22 pm|    Updated: November 30, 2018 9:22 pm

Ramesh Powar‘s term ended as coach

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতীয় মহিলা দলের কোচ হিসেবে শুক্রবারই শেষ হয়ে গেল রমেশ পাওয়ারের মেয়াদ। আর তারপরই ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড সাফ জানিয়ে দেওয়া হল, পাওয়ারের মেয়াদ আর বাড়ানো হচ্ছে না। উলটে এদিনই নতুন কোচের খোঁজ শুরু করে দিল বিসিসিআই।

টি-২০ বিশ্বকাপ ক্রিকেটের সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম দলে রাখা হয়নি মিতালি রাজকে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাটিতে ইংল্যান্ডের কাছে হার স্বীকার করে নেয় হরমনপ্রিতের ভারত। সে ম্যাচে মিতালিকে বাদ দেওয়ার বিরুদ্ধে সুর চড়িয়েছিলেন প্রাক্তন তারকারা। যদিও সিওএ-র অন্যতম মহিলা সদস্য ডায়ানা এডুলজি জানিয়েছিলেন, মিতালিকে বসিয়ে কোনও অন্যায় করেনি টিম ম্যানেজমেন্ট। ক্রিকেটীয় কারণেই তাঁকে বসানো যুক্তিসঙ্গত বলেই প্রকাশ্যে বিবৃতি দিয়েছিলেন এডুলজি। পরবর্তীকালে প্রকাশ্যে আসে মিতালি বনাম পাওয়ারের সংঘাতও। জাতীয় দলের অভিজ্ঞ মহিলা ক্রিকেটার বুঝিয়ে দিয়েছিলেন কোচ রমেশ পাওয়ারের জন্যই তাঁকে খেলানো হয়নি। আবার কোচও পালটা বোঝাতে চান, মিতালির আচরণ মোটেই দলের পক্ষে ইতিবাচক ছিল না।

পরে এ নিয়ে পাওয়ারের সঙ্গে কথা হয় বোর্ড কর্তাদের। মিতালিকে বসানোর পিছনে তেমন কোনও যুক্তিসংগত কারণ দেখাতে পারেননি কোচ। ইনিংসে ওপেন করতে না দিয়ে কেন মিতালিকে মিডল অর্ডারে নিয়ে আসা হল, কিংবা সেমিফাইনালের মতো গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে কেন তাঁকে খেলানো হল না, তার সুস্পষ্ট ব্যাখ্যা দিতে পারেননি পাওয়ার। শুধু তাই নয়, বোর্ড কর্তারা মনে করছেন, এমন সংকটজনক মুহূর্তে যেভাবে একজন কোচের মেরুদণ্ড সোজা করে দাঁড়ানো উচিত ছিল, তা থেকে সরে গিয়েছিলেন তিনি। পাওয়ারের সঙ্গে মিতালির মনোমালিন্য যে বেড়ে গিয়েছিল, সে বিষয়ে নিশ্চিত হয়ে যান বোর্ড কর্তারা। আর তারপরই তাঁর মেয়াদ না বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এদিনই বোর্ডের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে জানানো হয়, কোচের পদে আগ্রহী প্রার্থীরা আবেদন করতে পারেন।

মিতালি-পাওয়ারের সংঘাত যেন মনে করিয়ে দিল অনিল কুম্বলে ও বিরাট কোহলির ঘটনাকেই। কোচ ও অধিনায়কের মধ্যে মনোমালিন্যের জেরে কোচের পদ থেকে সরে দাঁড়িয়েছিলেন কুম্বলে। পরে কোচ হয়ে আসেন বিরাটের ‘প্রিয় পাত্র’ রবি শাস্ত্রী। এবার পাওয়ারের মেয়াদ না বাড়িয়ে যে মিতালির পাশেই দাঁড়াল বিসিসিআই, এমনটাই মনে করছে ক্রিকেট মহল।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে