BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বৃষ্টিই ধুয়ে দিল ধোনিদের সমতা ফেরানোর স্বপ্ন

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: August 29, 2016 12:58 pm|    Updated: August 29, 2016 12:58 pm

An Images

ওয়েস্ট ইন্ডিজ -১৪৩ (১৯.৪  ওভার)

ভারত -১৫/০ (২ ওভার)

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হতাশ লাগছিল মহেন্দ্র সিং ধোনিকে দেখে৷

গতকালের ব্যর্থতা ঝেড়ে ফেলে রবিবার দুর্দান্ত প্রত্যাবর্তন ঘটিয়েছিলেন ভারতীয় ক্রিকেটাররা৷ ক্যারিবিয়ান বিস্ফোরণ থামিয়ে ১৪৩ রানেই ওয়েস্ট ইন্ডিজকে অল আউট করে দিয়েছিল ভারত৷ অনেকের মতো ধোনিও আশা করেছিলেন, সিরিজ অমীমাংসিত রাখতে পারবেন৷ কিন্তু বিধি বাম৷ ভারতীয় ইনিংস শুরু হওয়ার দু’ওভার পর বৃষ্টি নামল৷ এখানে কোনও সুপার সপার ছিল না৷ ফলে শেষপর্যন্ত খেলাই বাতিল করে দিলেন আম্পায়াররা৷ মাঠ ভিজে থাকায় খেলা শুরু করা যায়নি৷ যখন খেলা বাতিলের কথা ঘোষণা করা হয় তখন ভারতের রান বিনা উইকেটে ১৫৷ ম্যাচ না হওয়ায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ দু’ম্যাচের সিরিজ জিতে নিল ১-০ ব্যবধানে৷

রীতিমতো হতাশ স্বরে ম্যাচের শেষে ধোনি বলছিলেন, “বলছি না, আমরাই জিততাম৷ কিন্তু এই উইকেটে ভাল ব্যাটিং করলে এই রান টপকানো অসম্ভব ছিল না৷ তবে প্রকৃতির কাছে তো কিছু করার থাকে না৷’’ অমিত মিশ্রকে প্রথম একাদশে রাখার পরিকল্পনা একশো শতাংশ খেটে গিয়েছে৷ ধোনি জানালেন, “স্টুয়ার্ট বিনির জায়গায় ওকে খেলানোটা একটু ঝুঁকিরই ছিল৷ কিন্তু অসাধারণ বোলিং করেছে ও৷ অশ্বিনও চমৎকার বোলিং করেছে৷”

আমেরিকায় ফের আসতে চান ধোনি৷ তাঁর মতে, ত্রিদেশীয় বা চতুর্দেশীয় কোনও টুর্নামেন্ট হলে আরও কিছু সময় এখানে কাটাতে পারতেন৷ ক্রিকেটের পক্ষে অসাধারণ ভেনু৷’’  ভারতকে হারিয়ে সিরিজ জিতে খুশি কার্লোস ব্রেথওয়েট৷ তাঁর মুখে অবশ্য ভারতীয় বোলারদের প্রশংসা৷ ক্যারিবিয়ান অধিনায়ক জানালেন, “ভারতের বোলাররা এদিন সত্যিই চমৎকার বোলিং করেছে৷ আমরা চেষ্টা করেছিলাম নিজেদের টার্গেটে পৌঁছনোর৷ কিন্তু পারিনি৷ যদিও এই রান নিয়েই লড়াই করতাম৷ বৃষ্টি শেষপর্যন্ত সব ওলটপালট করে দিল৷ যাই হোক, আমরাই সিরিজ জিতেছি৷ দারুণ লাগছে৷”

ব্রোওয়ার্ড রিজিওনাল পার্কে শনিবার প্রথম ম্যাচে টসে জিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে আগে ব্যাট করতে ডেকেছিলেন৷ সিদ্ধান্তটা বুমেরাং হয়ে ফিরেছিল৷

ধোনি রবিবারও টসে জিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজকেই আগে ব্যাট করতে ডেকেছিলেন৷ কিন্তু আগের দিনের ছবিটা আর দেখা গেল না৷

গত ম্যাচে সব থেকে ভয়ানক অবস্থা হয়েছিল স্টুয়ার্ট বিনির৷ তিনি এক ওভারে দিয়েছিলেন ৩২ রান! বিনির বদলে দলে অমিত মিশ্র৷ দলে ফিরে তিনটি উইকেট নিলেন তিনি৷

জনসন চার্লস আর ইভিন লুইস ফের যখন ব্যাট করতে এলেন, গ্যালারি নড়েচড়ে বসল৷ আগের দিনের হ্যাংওভার তখনও কাটেনি৷ কিন্তু সব দিন তো আর এক যায় না৷ প্রথম তিন ওভারে ২৪৷ তারপর লুইসের প্রস্থান৷ সামির বলে ক্যাচ ধরলেন অমিত৷ আগের ম্যাচের নায়ক ফিরে গেলেন ৭ রান করে৷ এদিন পাশের উইকেটে খেলা হলেও চরিত্র একই ছিল৷ পাটা উইকেট৷

তবে বোলাররা তাও সামান্য কিছু আদায় করে নিতে পারলেন৷ ওয়েস্ট ইন্ডিজের ৫০ রানের মাথায় অমিতের বলে আউট হলেন চার্লস (৪৩)৷

টি-২০-তে ওয়েস্ট ইন্ডিজ বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন৷ ফলে দশ ওভারে ওদের ৭৬ রানে আটকে রাখলেও তখনও ধোনিদের জন্য স্বস্তির ব্যাপার ছিল না৷ তখন তিন উইকেট পড়ে গিয়েছিল৷ সিমন্স ১৯ বলে ১৯ রান করে গেলেন৷ এরপর স্যামুয়েলসও পাঁচ রানে ফেরত গেলেন বুমরার বলে৷ ম্যাচের বাকি সময়টা ওয়েস্ট ইন্ডিজই চাপে ছিল৷ দু’বল বাকি থাকতে তারা শেষ ১৪৩ রানে৷ দুটি করে উইকেট সামি, অশ্বিন ও বুমরার৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement