BREAKING NEWS

১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

সৌম্যজিৎকে সাসপেন্ড করা ছাড়া উপায় নেই টিটি ফেডারেশনের, জানালেন সচিব

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: March 23, 2018 11:06 am|    Updated: March 23, 2018 11:07 am

Soumyajit Ghosh is set to be dropped from the squad for the Commonwealth Games

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অস্ট্রেলিয়ায় কমনওয়েলথ গেমস শুরু হতে আর একমাসও বাকি নেই। কিন্তু, দেশের অন্যতম টেবিল টেনিস তারকা সৌম্যজিৎ ঘোষের বিরুদ্ধে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধর্ষণের মতো গুরুতর অভিযোগ উঠেছে। তাঁর বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা রুজু করেছে পুলিশ। এই পরিস্থিতিতে কমনওয়েলথ গেমসের দল থেকে সৌম্যজিতের বাদ পড়া একপ্রকার নিশ্চিত। সম্ভবত তাঁকে সাসপেন্ডও করা হবে। টেবিল টেনিস ফেডারেশন অফ ইন্ডিয়ার সচিব এম পি সিং জানিয়েছেন, শনিবার কার্যকরী কমিটি বৈঠকেও সৌম্যজিৎ ঘোষ নিয়ে চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে। তিনি বলেন, ‘অভিযোগ অত্যন্ত গুরুতর। আমার মতে, ওঁকে সাসপেন্ড করা ছাড়া আর কোনও উপায় নেই। সানিল শেঠিকে রিজার্ভে রাখা হয়েছে। কমনওয়েলথ গেমসে সৌম্যজিতের পরিবর্তে তাঁকে দলে আনা হবে।’

[সৌম্যজিৎ বিয়েতে রাজি হলে মামলা তুলতে প্রস্তুত, দাবি তরুণীর বাবার]

বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে তরুণীকে একাধিকবার ধর্ষণ। তারপর অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লে জোর করে গর্ভপাত। এমনই মারাত্মক অভিযোগ উঠেছে টেবিল টেনিসে জাতীয় সেরা বাংলার সৌম্যজিৎ ঘোষের বিরুদ্ধে। বৃহস্পতিবার আদালতে অভিযোগকারিনী গোপন জবানবন্দি দেওয়ার পর, অলিম্পিয়ান টেনিস তারকার বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা রুজু করেছে পুলিশ। নির্যাতিতা তরুণী জানিয়েছেন, সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটেই তাঁর আলাপ হয় সৌম্যজিতের সঙ্গে। সেখান থেকে বাড়ে ঘনিষ্ঠতা। স্কুল পর্যায়ে টেবিল টেনিস খেলতেন ওই তরুণীও। খেলাধুলায় সৌম্যজিতের ‘প্রশিক্ষণ’ চান তিনি। অভিযোগ, প্রশিক্ষণ দেওয়ার অছিলায় সৌম্যজিৎ তাঁকে বিভিন্ন জায়গায় ডেকে পাঠাতেন। তারপর ঘনিষ্ঠতা বাড়ে। একাধিকবার বাঘাযতীনের বাড়িতে গিয়েছিলেন তরুণী। সেখানেই শারীরিক সম্পর্ক হয়। ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বর মাস নাগাদ তরুণী জানতে পারেন অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছেন তিনি। এখন দেশের বাইরে সৌম্যজিৎ ঘোষ। সব অভিযোগই ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছেন তিনি। কিন্তু, এইসব অভিযোগের কারণেই  আসন্ন কমনওয়েলথ গেমসের দল থেকে এই টেবিল টেনিস তারকা থেকে যে বাদ পড়তে চলেছেন, তা কার্যত স্পষ্ট করে দিয়েছেন টেবিল টেনিস ফেডারেশন অফ ইন্ডিয়ার সচিব এম পি সিং।

[বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধর্ষণ, অভিযুক্ত অলিম্পিয়ান সৌম্যজিৎ ঘোষ]

২০১২ লন্ডন অলিম্পিকে দেশের কনিষ্ঠতম সদস্য ছিলেন সৌম্যজিৎ ঘোষ। মাত্র ১৯ বছর বয়সেই জাতীয় সেরার খেতাব পেয়েছিলেন তিনি। ওয়ার্ল্ড জুনিয়র চ্যাম্পিয়নশিপে ব্রোঞ্জ মেডেলও রয়েছে তাঁর ঝুলিতে। এপ্রিলে অস্ট্রেলিয়ার গোল্ড কোস্ট শহরে অনুষ্ঠিত হতে চলা কমনওয়েলথ গেমস জাতীয় টেবিল টেনিস দলেও সুযোগ পেয়েছেন সৌম্যজিৎ। টেবিল টেনিস ফেডারেশন অফ ইন্ডিয়ার সচিব এম পি সিং জানিয়েছেন, ‘অভিযোগ অত্যন্ত গুরুতর। শনিবার কার্যকরী কমিটির বৈঠক ডেকেছি। আমার মতে সৌম্যজিৎকে সাসপেন্ড করা ছাড়া আর কোনও উপায় নেই। সানিল শেঠি রিজার্ভে আছে। ওঁকে বদলি হিসেবে দলে আনা হবে।’

[ফিক্সিংয়ের অভিযোগ থেকে মুক্ত শামি, বহাল বোর্ডের চুক্তি]

খেলার কারণে এখন কলকাতায় থাকেন টেবিল টেনিস প্লেয়ার সৌম্যজিৎ ঘোষ। বাঘাযতীন তাঁর ফ্ল্যাট আছে। তবে সৌম্যজিতের আদিবাড়ি শিলিগুড়ি। তাঁর বাবা শিলিগুড়ি পুরনিগমের কর্মী। শহরের ছেলে বিরুদ্ধে এমন মারাত্মক অভিযোগ ওঠায় হতবাক শিলিগুড়ির ক্রীড়ামহলও। শহরে আরও এক নামী টেবিল টেনিস তারকা মান্তু ঘোষ বলেন, ‘হতাশাজনক। আশা করব যেন এসব থেকে বেরিয়ে আসতে পারে।’

[‘অশান্তি’ অব্যাহত, মাঠে এসেও ড্রেসিংরুমে বসে রইলেন কোচ খালিদ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে