BREAKING NEWS

০২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  বুধবার ১৮ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

কোহলি-যুবরাজরা ম্যাচ গড়াপেটা করেছেন, বিস্ফোরক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 2, 2017 7:56 am|    Updated: July 2, 2017 7:56 am

Union Minister Athawale hurls match fixing allegation against Virat and Yuvraj

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনাল অতীত। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের কাছে বিরাটদের হারের পর থেকেই গোটা দেশে সেই নিয়ে কাঁটাছেঁড়া শুরু হয়ে গিয়েছিল। এমনকী মহেন্দ্র সিং ধোনি, যুবরাজ সিংদের বিরুদ্ধে ম্যাচ গড়াপেটার অভিযোগও উঠেছিল। ফের একবার সেই বিতর্ককে উসকে দিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রামদাস আতাওয়ালে। তাঁর দাবি, ভারত-পাকিস্তান ম্যাচটি গড়াপেটা হয়েছে। ব্যাপারটির যেন পূর্ণাঙ্গ তদন্ত করা হয়।

[যোগীর রাজ্যে মোষ চুরি রুখতে গিয়ে প্রাণ গেল কৃষকের]

দু’দশক আগেও একবার ভারতীয় ক্রিকেটকে গড়াপেটার কালো ছায়া গ্রাস করেছিল। ফের একবার সেই স্মৃতি ভেসে উঠেছিল চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে ভারত-পাকিস্তান ফাইনাল ম্যাচের পর। অনেকেই গড়াপেটার অভিযোগ তোলেন। আর এই প্রসঙ্গেই ফের একবার বিতর্ক তৈরি হল কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর বক্তব্যে। এক সাক্ষাৎকারে তিনি অভিযোগ করেন, ‘গোটা টুর্নামেন্টে যে ক্রিকেটাররা এত দুর্দান্ত খেলল। তাঁরা কী করে ফাইনালে ওরকম বাজে পারফর্ম করল? এর থেকেই প্রমাণিত হয় ম্যাচের ফলাফল আগে থেকেই ঠিক ছিল। অবিলম্বে এর তদন্ত হওয়া উচিত।’ বেশ কয়েকটি সংবাদমাধ্যমের মতে, রামদাস নাকি দাবি করেছেন ম্যাচ গড়াপেটার পিছনে মূল কাণ্ডারী যুবরাজ সিং ও বিরাট কোহলি। তিনি নাকি বলেন, ‘ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের মধ্যে যুবরাজ যিনি কিনা আগে বহু ম্যাচে দেশের হয়ে দুর্দান্ত ব্যাটিং করেছেন এবং বিরাট কোহলি, যাঁর বহু শতরান রয়েছে, কী করে পাকিস্তান ম্যাচে ওইরকম ব্যাটিং করতে পারেন? পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ম্যাচটি দেখে মনে হচ্ছিল তাঁরা যেন হারতেই মাঠে নেমেছেন। অনিল কুম্বলের মতো প্রাক্তন ক্রিকেটার ওখানে কোচ হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, তা সত্ত্বেও ওইদিন কোহলির কী হল? এই কারণেই আমি তদন্তের দাবি জানাচ্ছি।’

[ঝাড়খণ্ডে এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে মারার ঘটনায় গ্রেপ্তার বিজেপি নেতা]

এর পাশাপাশি জাতীয় ক্রিকেট দলেও দলিত সম্প্রদায়ের জন্য সংরক্ষণের দাবি তুলেছেন। বলেন, ‘যে সমস্ত ক্রিকেটাররা পারফর্ম করতে পারছেন না। তাঁদের দল থেকে বাদ দেওয়া হোক। সেই জায়গায় দলিত ও পিছিয়ে পড়া শ্রেনির যোগ্য খেলোয়াড়দের জায়গা দেওয়া হোক।’ এর পাশাপাশি ক্রিকেট ও অন্যান্য খেলায় দলিত এবং আদিবাসীদের জন্য ২৫ শতাংশ স্থান সংরক্ষণের দাবি করেন। যদিও রামদাসের এই দাবিকে অনেকেই হাস্যকর বলে উড়িয়ে দিয়েছেন।

[১০ জুলাই ঠিক হবে কে হবেন কোহলিদের ‘হেডস্যার’]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে