০৯ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  বুধবার ২৫ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

পাকিস্তানি মহিলার কারণেই শূন্য রানে আউট বিরাট!

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 9, 2017 8:47 am|    Updated: June 9, 2017 9:55 am

Virat Kohli suffered the 'curse' of Zainab Abbas for debacle against Lanka!

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাসের কারণেই কি হারতে হল ভারতকে? বৃহস্পতিবার শ্রীলঙ্কার কাছে সাত উইকেটে শোচনীয় পরাজয়ের পর এমনই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে ক্রিকেটমহলে। এর পাশাপাশি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির দ্বিতীয় ম্যাচেও রবিচন্দ্রন অশ্বিনকে না খেলানো নিয়ে জল্পনা শুরু হয়েছে। এর পাশাপাশি ভারত-শ্রীলঙ্কা ম্যাচের আরও একটি ঘটনা নিয়ে ইতিমধ্যেই কিন্তু আলোচনা শুরু হয়ে গিয়েছে। তা হল কোনও রান না করেই ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলির ড্রেসিংরুমে ফিরে যাওয়া। ওয়ানডে ক্রিকেটে গত তিন বছরে যে ঘটনা দেখা যায়নি। শেষবার ২০১৪ সালে কার্ডিফে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ম্যাচটিতেই শূন্য রানে ফিরেছিলেন বিরাট।

[শাহরুখ-অনুষ্কাকে নিয়ে কি ‘জব উই মেট’-এর সিরিজ বানাচ্ছেন ইমতিয়াজ আলি?]

ক্রিকেটকে বলা হয় চরম অনিশ্চয়তার খেলা। যেখানে একটি বলেই পাল্টে যেতে পারে ম্যাচের ভাগ্য। সেখানে একদিন বিরাট নাহয় শূন্য রানেই প্যাভিলিয়নে ফিরলেন, তাতে ‘মহাভারত অশুদ্ধ’ হওয়ার মতো কিছু তো হয়নি। কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়া এই তত্ত্ব মানতে নারাজ। তাদের দাবি অনুযায়ী, বিরাটের শূন্য রানে প্যাভিলিয়নে ফেরার পিছনে হাত রয়েছে পাকিস্তানের একটি টিভি চ্যানেলের ক্রিকেট বিশেষজ্ঞ এবং সাংবাদিক জাইনাব আব্বাসের।

[ফতিমার এই ছবি দেখলে আপনি তাঁর প্রেমে পড়তে বাধ্য]

কিন্তু খেলা ছিল শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে। সেখানে বিরাটের শূন্য হাতে ফেরার জন্য এই মহিলা ক্রিকেট বিশেষজ্ঞ ও সাংবাদিক কীভাবে দায়ী থাকবেন? জানা গিয়েছে, দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে পাকিস্তানের ম্যাচের আগে অধিনায়ক এ বি ডিভিলিয়ার্সের সঙ্গে একটি সেলফি তুলেছিলেন জাইনাব আব্বাস। এরপর ম্যাচে খাতা খুলতেই পারেননি প্রোটিয়া অধিনায়ক। বৃহস্পতিবার ভারত অধিনায়কের সঙ্গেও সেলফি তোলেন তিনি। আর তারপরই প্রায় তিন বছর পর ওয়ানডে ক্রিকেটে শূন্য রানে আউট হলেন বিরাট।

Kohli1_web

এই দু’টি ঘটনার সাপেক্ষেই সোশ্যাল মিডিয়ায় জাইনাব আব্বাসকে নিয়ে আলোচনা শুরু হয়ে যায়। জনৈক পাকিস্তানি সমর্থক দাবি তোলেন, ‘শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ম্যাচের দিনও জাইনাব আব্বাস যেন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউজের সঙ্গে ছবি তোলেন।’ উল্টোদিকে, অনেক ভারতীয় সমর্থকই আবার কটাক্ষ করেছেন তাঁকে। কেউ লেখেন, ‘আব্বাসের সেলফির অভিশাপ ফিরে এসেছে। আগের দিন ডিভিলিয়ার্স আর এবার কোহলি।’ আরেকজন লেখেন, ‘দুই দুর্দান্ত ব্যাটসম্যান, আগেরদিন ডিভিলিয়ার্স এবং আর এদিন কোহলি- সেলফি তোলার পরই আধুনিক ক্রিকেটের অন্যতম দুই স্তম্ভ শূন্য রানে ফিরে গেলেন।’ আরেক ভারতীয় সমর্থক দাবি তোলেন, ‘আগামিদিনে যে কোনও ধরনের আইসিসি ইভেন্টে জাইনাব আব্বাস যেন ভারতের অন্যান্য ব্যাটসম্যানদের থেকে দূরে থাকেন।’ এ ব্যাপারে পিটিশন জমা দেওয়ার কথাও বলেন তিনি। যদিও তাঁর বিরুদ্ধে সোশ্যাল মিডিয়ায় করা এই ধরনের মন্তব্যগুলিকে মজার ছলেই মেনে নিয়েছেন জাইনাব।

 

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে