BREAKING NEWS

২৬  শ্রাবণ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ১৬ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘ভুল থেকে শিক্ষা নিয়েই এগোব’, শেষ টেস্টে নামার আগে প্রতিজ্ঞা বিরাটের

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 23, 2018 2:07 pm|    Updated: January 23, 2018 2:07 pm

Will try to correct mistakes: Virat Kohli

দেবাশিস সেন: সম্মানরক্ষা নাকি হোয়াইটওয়াশ? দুই শিবিরের সামনেই ঝুলে আছে এই প্রশ্ন। ঘরের মাঠে সিরিজের তৃতীয় টেস্টে ভারতকে হারিয়ে হোয়্যাইটওয়াশের লক্ষ্যে দক্ষিণ আফ্রিকা। অন্যদিকে ভারত চাইছে অন্তত সম্মানরক্ষাটুকু হোক। এই পরিস্থিতিতেই সাংবাদিকদের সামনে এসে ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি জানিয়ে দিলেন, লড়াই কোনওমতেই ছাড়ছেন না তাঁরা। বরং অতীতের ভুল থেকে শিক্ষা নিয়েই এগিয়ে যাবেন।

দুই টেস্টে কেন হার, সম্মানরক্ষার ম্যাচের আগে সাফাই দিলেন শাস্ত্রী ]

টেস্ট চলাকালীন মাথা গরম করতে দেখা গিয়েছিল ভারত অধিনায়ককে। হার্দিকের উপর বেশ ক্ষুব্ধ ছিলেন। কিন্তু এদিন কারও উপর দোষ চাপালেন না। এমনকী বাহ্যিক কোনও পরিস্থিতিকেও দোষারোপ করলেন না। জানালেন, ‘আমাদেরই ভুলে আমরা হেরেছি। আর কোনও কারণ নেই।’ এর জন্য ব্যক্তিগতভাবে কেউ দায়ী নয়। কেননা অধিনায়কের ব্যাখ্যা, ক্রিকেট তো সমষ্টিগত খেলা। ফলে সকলেরই দায়িত্ব আছে। খেলায় যখন কেউ হেরে যায় তখন প্রত্যেককেই দায় নিতে হয়। আবার সমষ্টিগত হলেও প্রত্যেকের নির্দিষ্ট দায়িত্ব আছে। এক একটা সময়ে মাঠে দাঁড়িয়ে এক একজনকে সেই দায়িত্ব পালন করতে হয়। তিনি ব্যর্থ হলে পুরো দলেই তার প্রভাব পড়ে। অধিনায়কের জানান, প্রত্যেকেই নিজের নিজের ভুলটা বুঝতে পেরেছেন। সে বিষয়ে আলাদা করে সবার সঙ্গে কথাও বলা হয়েছে। সুতরাং মাঠে গিয়ে কেউ আর তা দ্বিতীয়বার করবেন না, আশা এমনটাই। সেটাই হবে যথার্থ উন্নতি। তিনি জানান, প্রতিটি খেলা নতুন। অতীত মাথায় নিয়ে কেউ নামে না। আগামী সিরিজকেও তাই নতুন একটি খেলা হিসেবেই দেখছেন তিনি।

‘চাপ নিয়ে দীর্ঘদিন দায়িত্ব সামলাতে পারবেন না বিরাট’ ]

এদিন বিরাট স্পষ্ট জানিয়ে দেন, ভেঙে পড়ার কোনও প্রশ্নই নেই। অতীতে নিজের ব্যক্তিগত জীবনেও খারাপ পর্ব এসেছে। তা কাটিয়েও উঠেছেন। দলও এই মুহূর্তে খারাপ সময়ের মধ্যে যাচ্ছে। তবে আত্মপ্রত্যয় থাকলে তা কাটিয়ে ওঠা যাবে বলেই বিশ্বাস তাঁর। নেতৃত্বের চাপও তাঁর কাছে বোঝা হচ্ছে না। বিরাট জানান, এক একটা সময়ে একটা বিশেষ দায়িত্ব এসে পড়ে। সেটা সঙ্গে নিয়েই চলতে হয়। সুতরাং বাড়তি চাপ কিছু নেই। ব্যাটিং বিপর্যয় নিয়ে এদিন ব্যাটিং কোচ সঞ্জয় বাঙ্গারের পাশেই দাঁড়ালেন অধিনায়ক। সব মিলিয়ে নেতার মতোই দলের প্রত্যেককে আড়াল করেছেন। কারও ঘাড়ে দোষ চাপাননি। বরং সমষ্টিগতভাবে ভাল খেলার উপরই জোর দিয়েছেন। জীবনের নতুন ইনিংস শুরু করার পর এটাই প্রথম সিরিজ। সেখানেই এরকম ব্যর্থতা। যদিও বিরাট বলছেন, ব্যক্তিগতভাবে এ টেস্ট তাঁর কাছে স্পেশ্যাল। শেষ টেস্টটা জিতে তার মাত্রা কি আর একটু বাড়িয়ে নিতে চাইছেন অধিনায়ক? আগামী ক’দিনেই তার উত্তর মিলবে।

দেখুন ভিডিও:

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে