৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

এবার শহরে চলবে এসি মিনিবাস

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: August 25, 2016 9:29 am|    Updated: August 25, 2016 9:29 am

An Images

স্টাফ রিপোর্টার: পুজোর আগেই বড়সড় চমক দিতে চলেছে রাজ্য সরকার৷ বড় বাসের পর শহরের রাস্তায় এবার এসি মিনিবাস নামাচ্ছে সরকার৷ মাসখানেকের মধ্যেই মেটিয়াবুরুজ, গার্ডেনরিচ থেকে চারটি এসি মিনিবাস রাস্তায় চলবে৷

৩০ সিটের হবে বাসগুলি৷ বুধবার মেটিয়াবুরুজের বিচালি ঘাটে এক অনুষ্ঠানে গিয়ে পরিবহণমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী বলেন, “মেটিয়াবুরুজের মানুষের যাতায়াতে সমস্যা মেটাতে চারটি এসি মিনিবাস মাসখানেকের মধ্যে নামানো হবে৷ একটু রাত হয়ে গেলেই এখানে গাড়ি পাওয়া যায় না৷ সেই সমস্যা মেটাতেই নতুন এই বাস চালু হবে৷ এছাড়াও নদীপথে বিচালিঘাট থেকে নতুন রুট চালু হল৷ এর ফলে এখানকার বাসিন্দারা লঞ্চে করে খুব দ্রুত হাওড়ায় পৌঁছে যেতে পারবেন৷ এই ঘাটটির আধুনিকীকরণ করা হবে৷ আমায় ববি দা এই প্রোপোজাল দিয়েছিল৷ তাই দ্রুত এই পরিষেবা চালু করলাম৷ আরও অনেক কাজ আমাদের করতে হবে৷”

এদিন পশ্চিমবঙ্গ ভূতল পরিবহণ নিগমের তরফে বিচালিঘাট থেকে রামকৃষ্ণপুর, হাওড়া হয়ে ফেয়ারলি প্লেস পর্যন্ত ফেরি পরিষেবার সূচনা করা হয়৷ পুরো রুটের যাত্রীভাড়া হয়েছে ১৫ টাকা৷ দিনে আপাতত তিনটি ট্রিপ চলবে৷ এদিনের অনুষ্ঠানে স্থানীয় বিধায়ক তথা রাজ্যের পুর ও নগরোন্নয়নমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম বলেন, “যদি সাধারণ মানুষের কাছে এই ফেরি পরিষেবা জনপ্রিয় হয়, ভিড় বাড়ে, সেক্ষেত্রে আরও লঞ্চ নামানো হবে৷ তাছাড়াও আমি এখানকার মানুষের জন্য দু-চারটি বাস দিতে শুভেন্দুকে বলেছি৷ ও বলেছে, শীঘ্রই তা নামানোর পরিকল্পনা নিয়েছে৷”

এদিকে পরিবহণ দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, তিনটি নিগমের জন্য নতুন ২৫০টি নতুন বাস নামানো হবে৷ তার মধ্যে বেশ কিছু এসি মিনিবাস রয়েছে৷ সড়ক পরিবহণের পাশাপাশি জল পরিবহণকেও সমান গুরুত্ব দিতে চাইছেন পরিবহণমন্ত্রী৷ এদিন তিনি বলেন, “গঙ্গার ধারের ৫০টি মেজর জেটিকে আধুনিকীকরণ করা হবে৷ তাছাড়া রো রো পরিষেবাও চালু হবে৷ আপাতত রায়চক-কুকড়াহাট এবং নৃসিংহপুর-কালনা ঘাটে রো রো চালু হবে৷”

উপরের ছবিটি প্রতীকী৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement