BREAKING NEWS

১ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বিহারের পর এবার ঝাড়খণ্ডে প্রশ্নের মুখে পরীক্ষা পদ্ধতি

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 13, 2016 5:23 pm|    Updated: July 13, 2016 5:23 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিহারের মেধা বিক্রির ছায়া এবার ঝাড়খণ্ডে৷ বিহারের পর এবার ঝাড়খন্ডেও ছাত্র-ছাত্রীদের মেধা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে৷ সম্প্রতি সেখানকার একটি কলেজে নবম এবং একাদশ শ্রেণির পরীক্ষায় দেখা গিয়েছে ছাত্র-ছাত্রীরা প্রায় একে অপরের প্রায় ঘাড়ের উপর বসে পরীক্ষা দিচ্ছেন৷ একই বেঞ্চে বসে পরীক্ষা দিচ্ছেন চার থেকে পাঁচজন ছাত্র-ছাত্রী৷ চলছে গণ টোকাটুকি৷ এই ব্যাপারটি প্রকাশ্যে আসায় গোটা ব্যাপারটি নিয়ে জলঘোলা শুরু হয়েছে৷ বিহারের মতো ঝাড়খণ্ডেও মেধা বিক্রি হয় কিনা সেই বিষয়ে খতিয়ে দেখা হচ্ছে৷ যদিও কলেজ কর্তৃপক্ষের দাবি, কলেজে জায়গার খুব অভাব তাই এইভাবেই পরীক্ষা নিতে হচ্ছে৷

গত ৯ জুলাই ঝাড়খণ্ডের আর এস মোর কলেজে ১০০ জন পরীক্ষার্থীর এমনভাবে পরীক্ষা দেওয়ার খবরটি প্রকাশ্যে আসে৷ তাদের প্রশ্ন করা হলে তাঁরা বলেন, কলেজে জায়গা কম থাকায় এইভাবে পরীক্ষা দিতে তারা বাধ্য হয়েছে৷ অন্যদিকে, পরীক্ষকের দাবি এমন কাছাকাছি বসে পরীক্ষা দিলেও ছাত্ররা একে অপরের খাতা দেখে লিখছিল না৷
যদিও প্রকাশ্যে এসেছে পরীক্ষার হলে ছাত্ররা বই এবং মোবাইল ফোন নিয়ে পরীক্ষা দিচ্ছিলেন৷
প্রসঙ্গত, দিন কয়েক আগে ফল বের হয় বিহার বোর্ডের উচ্চমাধ্যমিকের৷ সেই পরীক্ষায় কলা বিভাগে প্রথম স্থান অধিকার করে রুবি রাই৷ ফল বেরনোর পর রুবি রাইকে প্রশ্ন করা হয় পলিটিক্যাল সায়েন্স নিয়ে। জবাবে রুবি বলে, “এটি একটি রান্না শেখানোর বিষয়।” পলিটিক্যাল সায়েন্সকে প্রডিক্যাল সায়েন্স বলে রুবি। অন্য দিকে, বিজ্ঞান বিভাগের প্রথম স্থানাধিকারী সৌরভ শ্রেষ্ঠ জল এবং H2O-র সম্পর্ক বলতে না পারায় গোটা দেশে হইচই পড়ে যায়। প্রশ্ন ওঠে কী ভাবে এঁরা বোর্ডের পরীক্ষায় প্রথম হয়েছে। এরপর তদন্তে নেমে মেধা বিক্রির ব্যাপারটি প্রকাশ্যে আসে৷ এই স্ক্যামে যুক্ত থাকার অপরাধে বিহার স্কুল এডুকেশন বোর্ডের প্রধান লালকেশ্বর সিং এবং তার স্ত্রী’কে গ্রেফতার করে বিহার পুলিশ৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement