৯ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

সুন্দরবনের ইতিহাস মৌর্য যুগের সমসাময়িক!

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: August 1, 2016 4:52 pm|    Updated: August 1, 2016 4:52 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সুন্দরবনের ম্যানগ্রোভের নিচে লুকিয়ে প্রাচীনকালের অজানা ইতিহাস৷ এমনটাই মনে করছেন প্রত্নতত্ত্ববিদরা৷ বাঘেদের ডেরায় নাকি মিলেছে মৌর্য যুগের সমসাময়িক ধ্বংসাবশেষ৷

১৭৬৪ সালে প্রথমবার ব্রিটিশ ম্যাপে ঠাঁই পেয়েছিল সুন্দরবন৷ তবে ম্যানগ্রোভ অরণ্যের লোকগীতিতে ২০০-৩০০ খ্রীষ্টাব্দের কাহিনীর উল্লেখ পাওয়া যায়৷ তবে, বাঘদের জন্য সংরক্ষিত ধানচি, পাথর প্রতিমা ও বিজওয়াড়ার মতো এলাকায় সার্ভে করে এমন নানা মিনিয়েচার পট, প্যাস্টেল, কাজ করা পুরনো পাথর বিজ্ঞানীরা পেয়েছেন৷ যা দেখে তাঁরা মনে করছেন, দক্ষিণবঙ্গের এই জনপ্রিয় স্থানের অস্তিত্ব মৌর্য যুগের সমসাময়িক৷ কিংবা তার চেয়েও পুরনো৷ এমনকী খ্রীষ্টের জন্মের আগেও এর বিদ্যমান থাকার কথাও উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না৷

ইতিহাসের এই নতুন আবিষ্কারের কৃতিত্ব অনেকটাই মৎস্যজীবী বিশ্বজিৎ সাহুর৷ ইতিহাসের এত তত্ত্ব বা মৌর্য সাম্রাজ্য সম্পর্কে এতকিছু জানেন না তিনি৷ কিন্তু, বছরের পর বছর ধরে ইতিহাসের এই মহামূল্যবান সম্পদগুলিকে সংগ্রহ করে যত্নসহকারে নিজের কাছে রেখে দিয়েছেন তিনি৷ প্রায় ১৫ হাজার এমন নিদর্শন রয়েছে তাঁর কাছে৷ যা বিভিন্ন দ্বীপে মাছের খোঁজে গিয়ে খুঁজে পেয়েছেন তিনি৷

পুরাতত্ত্বের এই গোপন তথ্যগুলি উদ্ধার করেছেন আর্কিওলজিকাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়ার পূর্বাঞ্চলের আঞ্চলিক ডিরেক্টর ফণিকান্ত মিশ্র৷ এগুলি বিচার-বিশ্লেষণ করেই বদলানো যাবে ম্যানগ্রোভের রাজ্যের ইতিহাস৷ এমনটাই আশা ইতিহাসবিদদের৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement