BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

খেলতে গিয়ে পাঁচ বছরের শিশুকে গলা টিপে খুন

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: August 11, 2016 3:47 pm|    Updated: August 11, 2016 3:47 pm

An Images

স্টাফ রিপোর্টার: চোর চোর খেলতে খেলতে পাঁচ বছরের এক শিশুকে গলা টিপে খুন করার দায়ে ১৪ বছরের এক কিশোরীকে গ্রেফতার করল পুলিশ৷ চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় কোলাঘাট থানা এলাকায় শান্তিপুর গ্রামে ঘটেছে৷

এই ঘটনায় কোলাঘাট থানার পুলিশ দেবযানী মাইতি (১৫) নামে এক কিশোরীকে গ্রেফতার করেছে৷ ধৃত কিশোরীকে পুলিশ তমলুকের জুভেনাইল হোমে পাঠিয়েছে৷ কোলাঘাট থানার ওসি জানান, মৃত শিশুপুত্র অর্পণ জানার (৫) মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য বৃহস্পতিবার তমলুক জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে৷ পুলিশ জানায়, শান্তিপুর গ্রামের বাসিন্দা জগন্নাথ জানা পেশায় সবজি ব্যবসায়ী৷ জগন্নাথবাবুর বাড়িতে ভাড়ায় থাকতেন পেশায় ব্যবসায়ী কমল মাইতি৷ কমলবাবুর স্ত্রী সরস্বতী মাইতি ও মেয়ে দেবযানী মাইতি ওই বাড়িতে থাকত৷ কমলবাবুর স্ত্রী সরস্বতীদেবী স্থানীয় এক নার্সিংহোমে কাজ করেন৷ কমলবাবু কর্মসূত্রে বাইরে থাকেন৷ সকাল থেকে সন্ধে পর্যন্ত বাড়িতে একাই থাকত দেবযানী৷

বাড়িতে কেউ না থাকার কারণে দেবযানীর খেলার সঙ্গী হয়ে গিয়েছিল বাড়ির মালিক জগন্নাথ জানার ছেলে অর্পণ৷ দু’জনেই সকাল থেকে সন্ধ্যা একসঙ্গে খেলত৷ বুধবার সন্ধ্যায় দেবযানী ও অর্পণ চোর-চোর খেলা খেলছিল৷ খেলায় দেবযানী হেরে যায়৷ তারপর দেবযানী ও অর্পণের মধ্যে সামান্য মারপিটও শুরু হয়৷ আচমকা দেবযানী অর্পণের গলা চেপে ধরে৷ কিছুক্ষণের মধ্যে অর্পণের দেহ নিথর হয়ে যায়৷ তখন ভয়ে আতঙ্কিত হয়ে দেবযানী খাটের তলায় মৃতদেহ ঢুকিয়ে পালিয়ে যায়৷

বৃহস্পতিবার সকালে খাটের তলা থেকে অর্পণের নিথর দেহ উদ্ধার করে পুলিশ৷ তাকে স্থানীয় নার্সিংহোমে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন৷ বাড়ির মালিক জগন্নাথ জানার দাদা ভোলানাথ জানা এ বিষয়ে কোলাঘাট থানার পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করেন৷ পুলিশ ঘটনাস্থলে রয়েছে৷ এলাকায় প্রবল উত্তেজনা রয়েছে৷ দেবযানী খেলার ছলে অর্পণকে গলা টিপে মেরে ফেলেছে, না ইচ্ছে করে অর্পণকে খুন করেছে, পুলিশ তা তদন্ত করে দেখছে৷ এই ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement