BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

জাতীয় পতাকা তুলেই হামলায় হত জওয়ান

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: August 17, 2016 12:19 pm|    Updated: August 17, 2016 12:19 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: স্বাধীনতা দিবসের দিন সকাল সাড়ে আটটায় জাতীয় পতাকা তুলেছিলেন৷ তারপর মিনিট দশেক বক্তৃতা দেন তিনি৷ সহকর্মী ও অধস্তনদের মনে করিয়ে দেন কাশ্মীরের এখনকার অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতিতে সিআরপিএফের কী কী করণীয়৷ এর কিছুক্ষণ পরেই জঙ্গিদের সঙ্গে মুখোমুখি গুলির লড়াইয়ে প্রাণ হারালেন তিনি৷ তিনি অর্থাৎ সিআরপিএফের জওয়ান প্রমোদ কুমারের নাম এখন সহকর্মীদের মুখে মুখে৷ শহিদ হওয়ার আগে বক্তৃতা দেওয়ার সময় দু’বার বলেছিলেন ‘আজকের দিনটি খুব গুরুত্বপূর্ণ দিন’৷

কিন্তু সেদিনই যে তাঁর জীবনের শেষ দিন, তাঁর শহিদ হওয়ার দিন তা জানতেন না ভীষণ ডাকাবুকো এই অফিসার৷ ৪৪ বছরের প্রমোদ কুমার আদতে পাটনার ছেলে৷ এখন তিনি সপরিবার ঝাড়খণ্ডের জামতাড়ার বাসিন্দা৷ ১৯৯৮ সালে সিআরপিএফে যোগ দেন৷ দীর্ঘ কয়েক বছর উত্তর-পূর্বে কাটিয়েছিলেন৷ ২০১৪ সাল থেকে কাশ্মীরে পোস্টিং হয়৷ সম্প্রতি কমান্ডান্ট পদে প্রোমোশন পান৷ ৪৯ নম্বর ব্যাটালিয়নের কমান্ডিং অফিসার হিসাবে উপত্যকায় তাঁর অফিসের সামনে সকাল সাড়ে আটটা নাগাদ তিনি পতাকা তোলেন৷ জাতীয় সঙ্গীতের সঙ্গে গলা মেলান৷ তারপর বক্তৃতা দেন ও জওয়ানদের সঙ্গে মিষ্টিমুখ করেন৷

সকালের অনুষ্ঠান শেষ হতে না হতেই সিআরপিএফের কণ্ট্রোল রুমের ওয়্যারলেস বেজে ওঠে ঘন ঘন৷ বলা হয়, শ্রীনগরের শহরতলি এলাকা নৌহাট্টা চক, গজওয়ারা চক, বাটা গলি, খানইয়ার চক এলাকায় হামলা চালিয়েছে জঙ্গিরা৷ এখনই আরও বেশি জওয়ান পাঠাতে হবে৷

খবর শুনেই বাকি জওয়ানদের নির্দেশ দিয়ে প্রমোদ তাঁর পাঁচ ব্যক্তিগত রক্ষী ও আরও দুই জওয়ানকে নিয়ে একটি বুলেটপ্রুফ এসইউভিতে চড়ে দ্রূত নৌহাট্টা চকে যান৷ সেখানে মুখোমুখি গুলির লড়াই শুরু করেন জঙ্গিদের সঙ্গে৷ বেশ কিছুক্ষণ গুলির লড়াই চলে৷ একটি বাড়ির দিকে এগোতেই জঙ্গিদের ছোড়া পরপর দু’টি বুলেট প্রমোদের গলা ফুঁড়ে যায়৷ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন৷ এই অভিযানে তাঁর নেতৃত্বাধীন অপারেশন টিম দু’জন জঙ্গিকে খতম করেছে৷ জখম হয়েছেন আট সিআরপিএফ জওয়ান৷

ঝাড়খণ্ডের জামতাড়া জেলার মিহিজাম গ্রামে পূর্ণ সামরিক মর্যাদায় তাঁর শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে৷ তাঁর স্ত্রী নেহা ত্রিপাঠী ও সাত বছরের কন্যা অর্ণা আছে৷ অন্যদিকে, কাশ্মীরে হিংসাত্মক পরিস্থিতি অব্যাহত রয়েছে৷ এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় দু’টি পৃথক সেনা অভিযানে মোট সাত জন জঙ্গি নিহত হয়েছে৷ নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর দুটি অনুপ্রবেশ রুখেছে সেনাবাহিনী৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement