BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ডেঙ্গুতে বাড়ছে মৃত্যু, ছড়াচ্ছে আতঙ্কও

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: August 5, 2016 9:06 am|    Updated: August 5, 2016 9:06 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ব্যুরো: বেড়েই চলেছে ডেঙ্গুর দাপট৷ বৃহস্পতিবার বিকেলে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত দক্ষিণ দমদমের এক কিশোরের মৃত্যু হয় বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে৷ নাম গৌরব সাহা (২০)৷ এই নিয়ে রাজ্যে ডেঙ্গুতে মৃতের সংখ্যা হল ৯৷ আক্রান্তের সংখ্যা ১১১৭৷ এমনটাই জানিয়েছেন রাজ্যের স্বাস্থ্য অধিকর্তা ডা. বিশ্বরঞ্জন শতপথী৷ যদিও বেসরকারি মতে মৃতের সংখ্যা আরও বেশি৷ বরানগরের একটি নার্সিংহোমেও ডেঙ্গুতে মৃত্যুর খবর মিলেছে৷ মৃতের নাম প্রণতি ভট্টাচার্য (৫৯)৷ বাড়ি মহারাজা নন্দকুমার রোডে৷ স্বাস্থ্য দফতর অবশ্য এই মৃত্যুটিকে রাত পর্যন্ত ডেঙ্গুতে মৃতদের তালিকায় রাখেনি৷

অজানা জ্বরে মৃত্যুও বাড়ছে৷ হাওড়ায় দু’টি মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে৷ এদিকে ডেঙ্গু মোকাবিলায় সচেতনতার উপরই বেশি জোর দিতে বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ বৃহস্পতিবার বোলপুরে প্রশাসনিক বৈঠকে তিনি জানান, প্রশাসন তার মতো করে কাজ করছে৷ তবে, ডেঙ্গু-ম্যালেরিয়া রুখতে সচেতনতাই মূল হাতিয়ার৷ মুখ্যমন্ত্রী ইন্দ্রনীল সেনকে এই নিয়ে গান বাঁধতে বলেন৷ সেই গান বাউল-লোকশিল্পীরা ছড়িয়ে দেবেন গোটা রাজ্যে৷

গতকাল ডেঙ্গু মোকাবিলায় দু’টি বড় বৈঠক হয়৷ স্বাস্থ্যভবনে রাজ্যের প্রথম সারির সমস্ত বেসরকারি হাসপাতাল-নার্সিংহোম, ডায়াগনস্টিক সেন্টারের পরিচালকদের নিয়ে বৈঠক করেন স্বাস্থ্যকর্তারা৷ প্রতিটি সংস্থাকেই ডেঙ্গু নিয়ে দৈনিক ও সাপ্তাহিক রিপোর্ট পাঠানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে৷ কতজন আক্রান্ত হলেন, কত মৃত্যু, সব জানাতে হবে৷ ডেঙ্গু নির্ণয়ে এলাইজা ছাড়া অন্য কোনও পরীক্ষা গ্রাহ্য হবে না৷ তাও জানিয়ে দেওয়া হয়৷ অন্যদিকে নবান্নে মেট্রো রেল, ডাক, বিএসএফ, সিআরপি ও সেনাবাহিনীর প্রতিনিধিদের সঙ্গে ডেঙ্গু নিয়ে বৈঠক করেন স্বরাষ্ট্রসচিব মলয় দে৷ বিভিন্ন স্টেশন চত্বর ও রেল আবাসন চত্বরে নিকাশি নালা ও ব জলাশয়গুলিতে তারা মশার বংশবৃদ্ধি রুখতে বিভিন্ন ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলা হয়৷ মেট্রোর মুখ্য স্বাস্থ্য অধিকর্তা মিহির চৌধুরির বক্তব্য, মেট্রো নির্মাণস্থলে প্রতি দশ দিন অন্তর হেল্থ ইন্সপেক্টররা গিয়ে সেখানে মশা মারার তেল ছড়ান৷ এছাড়া নির্মাণে যুক্ত দু’টি সংস্থাকে মেট্রো চিঠি দিয়ে ব্যবস্থা নিতে বলেছে৷

এদিকে কলকাতা পুরসভার পক্ষ থেকে বৃহস্পতিবারও স্কুল-কলেজে অভিযান চালানো হয়৷ বেথুন স্কুল ও কলেজ চত্বরের আশপাশের চারটি জায়গায় বুধবার এডিস ইজিপ্টাই মশার লার্ভার সন্ধান মেলে৷ আইসক্রিমের পরিত্যক্ত পাত্র থেকে কলেজ সংলগ্ন ভ্যাট, সবেতেই মিলেছে লার্ভা৷ পুরসভার পক্ষ থেকে সেখানে কমপ্যাক্টর স্টেশন করার আশ্বাস দেওয়া হয়েছে৷ তবে স্কটিশ চার্চ কলেজ চত্বরে কোনও লার্ভা মেলেনি৷ এই পরিস্থিতিতে স্কুল প্রোজেক্ট বা প্র্যাকটিক্যালের ক্ষেত্রে সাফাই কর্মসূচিকে অন্তর্ভুক্ত করতে উদ্যোগী হয়েছে কলকাতা পুরসভা৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement