৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ইউরোয় ‘আইস এজ’ ঠেকাতে মরিয়া ফ্রান্স

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 3, 2016 3:27 pm|    Updated: July 3, 2016 4:15 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সাগনা যখন কথাগুলি বলছিলেন, তখন তাঁকে আইসল্যান্ডের ফুটবলার বলে ভুল করতেই পারতেন যে কেউ!

আর কয়েক ঘণ্টা পরই যে দলের বিরু‌দ্ধে খেলতে নামছেন, সেই বরফ দেশেরই প্রশংসায় ফ্রান্স ডিফেন্ডার! সাগনা জানালেন, “ওদের দেখে লেস্টার সিটির মতো মনে হচ্ছে৷ এবারের প্রিমিয়ারে যে সাফল্য লেস্টার পেয়েছে, ইউরোতে ঠিক তেমনই সাফল্য পাচ্ছে আইসল্যান্ড৷ যোগ্যতা নির্ণায়ক পর্ব থেকেই দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করেছে৷ না হলে হল্যান্ড, চেক প্রজাতন্ত্রের মতো দলকে হারিয়ে মূল পর্বে ওঠাটা সম্ভব হত না৷ দক্ষতা নিয়ে কোনও প্রশ্ন উঠবে না৷ এবং আমরা ওদের কোনওভাবেই ছোট করে দেখছি না৷”

দিদিয়ের দেশঁও পরিষ্কার জানিয়ে দিলেন, আইসল্যান্ড ফ্লুকে ইউরোর কোয়ার্টার ফাইনালে উঠে আসেনি৷ এর পিছনে র‌য়েছে পরিশ্রম৷ পরিকল্পনা৷ তাই বিপক্ষকে কোনওভাবেই হালকা করে নেওয়া যাবে না৷ ফ্রান্স কোচ বলছেন, “আমাদের নিজস্ব পরিকল্পনা তো আছেই৷ অনেকেই হয়তো বলবেন, লম্বা থ্রো বা কর্নারের উপর ভর করে ওরা এতদূর এসেছে৷ কিন্তু এভাবে এরকম বড় টুর্নামেন্টের কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠা যায় না৷ তার জন্য আলাদা পরিশ্রম দরকার৷ ওরা সেভাবেই এগিয়েছে৷ আমরা কোনও ভুল করতে রাজি নই৷”

এদিকে, আইসল্যান্ডের কোচ ল্যাগারব্যাক জানিয়েছেন, তাঁরা প্রতিটি ম্যাচে বিপক্ষের ভুল-ক্রুটিগুলো নিয়ে আলোচনা করেন৷ কিন্তু ফ্রান্সের কোনও দুর্বলতাই তাঁর চোখে পড়ছে না৷ আর সেই বিষয়টাই তাঁদের চাপে রাখছে৷ ল্যাগারব্যাকের বক্তব্য, “ওদের আক্রমণভাগ ভীষণই শক্তিশালী৷ গ্রিজম্যানের মতো স্ট্রাইকার রয়েছে৷ পরিবর্ত হিসাবে নামছে পায়েত৷ এই পরিস্থিতিতে কাকে ছেড়ে কাকে আটাকানোর কথা ভাবব! তার থেকে বরং নিজেদের পারফরম্যান্সের উপরই জোর দেওয়া ভাল৷ তবে ইংল্যান্ডের বিরু‌দ্ধে যে খেলাটা খেলেছিলাম, সেই খেলা মনে হয় না ফ্রান্স খেলতে দেবে৷”
দলের ফুটবলারদের উপর আস্থা রাখছেন ফ্রান্স অধিনায়ক লরিস৷ তবে সম্মান দিচ্ছেন বিপক্ষকেও৷ বলছেন, “মাথায় রাখবেন, আইসল্যান্ড মোটেই একজনের উপর নির্ভরশীল নয়৷ ওরা কিন্তু দল হিসাবে খেলে৷”

‘আন্ডারডগ’ আইসল্যান্ড যেমন ইংল্যান্ডকে আচমকা ধাক্কা দিয়ে খাদে ফেলে দিয়েছিল, তেমনই রবিবার রাতে তারা ঘরের ছেলেদেরও চাপে ফেলবে৷ এমনটাই ধারণা কিংবদন্তি দিয়েগো মারাদোনার৷ তিনি বলেন, ফ্রান্স নিঃসন্দেহে ইংল্যান্ডের চেয়ে বেশি শক্তিশালী দল৷ ঘরের মাঠে তারা জিততে মরিয়া৷ আইসল্যান্ড যদি রক্ষণাত্মক খেলে শুরুতেই গোল হজম করে না ফেলে তাহলেই খেলা জমে উঠবে৷ কারণ ফ্রান্সের ডিফেন্স ভাঙা খুব একটা অসম্ভব নয়৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement