৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

সরকারি হাসপাতালে ঘুষ দিতে না পারায় মৃত শিশু

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: August 11, 2016 4:19 pm|    Updated: August 11, 2016 4:19 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ১০ মাসের একরত্তি শিশু৷ গায়ে ধুম জ্বর৷ দ্রুত প্রয়োজন ছিল ইঞ্জেকশনটা৷ ডাক্তার প্রেসক্রাইবও করে দিয়েছিলেন৷ হাসপাতালও বিনামূল্যে দিচ্ছিল ওষুধ, সিরিঞ্জ৷ কিন্তু নার্স, ঝাড়ুদার থেকে হাসপাতাল কর্মী, সবার চাই ঘুষ৷ তাই সময়ে কৃষ্ণকে দেওয়া গেল না ইঞ্জেকশনটা৷ ফল৷ মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ল বাবা-মায়ের একমাত্র সন্তান৷

উত্তরপ্রদেশের বহরইচ সরকারি হাসপাতালের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ এনেছেন কৃষ্ণর বাবা-মা শিব ও সুমিতা দত্ত৷ বহরইচেই ঠিকে শ্রমিকের কাজ করেন শিব দত্ত৷ আচমকা অজানা জ্বরে আক্রান্ত হয় তাঁর ১০ মাসের দুধের শিশু কৃষ্ণ৷ ডাক্তারের কাছে নিয়ে যাওয়া হলে তৎক্ষনাৎ তাকে হাসপাতালে ভর্তি করার নির্দেশ দেন তিনি৷

অভিযোগ, হাসপাতালে ভর্তি করার সময়ই রোগীর তথ্য ঠিক মতো সরবরাহ করার জন্য প্রথম ঘুষটি চায় নার্স৷ এর পর হাসপাতালের দেওয়া বেডেই শিশুর জায়গা করে দিতে বাড়তি টাকা চায় কর্মরত ঝাড়ুদার৷ সর্বশেষ ঘুষপ্রার্থী হাসপাতালের সেই কর্মী, যার ঠিক সময়ে বিনামূল্যে ইঞ্জেকশনটি দেওয়ার কথা ছিল৷ সুমিতাদেবী অনেক কাকুতি-মিনতি করে তাকে পরে টাকা দেবে ইঞ্জেকশন দিতে রাজি করে নেন বটে, কিন্তু ততক্ষণে দেরী অনেকটাই হয়ে গিয়েছে৷ ছোট্ট কৃষ্ণের প্রাণ দেহত্যাগ করেছে৷

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অবশ্য দাবি, সময় মতোই ইঞ্জেকশন দেওয়া হয়েছিল শিশুটিকে৷ তবে, শিশুর বাবা-মায়ের অভিযোগ খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিয়েছেন তারা৷ হাসপাতালের আশ্বাসেই পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করেননি কৃষ্ণর বাবা৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement