BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

নিরাপত্তা পরিষদে স্থায়ী আসন হাতছাড়া ভারতের

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 29, 2016 3:26 pm|    Updated: July 29, 2016 3:40 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চলতি বছরেই জরুরি ভিত্তিতে রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের সংস্কারের পক্ষে সওয়াল করেছিল ভারত৷ এমনকী, তাতে স্থায়ী আসন পাওয়ার একটা স্বপ্নও ধীরে ধীরে দেখেছিলেন বেশ কয়েকজন কূটনীতিক৷ কিন্তু সাধারণ সভার শেষে সেই আশা কার্যত শেষ৷

এবারের আলোচনাতেও ভারতকে নিয়ে কোনও রফাসূত্র বেরোয়নি৷ তাই ঠিক হয়েছে, সংস্কার নিয়ে পরবর্তী অধিবেশনে আরও আলোচনা প্রয়োজন৷ চলতি অধিবেশনে ফলাফল না পাওয়াকে দুর্ভাগ্যজনক বলে আখ্যা দিয়েছে ভারত, জার্মানি, ব্রাজিল ও জাপানের সম্মিলিত ‘জি-ফোর’ গোষ্ঠী৷ উল্লেখ্য, নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী আসন পাওয়ার ক্ষেত্রে পরস্পরের দাবিকে এই চারটি দেশ সমর্থন করে৷ কিন্তু তাদের আর্থিক ও রাজনৈতিক প্রতিপক্ষরা হামেশাই সেই প্রচেষ্টায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে এসেছে৷

বৃহস্পতিবার এক যৌথ বিবৃতিতে চারটি দেশ বলেছে, “রাষ্ট্রসংঘের ৭০তম বর্ষপূর্তি এই গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুতে কোনও ঐকমত্যে পৌঁছতে পারল না৷ বিষয়টি খুবই দুর্ভাগ্যজনক৷” পরে জি-ফোর গোষ্ঠীর তরফে ব্রাজিলের রাষ্ট্রদূত আন্তোনিও দে আগুইয়ার প্যাট্রিওটা বলেন, “১৫ সদস্যের এই শক্তিশালী পরিষদের সংস্কার ও সম্প্রসারণ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ৷ একটা তুমুল প্রত্যাশা তৈরি হয়েছিল৷ অনেকেই মনে করেছিলেন যে, স্থির সিদ্ধান্তে পৌঁছনোর সময় হয়েছে৷ কিন্তু রাষ্ট্রসংঘ সেই প্রত্যাশাপূরণ করতে পারল না৷”

চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে রাষ্ট্রসংঘের জেনারেল অ্যাসেম্বলি বা সাধারণ সভার অধিবেশন শেষ হয়ে যাবে৷ ফলে এই অধিবেশনে আর ভারতের আশা পূর্ণ হবে না৷ সেপ্টেম্বরেই পরবর্তী অধিবেশন শুরু হবে৷ তারপর বিষয়টি নিয়ে সদস্য রাষ্ট্রগুলি পরবর্তী আলোচনা চালাবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে জেনারেল অ্যাসেম্বলি৷

নিরাপত্তা পরিষদের সদস্যসংখ্যা বৃদ্ধি ও ন্যায়সংগত প্রতিনিধিত্ব দেওয়ার দাবিতে জোরদার সওয়াল করে যাচ্ছে ভারত-সহ বেশ কয়েকটি দেশ৷ জি-ফোর গোষ্ঠীর তরফে বলা হয়েছে, নিরাপত্তা পরিষদের সংস্কারই এই মুহূর্তে সবচেয়ে বড় ইস্যু৷ এবং তাকে সার্থক করতে হলে সদস্য রাষ্ট্রগুলিকে লিখিত নথি-সহ আলোচনায় অংশগ্রহণ করতে হবে৷ মূল পাঁচটি বিষয়ের মধ্যে অন্তত দু’টি ক্ষেত্রে সদস্যদের অবস্থান, প্রস্তাব জানা গিয়েছে৷ বাকি তিনটি ক্ষেত্রে বিশেষ আলোচনা হয়নি বলেও ক্ষোভ প্রকাশ করেছে জি-ফোর৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement