BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘সিন্ধু’ কার? জোর টক্কর অন্ধ্র-তেলেঙ্গানার মধ্যে

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: August 21, 2016 8:01 pm|    Updated: August 21, 2016 8:56 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রিওর লড়াই শেষ৷ সাফল্য চূড়ান্ত না হলেও ১৩০ কোটির দেশে চলতি বছরে অন্তত সর্বোচ্চ৷ আপ্লুত কাশ্মীর থেকে কন্যাকুমারী৷ শুভেচ্ছা বন্যায় ভেসে গিয়েছেন পুসরলা ভেঙ্কট সিন্ধু৷

কিন্তু অন্ধ্রপ্রদেশ না তেলেঙ্গানা, কোন রাজ্যের মাটির ফসল এই রুপোলি শস্য? তা নিয়ে জোর টক্কর দুই রাজ্যের রাজনৈতিক মহলে৷ হায়দরাবাদি শাটলারকে নিজের রাজ্যের মেয়ে হিসেবে প্রদর্শন করার জন্য চলছে ঢালাও পুরস্কার ও সম্মানের বন্যা৷

একদিকে রয়েছেন অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইডু৷ সাংবাদিক সম্মেলন করে সিন্ধুকে ৩ কোটি টাকা পুরস্কার ও উচ্চপদস্থ সরকারি চাকরি দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন তিনি৷ অন্যদিকে, তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাও৷ তাঁর অবদান পাঁচ কোটি টাকা, ১,০০০ বর্গ গজ জমি এবং সরকারি চাকরি৷ দুই পক্ষই রুপোজয়ী অ্যাথলিটকে নিজের রাজ্যের মেয়ে বলে দাবি করছেন৷

টানাপোড়েন থেকে রেহাই পাননি কোচ পুল্লেলা গোপীচাঁদও৷ তাঁর অ্যাকাডেমিকেও এক কোটি টাকা দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন চন্দ্রশেখর রাও৷ গোপীচাঁদের জন্ম অন্ধ্রপ্রদেশে৷ বড় হয়ে ওঠাও সেখানেই৷ কিন্তু, ২০০৩ সালে অভিন্ন অন্ধ্র থেকে পাওয়া যে জমির উপর তিনি নিজের ব্যাডমিন্টন অ্যাকাডেমি তৈরি করেছিলেন, তা বর্তমানে তেলেঙ্গানায় পড়ে৷

দীর্ঘ সময়ের আন্দোলনের পর অন্ধ্রপ্রদেশ থেকে আলাদা হয়েছে তেলেঙ্গানা৷ তবে বিভক্ত হওয়ার পরও দুই রাজ্যের রেষারেষি কমেনি৷ সাধারণ মানুষ নিজেদের মতো স্থানান্তরিত হয়ে সমস্যা কিছুটা হলেও মিটিয়ে ফেলেছেন৷ কিন্তু টানাপোড়েন চলছে তারকাদের নিয়েই৷ একই টানাপোড়েন চলছে সানিয়া, সাইনাদের নিয়েও৷

সোমবার হায়দরাবাদে ফিরছেন সিন্ধু৷ তাঁর জন্য বিশাল সংবর্ধনার আয়োজন করছে তেলেঙ্গানা সরকার৷ অন্ধ্র সরকার এখনও সিন্ধুকে সংবর্ধনা দেওয়ার কথা ঘোষণা করেনি৷  ফলে এ বিষয়ে এগিয়ে আছে তেলেঙ্গানাই৷ অবশ্য দুই রাজ্যে সম্মানপ্রদর্শনের টক্কর ভারতীয় অ্যাথলিটের ক্ষেত্রে এখনও পর্যন্ত লাভজনকই হচ্ছে৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement