৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

দেবকুলের শক্তিতে ‘মহামায়া’ সৃষ্টির কাহিনী বলবে সেলিমপুর পল্লি

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: August 29, 2016 9:11 pm|    Updated: August 29, 2016 11:52 pm

An Images

পুজো প্রায় এসেই গেল৷ পাড়ায় পাড়ায় পুজোর বাদ্যি বেজে গিয়েছে৷ সেরা পুজোর লড়াইয়ে এ বলে আমায় দেখ তো ও বলে আমায়৷ এমনই কিছু বাছাই করা সেরা পুজোর প্রস্তুতির সুলুকসন্ধান নিয়ে হাজির Sangbadpratidin.in৷ আজ তৃতীয় প্রতিবেদনে পড়ুন দক্ষিণের সেলিমপুর পল্লির পুজো প্রস্তুতি৷

শুভময় মণ্ডল: দুষ্টের দমন করতেই আবির্ভাব হয়েছিল দেবী দুর্গার৷ কিন্তু সেই দেবীর মহামায়া হয়ে ওঠা এক অনন্য মহাজাগতিক গাথা৷ তিলে তিলে তিনি হয়ে উঠেছেন দশপ্রহরণধারিনী৷ সেই দশভূজার নির্মাণে সহযোগিতা রয়েছে আপামর দেবতাকূলের৷ দেবাদিদেব মহাদেব থেকে শুরু করে প্রজাপিতা ব্রহ্মা, বিষ্ণু প্রত্যেকেই নিজেদের শক্তি দিয়ে গড়ে তুলেছেন দেবী দুর্গাকে৷ দেবতাদের দ্বারা সেই মহাজাগতিক নির্মাণশৈলিকেই এবার জাগতিক মঞ্চে ফুটিয়ে তোলা হচ্ছে দক্ষিণ কলকাতার সেলিমপুর পল্লির পুজোপ্রাঙ্গণে৷ আর সমগ্র পরিকল্পনার নেপথ্যে রয়েছেন থিমশিল্পী ত্রয়ী পিয়ালি সাধুখাঁ, সৌমিক চক্রবর্তী ও প্রদীপ পাত্র৷ তাঁদের একান্ত প্রচেষ্টায় এবার সেলিমপুর পল্লির পুজোর থিম ‘নির্মিত’৷

20160829_174636

গতবছর থিমশিল্পী সুশান্ত পালের শৈল্পিক ছোঁয়ায় সেলিমপুরের ‘নস্টালজিয়া’য় গা ভাসিয়েছিল পুজোপ্রেমী কলকাতাবাসী৷ এবার আরও এক বিশিষ্ট শিল্পীত্রয় পিয়ালি সাধুখাঁ, সৌমিক চক্রবর্তী ও প্রদীপ পাত্র সেলিমপুরের পুজো পাড়ায়৷ নিসন্দেহে এক অন্যরকম থিম হতে চলেছে সেলিমপুরে৷

20160829_174831

এবার আসা যাক থিমের কথায়৷ দশপ্রহরণধারিনীর নির্মাণকে ফুটিয়ে তোলার জন্য গোটা মণ্ডপে বসানো হচ্ছে বিরাট বড় দেবতাদের মূর্তি৷ মণ্ডপের চারধারে মহাদেব, ব্রহ্মা, বিষ্ণু-সহ দশ দেবতার মূর্তি থাকবে৷ প্রত্যেকটি মূর্তিই ফাইবারের তৈরি৷ দেবীপ্রতিমা অবশ্য এখানে মৃন্ময়ী৷ মণ্ডপসজ্জার পাশাপাশি প্রতিমাও গড়ছেন থিমশিল্পীরা৷ কাঠের কাজ দিয়ে সাজানো হচ্ছে গোটা মণ্ডপ৷ তার মধ্যে বাহারি আলোকসজ্জা তো রয়েইছে৷ এবছর ৮৪ বছরে পা দিয়েছে সেলিমপুরের পুজো৷ গতবছরের সাফল্যকে পাথেয় করেই এবছর নতুন কিছু দর্শনার্থীদের উপহার দেওয়ার কথা ভেবেছেন উদ্যোক্তারা৷ গত বছর ‘সংবাদ প্রতিদিন পুজো পারফেক্ট’ ছাড়াও সেলিমপুরের মুকুটে বহু নামী-দামি পুরস্কারের পালক জুটেছিল৷ এবার কি হয় এখন তাই দেখার অপেক্ষা৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement