১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

পাথর ছুড়লে জঙ্গি তকমা, ২০ বছরের জেল!

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 29, 2016 5:45 pm|    Updated: July 29, 2016 5:45 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নজির গড়ে পাথর ছুড়ে নাশকতা সৃষ্টিকারীদেরও এবার জঙ্গি ঘোষণা করার সিদ্ধান্ত নিল ইজরায়েল সরকার৷ এই কাজ করে ধরা পড়লে সাজা হতে পারে ২০ বছর৷

যে কোনও দেশেই প্রতিবাদ-প্রতিরোধে বিক্ষোভকারীরা ইট-পাথর ছোড়ে৷ সাধারণ মানুষ তো বটেই, পুলিশ বা সেনাও এতে জখম হয়৷ এবার এ পরিস্থিতিতে রাশ টানতে কঠোর হল ইজরায়েলি প্রশাসন৷ ইজরায়েলি পুলিশের প্রতি প্যালেস্তানীয় যুবকদের পাথর ছোড়া নিত্য নৈমিত্তিক ঘটনা৷ তাতে বাচ্চা-সহ সাধারণ মানুষেরও মৃত্যু হয়েছে৷ প্রশাসন কঠোর হাতে বিক্ষোভকারীদের দমন করতে চাইলে মানবাধিকার সংগঠনগুলির পাল্টা সমালোচনার মুখে পড়েছে৷ এবার তাই ইট-পাথর ছোড়াকেই নিষিদ্ধ করার মুখে সে দেশের প্রশাসন৷ ইজরায়েলের আইনমন্ত্রী আয়েলত শাখেদ জানিয়েছেন, “জঙ্গিদের প্রতি সহনশীলতার দিন আজ থেকে ফুরোল৷ একমাত্র কড়া শাস্তিই এই প্রথা বন্ধ করতে পারে৷” নতুন আইন মোতাবেক ইচ্ছাকৃতভাবে কেউ পাথর ছুড়লে, তা জঙ্গি কার্যকলাপ হিসেবেই গণ্য হবে৷ এবং তার শাস্তিতে ২০ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড হতে পারে৷ পাথর কী উদ্দেশ্য ছোড়া হয়েছিল, তা জানা না গেলে শাস্তির মেয়াদ কমে হতে পারে ১০ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড৷

যদিও এ আইন নিয়ে নানা সমালোচনা চলছে, তবে বিক্ষোভ প্রতিরোধ ঠেকাতে একরকম নজিরই গড়ল ইজরায়েল৷ ভারতেও কাশ্মীর উপত্যকায় প্রতিদিনই বিক্ষোভকারীদের ছোড়া ইটে আহত হচ্ছেন সেনা জওয়ানরা৷ প্রশাসন পেলেট গান ব্যবহার করার অনুমতি দিয়েও, সাধারণ মানুষের আহত হওয়ার জেরে তা ফিরিয়ে নিতে বাধ্য হয়েছে৷ কিন্তু শান্ত হয়নি বিক্ষোভকারীরা৷ সেনার সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের খণ্ডযুদ্ধ প্রায় প্রতিদিনের ছবি হয়ে উঠেছে৷ এক্ষেত্রে ইজরায়েলি প্রশাসন যে দৃঢ়তা দেখাতে পেরেছে তা ভারত দেখাতে পারলে সমস্যার সমাধান হত বলেই মনে করছে বিশেষজ্ঞমহল৷ যদিও ইজরায়েল হাতে কলমে করে দেখাতে পারলেও, ভারতে সে সম্ভাবনা বহু দূর বলেই আক্ষেপ বিভিন্ন মহলে৷

 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement