BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বাস দাঁড় করিয়ে কেস দেওয়ায় যাত্রীর হাতে আক্রান্ত পুলিশ

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 14, 2016 11:02 am|    Updated: July 14, 2016 1:05 pm

An Images

নিজস্ব সংবাদদাতা, হাওড়া: এমনিতেই বাস ছিল লোকভর্তি৷ তার উপর যেখানে সেখানে বাস দাঁড় করিয়ে যাত্রী তোলা হচ্ছিল৷ তাতেই তৈরি হচ্ছিল যানজট৷ বাসের মাথায় বসে ছিল প্রায় ২০ জন৷ এভাবেই ন্যাশনাল হাইওয়ে দিয়ে ছুটছিল ধুলাগড়-উল্টোডাঙাগামী বাস৷ অবস্থা দেখে বুধবার সকালে বালি হল্টের মাইতিপাড়া ট্রাফিক গার্ডের সামনে বেসরকারি বাসটিকে দাঁড় করান কর্তব্যরত ট্রাফিক পুলিশ প্রবীর হোড়৷ কেস দেন কন্ডাক্টরকে ডেকে৷ কিন্তু আঁচ করতে পারেননি এই কেস দেওয়াই যেন অপরাধ হয়ে দাঁড়াবে তাঁর৷

বাস দাঁড় করানোয় ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন বাসের যাত্রীরা৷ পুলিশের সঙ্গে শুরু হল বচসা৷ পরে ধস্তাধস্তিও৷ তারই মধ্যে এক যাত্রী বাস থেকে নেমে তাঁর সঙ্গে থাকা হাতুড়ি দিয়ে সজোরে মেরে বসেন প্রবীরবাবুর মাথায়৷ ঘটনায় হতভম্ব হয়ে যান বাস যাত্রী, বাসের চালক-কনডাক্টর এবং অন্যান্য পুলিশকর্মীরাও৷ রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে লুটিয়ে পড়েন আক্রান্ত এএসআই প্রবীর হোড়৷ তাঁকে নিয়ে যাওয়া হল বালিরই একটি বেসরকারি হাসপাতালে৷ অভিযুক্ত ওই যাত্রীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ৷ ধৃতের নাম তুষার দেবনাথ৷ তিনি পেশায় রাজমিস্ত্রি৷

বাসের মাথায় যাত্রী নিয়ে যাওয়া ডানকুনি, ধুলাগড় থেকে আসা বেসরকারি বাসের এভাবে আসা নিত্য ঘটনা৷ পুলিশ বার বার বলাতেও এই রুটের ছবি বদলায়নি৷ প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে যাতায়াতই এখানকার যাত্রীদের রোজনামচা৷ তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে গিয়েই আক্রান্ত হন প্রবীরবাবু৷ মাথায় চারটি সেলাই পড়ে তাঁর৷ ঘটনার জেরে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ায় এলাকায়৷ পরিস্থিতি সামাল দিতে পুলিশকে লাঠিচার্জ করতে হয়৷

যেখানে সেখানে বাস দাঁড় করিয়ে যাত্রী তোলা নিষিদ্ধ৷ বাসের ছাদেও যাত্রী বসানো নিষিদ্ধ৷ কিন্তু জেলায় জেলায় দিনের পর দিন তাই হয়ে আসছে৷ ন্যাশনাল হাইওয়ে দিয়েও এভাবে রোজ ছোটে একের পর এক বাস৷ বুধবারের ঘটনা ফের চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিল হাইওয়েতে বেসরকারি বাসের দৌরাত্ম্য৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement