২৯ ভাদ্র  ১৪২৬  সোমবার ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তথ্য-প্রযুক্তি সংস্থার দুনিয়ায় নক্ষত্রপতন! আচমকাই ইনফোসিসের সঙ্গে সব সম্পর্ক ছিন্ন করলেন সংস্থার সিইও ও এমডি বিশাল সিক্কা। পদত্যাগের জন্য তিনি দায়ী করেছেন ইনফোসিসের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রাক্তন চেয়ারম্যান এনআর নারায়ণ মূর্তিকে। তবে সংস্থা সূত্রে খবর, কর্ণধারের পদ ছাড়লেও একজিকিউটিভ ভাইস চেয়ারম্যানের পদ ছাড়ছেন না তিনি। আপাতত তাঁর জায়গায় দায়িত্ব সামলাবেন চিফ অপারেটিং অফিসার প্রবীণ রাও।

সম্প্রতি সিক্কাকে নিশানা করে মূর্তির একটি চিঠি প্রকাশ্যে ফাঁস হয়ে যায়। ওই চিঠিতে সিক্কার যোগ্যতা নিয়ে মূর্তি সন্দেহ প্রকাশ করেন। বেঙ্গালুরু-ভিত্তিক সংস্থা ইনফোসিসের বোর্ড কর্তাদের একটি অংশের মতে, তাঁদের সমর্থন সত্ত্বেও নারায়ণ মূর্তির কিছু ‘আপত্তিকর’ ও চিঠির সারাংশ সিক্কার ভাবমূর্তি নষ্ট করছিল। তাই মানে মানে সংস্থা ছাড়লেন তিনি। তবে মূর্তি যে এই প্রথম সিক্কার বিরুদ্ধে তোপ দেগেছেন এমনটা নয়। এর আগে সিক্কার বিরুদ্ধে কোনও আলোচনা ছাড়াই সংস্থা চালানোর অভিযোগ এনেছিলেন তিনি।


সংস্থার অন্দরের একটি ই-মেল সংবাদমাধ্যমের কাছে ফাঁস হয়ে যায়। সেই ই-মেলে মূর্তি দাবি করেছেন, শেষ তিন স্বাধীন ডিরেক্টরের তুলনায় সিক্কা একজন যোগ্য চিফ টেকনোলজি অফিসার(CTO) হলেও একজন দক্ষ চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার বা CEO নন। ইনফোসিসের তরফে মিডিয়াকে জানানো হয়েছে, মূর্তির ওই চিঠি বিকৃত করে প্রকাশ্যে আনা হয়েছে। তাঁর সঙ্গে বোর্ড মেম্বারের আলোচনার খানিকটা অংশই সংবাদমাধ্যম ফাঁস করেছে, পুরোটা নয়।

সূত্রের খবর, গত শুক্রবার সংস্থার শীর্ষ বিনিয়োগকারীদের সঙ্গে একটি কনফারেন্স কলে সিক্কা নিজের ক্ষোভ উগরে দেন। বলেন, ”আমার বিরুদ্ধে একের পর এক মিথ্যা অভিযোগ আনা হচ্ছে। সম্পূর্ণ ভুয়ো ওই অভিযোগ শুনতে শুনতে আমি ক্লান্ত। প্রতিদিন ঘুম থেকে উঠেই এক অভিযোগ শুনে শুনে আমি বিরক্ত।’ যদিও মূর্তি প্রকাশ্যে কখনই সিক্কার বিরুদ্ধে কোনও অভিযোগ তোলেননি। বরং সম্প্রতি একটি ই-মেলে সিক্কার সঙ্গে সময় কাটাতে তাঁর ভালই লাগে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং