BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

খামখেয়ালি আবহাওয়ায় ভোগান্তি রাজ্যে

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 19, 2016 4:10 pm|    Updated: July 19, 2016 4:10 pm

An Images

স্টাফ রিপোর্টার: আবহাওয়ার খামখেয়ালিপনায় ভুগছে রাজ্যবাসী৷ শ্রাবণে বৃষ্টি নিত্যনৈমিত্তিক ঘটনা৷ জ্বর বা পেট খারাপের মতো অসুখ বর্ষাকালে হয়৷ চলতি বছরে অসুখের দাপট অনেক বেশি লক্ষ করছেন চিকিৎসকরা৷ প্রায় প্রত্যেক বাড়িতে জ্বর৷ মাথাব্যথা৷ বমি বমি ভাব৷ পেটের অসুখ৷ তাপমাত্রার ওঠানামা, আপেক্ষিক আর্দ্রতা ও পানীয় জলের সমস্যার ফলে এই ভোগান্তি বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা৷ মঙ্গলবার আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, বুধবার থেকে ফের নিম্নচাপের আশঙ্কা রয়েছে৷ রয়েছে বৃষ্টির সম্ভাবনাও৷

মঙ্গলবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৩.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস৷ স্বাভাবিকের তুলনায় যা ২ ডিগ্রি বেশি৷ সর্বনিম্ন্ তাপমাত্রা ২৬.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস৷ কখনও রোদ৷ কখনও ছায়া৷ বাতাসে জলীয় বাষ্প, ফলে ঘাম হচ্ছেই৷ অস্বস্তি বাড়ছে মানুষের৷ বাতানুকূল গাড়ি, শপিং মল বা অফিস থেকে বাইরে বেরনো এবং ফের ঢোকার ফলে বাড়ছে শারীরিক অসুস্থতা৷ মাথাব্যথা, গা ম্যাজম্যাজ করা ও ঝিমুনির মতো উপসর্গ দেখা দিচ্ছে৷ যা সহ্যসীমার বাইরে চলে গেলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে৷ পরামর্শ ছাড়া ওষুধ খাওয়া চলবে না৷ পানীয় জল ফুটিয়ে খাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছে ডাক্তাররা৷ ভোরের দিকে হালকা ঠান্ডা৷ মাথার কাছে পাখা না চালানোই ভাল, রাতে উষ্ণ গরম জলে স্নান করুন, বলছেন ডাক্তাররা৷ দিনে গরম, অন্যদিকে মহানগরের বাতাসে জলীয়বাষ্প মেশায় জনজীবন দুর্বিষহ৷ বর্ষাকালে চামড়ায় নানা সমস্যা দেখা দেয়৷ পেটখারাপ-সহ নানা রোগের উপসর্গ হানা দেয় রাজ্যে৷

চলতি বছরে স্বাভাবিকের তুলনায় কম বৃষ্টি হওয়ার আশঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন আবহাওয়াবিদরা৷ কিন্তু এখনও যা বৃষ্টি হয়েছে তাতে চিন্তার কিছু নেই৷ চিকিৎসকদের পরামর্শ, প্রচুর জল খেতে হবে৷ সারাদিনে দুই থেকে তিনবার স্নান করতে হবে৷ বেশি বৃষ্টি হলে ফসলের ক্ষতির আশঙ্কা আছে৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement