৭ ফাল্গুন  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হেভিওয়েট আইএস জঙ্গি গ্রেপ্তার। শুধু নামেই হেভিওয়েট নন, আক্ষরিক অর্থে হেভিওয়েট ‘মুফতি’ শিয়া নিমা ওরফে আবু আবদুল বারির। ওজন ২৪৫ কেজি। গ্রেপ্তারির পর রীতিমতো ট্রাক এনে আবদুলকে তুলে নিয়ে যায় ইরাকি সেনা। স্বভাবতই এই ঘটনা সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। আর সেই ছবি নিয়ে ট্রোল, মিম বানাতে ব্যস্ত নেটিজেনরা।

কে এই মুফতি’ শিয়া নিমা ওরফে আবু আবদুল বারির? ইরাকের সোয়াট সূত্রে খবর, আইএসের মাথা আবু-বকর-আল বাগদাদি খতম হয়েছে মাস ছয়েক হল। এরপর থেকে এই সন্ত্রাসবাদী গোষ্ঠীর সর্বেসর্বা হয়ে উঠেছে এই আবু আবদুল বারির। গোটা বিশ্বে আইএসের বার্তা পৌঁছে দিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছিল শিয়া নিমা ওরফে আবু আবদুল বারির। এমনকী সিরিয়ায় আইএস ঘাঁটি শক্ত করতেও তার অবদান অনস্বীকার্য। ২০১৩ সাল থেকে আইএসের ধর্ম প্রচারক হিসেবে তার আত্মপ্রকাশ। এরপর জোর করে ধর্মান্তরিত করা থেকে বন্দিদের নৃশংসভাবে হত্যা করা, বিস্ফোরণ থেকে গণহত্যা, একের পর এক ভয়ানক ঘটনায় নাম জড়িয়েছে তার এমনকী আবু আবদুল বারির বিরুদ্ধে যৌনদাসী রাখারও অভিযোগ উঠেছে। বিভিন্ন সময় ডেরা বদলাত এই আবদুল। ফলে সিরিয়া-সহ একাধিক দেশের আইএসের বহু গোপন ডেরার খোঁজ সে দিতে পারবে বলে মনে করছে ইরাকি সোয়াট বাহিনী। দীর্ঘদিন ধরে মোস্ট ওয়ান্টেডের তালিকায় ছিল সে। শেষ পর্যন্ত তাকে গ্রেপ্তার করল ইরাক ও কুর্দ বাহিনী।

[আরও পড়ুন : মৃত্যুদণ্ডের রায়ের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ প্রাক্তন পাক প্রেসিডেন্ট মুশারফ]

সূত্রের খবর, রাতে ইরাকের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান শুরু করে যৌথবাহিনী। তারপরই গোপন ডেরা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। কিন্তু তারপরই বিপত্তি। ২৪৫ কেজি ওজনের বিশাল বপুর এই সন্ত্রাসবাদীকে কীভাবে নিয়ে যাওয়া হবে তা নিয়ে শুরু হয় টানাপোড়েন। শেষমেশ একটি বিশাল ট্রাকে চাপিয়ে সেনা ক্যাম্পে নিয়ে যাওয়া হয় তাকে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং