২০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ৭ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বিচ্ছিন্নতাবাদীদের ডেরা থেকে রেহাই পেল ক্যামেরুনে অপহৃত ৭৯ পড়ুয়া

Published by: Tanujit Das |    Posted: November 7, 2018 2:04 pm|    Updated: November 7, 2018 3:28 pm

79 abducted students freed

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিচ্ছিন্নতাবাদীদের ডেরা থেকে মুক্তি পেল ক্যামেরুনে অপহৃত ৭৯ জন পড়ুয়া৷ তবে কোন শর্তে ওই পড়ুয়াদের মুক্তি দিয়েছে বিচ্ছিন্নতাবাদীরা, সেই বিষয়ে এখনও কোনও স্পষ্ট তথ্য দিতে পারেনি ক্যামেরুন প্রশাসন৷ কিন্তু পড়ুয়াদের রেহাই পাওয়ার বিষয়টি সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন সেদেশের যোগাযোগ মন্ত্রী ইসা বাকারি তেছিরোমা৷

[চিনের কাছে ভিক্ষা চাইছেন ইমরান! স্বীকার করল পাকিস্তানের সরকারি টিভি চ্যানেল]

 

গত রবিবার রাতের অন্ধকারে বোর্ডিং স্কুল থেকে অপহরণ করা হয় ৭৯ পড়ুয়া ও স্কুলের অধ্যক্ষকে৷ ঘটনাটি ঘটে পশ্চিম ক্যামেরুনের বামেন্দা শহরের প্রেসবাইটেরিয়ান বোর্ডিং স্কুলে৷ কেউ ঘটনার দায় স্বীকার না করলেও, অনুমান করা হয় ঘটনার সঙ্গে যুক্ত রয়েছে ক্যামেরুনের বিচ্ছিন্নতাবাদীরা৷ অপহৃতদের খোঁজে তল্লাশিতে নামে সেনা৷ সেই অনুমানই সঠিক প্রমাণিত হয়৷ ঘটনার পরের দিন থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও ছড়িয়ে পরে৷ যেখানে ছ’জন পড়ুয়াকে বলতে শোনা যায় যে, তাদের অপহরণ করা হয়েছে এবং তাদের কোথায় রাখা হয়েছে সেটা তারা জানেন না৷ ওই ভিডিও-তে বিচ্ছিন্নতাবাদীদেরও হুঁশিয়ারি দিতে শোনা যায়৷ তারা জানান যে, তাদের দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত ওই পড়ুয়াদের রেহাই দেওয়া হবে না৷ এই ভিডিও ক্যামেরুন প্রশাসনের উপরে আরও চাপ বাড়ায়৷ কিন্তু অবশেষে বিচ্ছিন্নতাবাদীরাই ওই পড়ুয়াদের রেহাই দিল৷ তবে এর পিছনে কী কারণ রয়েছে তা এখনও স্পষ্ট নয়৷

[সামনে কুস্তি, পিছনে দোস্তি! ট্রাম্প পরিবারকে ১৮টি ট্রেডমার্ক দিল চিন]

ক্যামেরুনের বামেন্দা শহর, যেখানে এই অপহরণের ঘটনাটি ঘটেছে, সেই শহরের মূল ভাষাই হল ইংরেজি৷ ফরাসিভাষী ক্যামেরুনের নাগরিকদের বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন ধরেই ক্ষোভ জমছে ইংরেজিভাষীদের মধ্যে৷ স্বাধীনতার দাবিতে দীর্ঘদিন ধরে সেখানে আন্দোলন চালাচ্ছে বিচ্ছিন্নতাবাদীরা৷ সরকার ও সেনার সঙ্গে সংঘর্ষে যুক্ত করেছে তারা৷ এমনকী, ক্যামেরুনের প্রেসিডেন্ট পল বিয়ারেরও বিরোধিতা করছে তারা৷ কারণ, তিনিও ফরাসি ভাষী এবং তাঁর বিরুদ্ধে আন্দোলনকারীদের উপর অত্যাচারের অভিযোগ রয়েছে৷ বিচ্ছিন্নতাবাদীদের তাণ্ডবে দীর্ঘদিন ধরেই বন্ধ রয়েছে শহরের বেশিরভাগ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে