১ ভাদ্র  ১৪২৬  সোমবার ১৯ আগস্ট ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

১ ভাদ্র  ১৪২৬  সোমবার ১৯ আগস্ট ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চিড়িয়াখানার চতুর্দিকে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে এনক্লোজার থেকে বেরিয়ে আসা শিম্পাঞ্জি৷ রাগের চোটে নিরাপত্তারক্ষীকে মারধরও করে সে৷ এরপর আবার মেজাজটা পালটে যাওয়ায় আপনমনে চিড়িয়াখানার এ ছাদ থেকে ও ছাদে দিব্যি ঘুরে ঘুরে অবসর যাপন করছে শিম্পাঞ্জি৷ সম্প্রতি চিনের হেফেই চিড়িয়াখানায় শিম্পাঞ্জির কাণ্ডকারখানা দেখে আতঙ্কে কাঁটা পর্যটকরা৷

[ আরও পড়ুন: টানা বৃষ্টিতে বিপর্যয়, বন্যা বিধ্বস্ত নেপালে ক্রমেই বাড়ছে মৃতের সংখ্যা]

ভিড়ে ঠাসা চিনের হেফেই চিড়িয়াখানা৷ পর্যটকরা বেশ ধীরেসুস্থে ভিতরে ঢুকছেন৷ আশা করেছেন প্রত্যেকেই, ওই চিড়িয়াখানায় থাকা ইয়াং ইয়াং নামে শিম্পাঞ্জির লম্ফঝম্প দেখে আনন্দ করবেন৷ কিন্তু হঠাৎই বদলে গেল পরিস্থিতি৷ দেখা গেল, প্রবেশপথেই দাঁড়িয়ে রয়েছে ইয়াং ইয়াং৷ তবে পর্যটকদের অভ্যর্থনা জানাতে নয় অবশ্যই৷ কারণ, খাঁচা ছেড়ে বেরিয়ে রীতিমতো অগ্নিশর্মা হয়ে গিয়েছে সে৷

চিড়িয়াখানার সামনে দিয়ে বারবার ছোটাছুটি করছে৷ আর অবাক চোখে যেন কাউকে খুঁজছে ওই শিম্পাঞ্জি৷ মুহূর্তের মধ্যেই মুখ ঘুরিয়ে চিড়িয়াখানার নিরাপত্তারক্ষীকে দেখতে পায় সে৷ সঙ্গে সঙ্গেই মারধর করতে শুরু করে তাঁকে৷ চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষের দাবি, এনক্লোজারের বন্দি থাকাকালীনই নিরাপত্তারক্ষীকে দেখে বিরক্ত হত শিম্পাঞ্জি৷ তাই হাতের সামনে পাওয়ার পর যে ইয়াং ইয়াং ঠিক এভাবেই মারধর করতে পারত নিরাপত্তারক্ষীকে, তা নাকি আগে থেকে জানাই ছিল৷ মারের চোটে পড়ে গিয়ে সামান্য চোটও পান ওই নিরাপত্তারক্ষী৷ এরপর সোজা চিড়িয়াখানা চত্বরের ছাদে লাফিয়ে ওঠে শিম্পাঞ্জি৷ এ ছাদ থেকে ও ছাদে লাফিয়ে দিব্যি অন্যরকম একটা দিন কাটায় সে৷

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে দৌড়ে আসেন বনকর্মীরা৷ বিভিন্নভাবে শিম্পাঞ্জিকে খাঁচাবন্দি করার চেষ্টা করেন তাঁরা৷ কিন্তু লাভ হয়নি৷ তাই বাধ্য হয়ে ঘুমপাড়ানি গুলি ছোঁড়া হয়৷ গুলিবিদ্ধ হয়ে নিস্তেজ হয়ে পড়ে ইয়াং ইয়াং৷ তখন তাকে আবার এনক্লোজারে ঢুকিয়ে দেওয়া হয়৷ বোঝা যায়, ইয়াং ইয়াংয়ের চক্ষুশূল আসলে তার পাহারায় থাকা ওই নিরাপত্তারক্ষী৷

[ আরও পড়ুন: মিলেছে ইতিবাচক ইঙ্গিত, কর্তারপুর করিডর নিয়ে ভারতকে সহযোগিতার বার্তা পাকিস্তানের]

চিড়িয়াখানা সূত্রে খবর, বছর ১২-র ওই শিম্পাঞ্জিটি এনক্লোজারে থাকাকালীনই তার চাঞ্ল্য টের পান সকলেই৷ তাই বেরিয়ে আসার পর যে সে কী করতে পারে, তার আঁচ পেতে বিশেষ অসুবিধা হয়নি৷ তবে শিম্পাঞ্জির লম্ফঝম্পে আতঙ্কে কাঁটা হয়ে গিয়েছিলেন পর্যটকরা৷ এনক্লোজারে বন্দি শিম্পাঞ্জিকে দেখতে এসে যে এমন কাণ্ড ঘটবে, তা যেন স্বপ্নেও কল্পনা করেননি তাঁরা৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং