৯ ফাল্গুন  ১৪২৬  শনিবার ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চলতি মাসেই ভারত সফরে আসছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আরও মজবুত করতে একাধিক বড় পদক্ষেপও করতে চলছে নয়াদিল্লি ও ওয়াশিংটন। এহেন পরিস্থিতিতে তাল কাটলেন মার্কিন সেনেটররা। ফের কাশ্মীর নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন তাঁরা।     

জানা গিয়েছে, মার্কিন বিদেশ সচিব মাইক পম্পেওকে চিঠি দিয়ে কাশ্মীর নিয়ে খোলাখুলি নিজেদের উদ্বেগের কথা জানিয়েছেন দুই ডেমোক্রেট ও দুই রিপাবলিকান সেনেটর। ওই চিঠিতে বলা হয়েছে, “এখনও পর্যন্ত কাশ্মীর উপত্যকার অধিকাংশ জায়গায় ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ রেখেছে ভারত সরকার। পৃথিবীর কোনও গণতন্ত্রে এতদিন পর্যন্ত এই পরিষেবা বন্ধ রাখার নজির নেই। এতে ৭০ লক্ষ মানুষের জীবনে নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। এর ফলে বিঘ্নিত হচ্ছে চিকিৎসা পরিবেষা, মার খাচ্ছে ব্যবসা বাণিজ্য, ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে শিক্ষাব্যবস্থাও।”  

উপত্যকায় ৩৭০ ধারা রদের পর দীর্ঘদিন ধরে কাশ্মীরকে বিচ্ছিন্ন করে রাখার ফলাফল ভয়ানক হতে পারে বলেও সতর্ক করেছেন মার্কিন সেনেটররা। তাঁরা বলেন, “নিরাপত্তার দোহাই দিয়ে রাজনেতা-সহ শত শত কাশ্মীরিকে আটক করে রাখা হয়েছে। এই পদক্ষেপের ফলাফল মারাত্মক হতে পারে।” এছাড়াও, রাজনৈতিক কারণে কাশ্মীরে ঠিক কতজনকে বন্দি করে রাখা হয়েছে, যোগাযোগের মাধ্যমগুলি কতটা সক্রিয়, স্বাধীন পর্যবেক্ষক, কূটনীতিক এবং বিদেশি সাংবাদিকরা আদৌ সব জায়গায় যেতে পারছেন কি না, আগামী ৩০ দিনের মধ্যে সেই সংক্রান্ত একটি রিপোর্ট প্রকাশ করার জন্য সরকারের কাছে আবেদন জানিয়েছেন ওই সেনেটররা।

উল্লেখ্য, জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা লোপ করার পর থেকেই কড়া বিধিনিষেধে রয়েছে অঞ্চলটি। রাজ্যের মর্যাদা কেড়ে নেওয়ায় বর্তমানে কেন্দ্রশাসিত জম্মু ও কাশ্মীর কার্যত বারুদের স্তূপের উপর রয়েছে। এনিয়ে আন্তর্জাতিক মঞ্চে প্রশ্নের মুখে পড়তে হয়েছে ভারতকে। ফলে বিশ্বমঞ্চে পরিস্থিতির ‘সঠিক চিত্র’ তুলে ধরতে মোদি সরকারের উদ্যোগে এবার আয়োজিত হতে চলেছে বিদেশি প্রতিনিধিদের দ্বিতীয় দলের কাশ্মীর সফর। চলতি সপ্তাহের শেষের দিকেই জম্মু ও কাশ্মীরের উদ্দেশে রওনা দেবে  ২৫ জনের একটি প্রতিনিধি দল। সূত্রের খবর, ২০টি দেশের প্রতিনিধি-সহ ওই দলে থাকছেন ভারতে ইউরোপীয় ইউনিয়নের (EU) দূত ইউগো আসতুতো তাৎপর্যপূর্ণভাবে এই সফরে অংশ নিচ্ছেন না ভারতে নিযুক্ত রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত নিকলে কুদাশেভ।  

এদিকে, চলতি মাসেই ভারতে আসছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। গত মঙ্গলবার এমনটাই জানিয়েছে হোয়াইট হাউস। মার্কিন প্রেসিডেন্টের সফর নিয়ে গত মাস থেকেই জল্পনা ছিল। ইমপিচমেন্ট প্রক্রিয়া শেষ হওয়ায় এবার আর তাতে কোনও বাধা রইল না।

[আরও পড়ুন: চিনে এক রাতেই করোনায় মৃত ২৪২! ব্যর্থতার অভিযোগে অপসারিত কমিউনিস্ট পার্টির নেতা]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং