২৬ বৈশাখ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

শ্বেতাঙ্গ চিকিৎসক না পেয়ে কী করলেন এই মহিলা, দেখুন ভিডিও

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 22, 2017 7:30 am|    Updated: June 22, 2017 7:39 am

Adamant Canadian woman demands white doctor, video goes viral

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কখনও মৌখিকভাবে, কখনও বা শারীরিকভাবে, কারণে কিংবা অকারণে, ইংল্যান্ড বা আমেরিকার মতো দেশে বর্ণবিদ্বেষমূলক হামলার মুখে পড়তে হয় কৃষ্ণাঙ্গদের৷ রেহাই পান না প্রবাসী ভারতীয়রাও৷ আর এবার সেই বর্ণবিদ্বেষমূলক মনোভাবেরই এক নয়া নমুনা দেখা গেল আমেরিকার পড়শি দেশ কানাডায়৷ স্থানীয় এক ক্নিনিকে গিয়ে এক শ্বেতাঙ্গ মহিলা জানালেন, কৃষ্ণাঙ্গ চিকিৎসক হলে চলবে না৷  তাঁর ছেলের চিকিৎসা করতে পারবেন কেবলমাত্র একজন শ্বেতাঙ্গ চিকিৎসকই৷ আর সে দাবি পূরণ না হওয়ায় ধুন্ধমার কাণ্ড বাধালেন তিনি৷ ঘটনাটি ঘটেছে টরেন্টোর কাছে সার্দান অন্টারিওতে৷ সোশ্যাল মিডিয়ার ঘটনার ভিডিও প্রকাশ্যে আসার পরই নিন্দার ঝড় ওঠেছে৷

[ধর্ম পালটাতে বাধ্য করায় পাকিস্তান ছাড়ছেন হিন্দুরা]

জানা গিয়েছে, গত কয়েক দিন ধরেই বুকের ব্যাথায় কষ্ট পাচ্ছিলেন ওই মহিলার শিশুপুত্র৷ রবিরার  ছেলেকে নিয়ে অন্টারিও প্রদেশের মিসিসাওগা শহরের একটি ক্নিনিকে যান ওই মহিলা৷ ভিডিওয় দেখা গিয়েছে৷ ক্নিনিকে ঢুকেই ওই মহিলা জানতে চান, সেখানে কোনও শ্বেতাঙ্গ চিকিৎসক আছে কিনা৷  ক্নিনিকে কর্মীরা ওই মহিলাকে বলেন, এখন হঠাৎ করে কোনও শ্বেতাঙ্গ শিশুরোগ বিশেষজ্ঞকে ডেকে আনা সম্ভব নয়৷ এরপরই ক্নিনিকের ভিতরেই চিৎকার করতে শুরু করেন ওই মহিলা৷ ক্নিনিকের কর্মীরা ঠাণ্ডা মাথায় পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার চেষ্টা করলেও, ওই মহিলার চিৎকারে একসময়ে অতিষ্ট হয়ে পড়েন অন্যন্য রোগীরা৷ তাঁরা মহিলাকে অন্য ক্নিনিকে যাওয়ার পরামর্শ দেন৷ পরিস্থিতি এমন জায়গায় পৌঁছয়, যে পুলিশ ডাকতে হয়৷ স্থানীয় এক পুলিশ আধিকারিক জানিয়েছেন, শ্বেতাঙ্গ চিকিৎসক  না পেয়ে ওই মহিলা ক্নিনিকের কর্মীদের অশালীন ভাষায় আক্রমণ করেন৷ তবে কোনও ফৌজদারি অপরাধ না ঘটায়, ওই মহিলার বিরুদ্ধে কোনও মামলা রুজু করা হয়নি৷

[এবার সুইমস্যুটে উঠে এল ডোনাল্ড ট্রাম্পের মুখ]

কানাডার মিসিসাওগা শহরের ওই ক্নিনিকেই চিকিৎসা করাতে গিয়েছিলেন রীতেশ ভরদ্বাজ নামে এক প্রবাসী ভারতীয়৷ গোটা ঘটনাটি ভিডিও করে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে দেন তিনি৷ এরপরই নিন্দা ঝড় ওঠে৷ অন্টারিও মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি নাদিয়া আমল বলেন, ওই মহিলা যা করেছেন, তা কখনই সমর্থন করা যায় না৷ তবে কানাডায় এইরকম ঘটনা হামেশাই ঘটে৷ ঘটনার তীব্র সমালোচনা করেছেন, অন্টারিও প্রিমিয়ার ও অন্টারিও লিবারাল পার্টির নেতা ক্যাথলিন ওয়ানে৷

দেখুন ভিডিও

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে