Advertisement
Advertisement
Corona Virus

৫ বছর আগেই করোনাকে ‘জৈব অস্ত্র’ হিসাবে ব্যবহার করার ছক কষেছিল চিন, প্রকাশ্যে চাঞ্চল্যকর নথি

ভাইরাসটি চিনের সরকারি গবেষণাগারে তৈরি, দাবি করা হয়েছে ওই গোপন নথিতে।

Allegedly Chinese scientists discussed weaponizing SARS coronaviruses in 2015 । Sangbad Pratidin
Published by: Arupkanti Bera
  • Posted:May 8, 2021 7:43 pm
  • Updated:May 8, 2021 7:54 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাসের (Corona Virus) তাণ্ডবের পিছনে চিনের (China) প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ হাত রয়েছে, এমন অভিযোগ বার বার উঠেছে। কিন্তু তার কোনও পোক্ত প্রমাণ কেউ তুলে ধরতে পারেনি, যা দিয়ে চিনকে সরাসরি কাঠগড়ায় তোলা যায়। চিনও বার বার চেষ্টা করেছে তাদের ঘাড় থেকে দায় নামিয়ে ফেলতে। কিন্তু এবার যে নথি প্রকাশ্যে এল তাতে ‘সার্স করোনা ভাইরাস’ নিয়ে চিনের অনেক গোপন পরিকল্পনা ফাঁস হয়ে গেল।

চিনের সামরিক বিজ্ঞানীরা নাকি ২০১৫ সালেই এই ভাইরাসকে জৈব অস্ত্র হিসাবে ব্যবহার করার বিষয়ে নিজেদের মধ্যে আলোচনা করছিলেন। চিনেরই এক শীর্ষ স্থানীয় বিজ্ঞানী এই তথ্য ফাঁস করেছেন।

Advertisement

[আরও পড়ুন: নয়া প্রাইভেসি পলিসি নিয়ে বড় ঘোষণা হোয়াটসঅ্যাপের, স্বস্তিতে ইউজাররা]

লি-মেং ইয়ান নামের ওই চিনা ভাইরোলজিস্টের দাবি ঘিরে এখন তোলপাড় গোটা বিশ্ব। চিনা ভাষায় লেখা কিছু নথি তিনি ইংরেজিতে অনুবাদ করে টুইট করেছেন। সেখানে উল্লেখ রয়েছে ‘সার্স-কোভ-২’ ভাইরাসটি চিনের সরকারি গবেষণাগারে তৈরি করা হয়েছে। এবং চিনের সামরিক বিভাগের বিজ্ঞানীরা সার্স করোনা ভাইরাসকে জৈব হাতিয়ার রূপে ব্যবহারের বিষয়ে আলোচনা করছেন। শুধু তাই নয়, জৈব অস্ত্র দিয়েই নাকি তৃতীয় বিশ্ব যুদ্ধে লড়াই হবে। এই নথিতে এমন আলোচনার উল্লেখ রয়েছে।

Advertisement

[আরও পড়ুন: মাত্র ২৭ সেকেন্ডে সন্তানের জন্ম দিয়ে ‘বিশ্ব রেকর্ড’ মহিলার, কীভাবে সম্ভব হল?]

২০১৫ সালে এই আলোচনা যখন হয়, তখন বিশ্বে করোনার অতিমারির কথা সাধারণ মানুষের কেউ ভাবেননি। তার প্রায় ৫ বছর পর বিশ্ব জুড়ে শুরু হয়ে যায় করোনা ভাইরাসের তাণ্ডব। অস্ট্রেলিয়ার এক খবরের ওয়েবসাইটে দাবি করা হয়েছে, এই ভাইরাসের জিন ইচ্ছে মতো পরিবর্তন করে মানব শরীরে ঘাতক অস্ত্র হিসাবে ব্যবহার করা যাবে।

এই নথি প্রকাশ্যে আসার পর চিনের তরফে এখনও কোনও প্রতিক্রিয়া সামনে আসেনি। তবে ইতিমধ্যেই তোলপাড় শুরু হয়ে গিয়েছে গোটা বিশ্বে। যে  অভিযোগ এতদিন চিন এড়িয়ে এসেছে, এই নথি প্রকাশ্যে আসার পর তারা কী বলে সেটাই দেখার।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ