২২ আষাঢ়  ১৪২৭  মঙ্গলবার ৭ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

লকডাউন উঠতেই স্পেনে গিয়ে পার্টি, নিয়ম ভেঙে করোনা আক্রান্ত বেলজিয়ামের রাজকুমার

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: May 31, 2020 3:08 pm|    Updated: May 31, 2020 3:41 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লকডাউন উঠতেই বেলজিয়াম থেকে স্পেনে উড়ে গিয়েছেন রাজা ফিলিপের বছর আঠাশের ভাইপো। পরিকল্পনা ছিল, ওখানে তিনি ইন্টার্নশিপ করবেন। কেউ আপত্তি করেনি। স্পেনও দরজা খুলে দিয়েছিল বিদেশি শিক্ষানবীশের জন্য। কিন্তু কে জানত, তিনি ইন্টার্নশিপ করতে গিয়ে এমন বড় বিপদ ডেকে আনবেন? স্পেনে বন্ধুবান্ধব নিয়ে পার্টি করতে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত হয়ে পড়লেন বেলজিয়ামের রাজকুমার জোয়াকিম। তবে খুব মৃদু উপসর্গ থাকায় আপাতত স্পেনেই প্রাসাদবন্দি তিনি।

করোনা সংক্রমণের হার কিছুটা কমতেই গত মাসের মাঝামাঝি সময়ে লকডাউন উঠে গিয়েছিল স্পেনে। বাইরে যাতায়াতের ক্ষেত্রে বাধা ছিল না আমজনতার। তবে ভিড় বা জমায়েত এড়ানো, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার মতো নিয়মগুলিও কঠোরভাবে পালন করার নির্দেশ ছিল প্রশাসনের তরফে। বেলজিয়ামের রাজকুমার জোয়াকিম সেসব সম্পর্কে বোধহয় অবগত ছিলেন না। তিনি ২৬ মে বেলজিয়াম থেকে উড়ে যান স্পেনে। দু’দিন পর, ২৮ তারিখ কর্ডোবা শহরে একটি পার্টির আয়োজন করেন। বেশি নয়, মাত্র ২৭জন উপস্থিত ছিলেন জোয়াকিমের পার্টিতে। কিন্তু তাতেই যা হওয়ার তাই হয়েছে। অবাধ মেলামেশায় নোভেল করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঘটেছে তাঁর শরীরে। খবর নিশ্চিত করেছে বেলজিয়ামের রাজ পরিবার।

[আরও পড়ুন: কৃষ্ণাঙ্গের মৃত্যুতে উত্তপ্ত আমেরিকা, কারফিউ জারি ১৩টি শহরে]

কর্ডোবার এই পার্টির খবর পেয়ে স্পেনের পুলিশ তদন্তে নামে। যেখানে ১৫ জনের বেশি জমায়েতে করা অপরাধ, সেখানে রাজকুমার জোয়াকিমের পার্টিতে প্রায় দ্বিগুণ জমায়েত কীভাবে, সেই প্রশ্নও ওঠে। এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছে স্প্যানিশ প্রশাসন। কর্ডোবা এলাকার এক প্রশাসনিক প্রতিনিধি, রাফায়েল ভ্যালেনজুয়েলার কথায়, ”আমি খুবই অবাক এবং ক্রুদ্ধ। এটা একেবারে দায়িত্বজ্ঞানহীনের মতো কাজ।” ভিনদেশি রাজকুমার এমন কাজ করলেন কীভাবে, সেই প্রশ্ন তদন্তকারীদেরও।

[আরও পড়ুন: যৌনতা দেশদ্রোহিতার মতোই অপরাধ! স্কুল পড়ুয়াদের জন্য কড়া নিয়ম আনলেন কিম]

আবার এই গুঞ্জনও শোনা গিয়েছে, এক স্প্যানিশ তরুণীর সঙ্গে রাজকুমার জোয়াকিমের দীর্ঘদিনের প্রণয়ের সম্পর্ক আছে। হয়ত তাঁকে খুশি করতেই পার্টির আয়োজন। পুলিশ সূত্রে খবর, ওই পার্টিতে থাকা প্রত্যেককে চিহ্নিত করে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। পার্টির আয়োজক যিনিই হোন না কেন, নিয়ম ভেঙে ১৫ জনের বেশি জমায়েতের জন্য দোষী সাব্যস্ত হলে ১১ হাজারেরও বেশি মার্কিন ডলার জরিমানা দিতেই হবে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement