BREAKING NEWS

৭  আশ্বিন  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ফাঁসি দেওয়া যাবে না কুলভূষণকে, আন্তর্জাতিক বিচার দিবসে মুখ পুড়ল পাকিস্তানের

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: July 17, 2019 6:32 pm|    Updated: July 17, 2019 7:52 pm

Blow to Pakisrtan as ICJ junks Kulbhushan Jadhav's death sentence

ফাইল ছবি

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আন্তর্জাতিক ন্যায় আদালতে (আইসিজে) বেনজির ধাক্কা খেল পাকিস্তান। কুলভূষণ যাদবের মৃত্যুদণ্ড রদ করে পুনর্বিচার করার নির্দেশ দিল আন্তর্জাতিক আদালত। বুধবার ভারতীয় নৌসেনার প্রাক্তন কর্মীর বিরুদ্ধে আনা সন্ত্রাসবাদ ও নাশকতার অভিযোগ উড়িয়ে দিলেন বিচারপতি আবদুল কোয়াই আহমেদ ইউসুফ। আন্তর্জাতিক বিচার দিবসে মুখ পুড়ল পাকিস্তানের।

কুলভূষণ যাদবের মৃত্যুদণ্ড রদ করে পুনর্বিচার করা উচিত পাকিস্তানের-পর্যবেক্ষণ আন্তর্জাতিক আদালতের। কুলভূষণকে কনস্যুলার অ্যাকসেস দেওয়ার নির্দেশও এ দিন দিয়েছে আন্তর্জাতিক আদালত। শুধু তাই নয়, কনস্যুলার অ্যাকসেস না দিয়ে পাকিস্তান ভিয়েনা চুক্তি ভঙ্গ করেছে বলেও পর্যবেক্ষণ আন্তর্জাতিক আদালতের ১০ সদস্যের বিচারপতির প্যানেলের।

কুলভূষণের বিচার হয়েছিল পাকিস্তানের সামরিক আদালতে। এ দিন আন্তর্জাতিক আদালতের রায়, কুলভূষণের বিচার হওয়া উচিত ফৌজদারি আদালতে। আন্তর্জাতিক আদালতের এই রায়কে ভারতের জয় হিসেবেই দেখছে সংশ্লিষ্ট মহল।

[আরও পড়ুন: কুলভূষণ-সলমন ‘র’ এজেন্ট! নেটিজেনদের রোষে পাক সেনার মুখপাত্র]

৪৯ বছরের কুলভূষণ ভারতীয় নৌবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত কমান্ডার। তাঁর বিরুদ্ধে পাকিস্তানের অভিযোগ, ‘কুলভূষণ যাদব আসলে ভারতীয় গুপ্তচরসংস্থা র-এর চর। ধরা পড়ার পরে কুলভূষণ নিজেই কবুল করেন, পাকিস্তানে সন্ত্রাস ও নাশকতায় সক্রিয়ভাবে জড়িত ছিলেন।’ পাকিস্তানের যাবতীয় অভিযোগ ও দাবি মিথ্যা চক্রান্ত বলে উড়িয়ে দিয়েছে ভারত সরকার। পাকিস্তানের সেনা আদালতে কুলভূষণকে ফাঁসির সাজা শোনানো হয়েছিল। তারপরই কুলভূষণকে নির্দোষ প্রমাণ করতে আন্তর্জাতিক আদালতে যায় ভারত। শুনানির পর আন্তর্জাতিক ন্যায় আদালত কুলভূষণের মৃত্যুদণ্ডে স্থগিতাদেশ দেয়। আজ ভারতীয় সময় সন্ধে সাড়ে ছ’টা নাগাদ মামলার রায় ঘোষণা করে আন্তর্জাতিক ন্যায় আদালত। দ্য হেগ শহরের পিস প্যালেসে জুরি বোর্ডের শীর্ষ বিচারপতি আবদুল কোয়াই আহমেদ ইউসুফ এই মামলার রায় ঘোষণা করেন। এই রায়ে দেশজুড়ে বয়ে গিয়েছে খুশির বন্যা।

গতকালই হেগে পৌঁছন পাকিস্তানের আইনজীবীরা। দলটির নেতৃত্বে রয়েছেন অ্যাটর্নি জেনারেল আনোয়ার মনসুর খান। এদিকে, বিদেশমন্ত্রকের যুগ্ম সচিব দীপক মিত্তলের অধীনে পৌঁছে গিয়েছে ভারতীয় দলও। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারতের অভিযোগ, বিচারের নামে সেনা আদালতে কুলভূষণের সঙ্গে প্রহসন করেছে পাকিস্তান। কুলভূষণের উপর মারাত্মক অত্যাচার করা হচ্ছে এবং এভাবে ভিয়েনা চুক্তি লঙ্ঘিত হচ্ছে। উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ৩ মার্চ বালোচিস্তান থেকে কুলভূষণকে গ্রেপ্তার করে পাক সেনা। যদিও অভিযোগ, ইরান থেকে অপহরণ করা হয় ভারতীয় নৌসেনার প্রাক্তন আধিকারিককে। ভারতীয় গুপ্তচর সংস্থার সঙ্গে কোনও সম্পর্ক নেই কুলভূষণ যাদবের বলেও আগেই জানিয়েছে ভারত। 

[আরও পড়ুন: কুলভূষণের পরিবারকে অপমান, পাক দূতাবাসের সামনে ছেঁড়া চটি নিয়ে প্রতিবাদ

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে