৪ মাঘ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ১৮ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

আরও কাছাকাছি, চলতি বছরে তৃতীয়বার মুখোমুখি জিনপিং-কিম

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 20, 2018 8:25 pm|    Updated: June 20, 2018 8:25 pm

Chinese President Xi Jinping held talks with the North Korean leader Kim Jong Un in Beijing

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠকের প্রায় এক সপ্তাহ পরেই চিনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গে বৈঠক সারলেন উত্তর কোরিয়ার সর্বাধিনায়ক কিম জং উন৷ বেজিংয়ে অনুষ্ঠিত হওয়া এই বৈঠকে দুই রাষ্ট্রনায়ক আলোচনার কেন্দ্রে রেখেছিলেন, চিন-উত্তর কোরিয়ার মধ্যে বেড়ে ওঠা বাণিজ্যিক সম্পর্ক, দুই কোরিয়ার মধ্যে শান্তি প্রতিষ্ঠা করা ও তা বজায় রাখা এবং বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠায় পিয়ংইয়ংয়ের পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ কর্মসূচিকে৷ সমস্ত বিষয়েই ইতিবাচক আলোচনা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে৷

[বাংলাদেশে সাধারণ নির্বাচন সামলাবে তত্ত্বাবধায়ক সরকার, ঘোষণা মন্ত্রীর ]

সূত্রের খবর, আমেরিকার সঙ্গে সু-সম্পর্ক গড়ে তোলায় বৈঠকের শুরুতেই কিমকে শুভেচ্ছা জানান চিনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং৷ বলেন, উত্তর কোরিয়া ও আমেরিকার মধ্যে যে সম্পর্ক গড়ে উঠেছে তা বিশ্বকে শান্তি দেবে৷ তবে এই প্রথম নয়, গত ১২ জুন যখন সিঙ্গাপুরে ঐতিহাসিক বৈঠকে মুখোমুখি হয়েছিলেন ট্রাম্প-কিম তখনও তাঁদের পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়েছিল চিন৷ তবে উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, আমেরিকার সঙ্গে বৈঠক হলেও বেজিংয়ের প্রতি তাঁর আনুগত্য বরাবরই বজায় রেখেছেন কিম৷ চলতি বছরে এই নিয়ে তিনবার চিন সফর করলেন উত্তর কোরিয়ার সর্বাধিনায়ক৷ দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট ও মার্কিন প্রেসিডেন্টের সঙ্গে বৈঠকের আগে মার্চ ও এপ্রিলে পর পর দু’বার তিনি বৈঠক করেছিলেন চিনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গে৷ দুই ঐতিহাসিক বৈঠকের পর আবার চিনা প্রেসিডেন্টের মুখোমুখি হলেন তিনি৷ এতে আন্তর্জাতিক মহলে তৈরি হয়েছে একটা আশঙ্কা৷ অনেকে মনে করছেন পিছন থেকে কিমকে কার্যত চালনা করছেন চিনা প্রেসিডেন্ট৷

[পক্ষপাতিত্বের অভিযোগে মানবাধিকার পরিষদ থেকে সরে দাঁড়াল আমেরিকা]

এই আশঙ্কাকে আরও বাড়িয়ে দিয়েছে, বুধবার করা চিনা প্রেসিডেন্টের মন্তব্য৷ বৈঠকের শেষে চিন ও উত্তর কোরিয়ার বাড়তে থাকা সু-সম্পর্ক নিয়ে ঢালাও প্রশংসা শোনা যায় জিনপিংয়ের মুখে৷ আন্তর্জাতিক রাজনীতি যেদিকেই যাক না কেন কোনও ভাবেই উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে তাঁদের সম্পর্ক নষ্ট হবে না৷ বেজিং ও পিয়ংইয়ং সর্বক্ষেত্রে একসঙ্গে জুটি বেঁধে কাজ করবে বলে মন্তব্য করেন তিনি৷ একই ভাবে জিনপিংয়ের দিকেই ঘাড় কাত করেছেন উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট৷ প্রত্যুত্তরে কিমের বক্তব্য, সর্বতোভাবে চিনকে সাহায্য করবে উত্তর কোরিয়া ও ওয়ার্কার্স পার্টি অফ কোরিয়া৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে