১৪  আশ্বিন  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ৬ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

Queen Elizabeth II: বহুমূল্য রত্নখচিত মুকুট রাখা রানি এলিজাবেথের কফিনে, বিদায়বেলায় আর কী কী আয়োজন?

Published by: Kishore Ghosh |    Posted: September 19, 2022 5:06 pm|    Updated: September 19, 2022 9:26 pm

Facts and figures about funeral of queen Elizabeth II | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ব্রিটেন-সহ (UK) গোটা বিশ্ব বিদায় জানাচ্ছে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথকে (Queen Elizabeth II)। সোমবার ভারতীয় সময় বিকেল ৪টে (ব্রিটেনের সময় সকাল ১১টা) নাগাদ শুরু রানির রাষ্ট্রীয় অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া। ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবেতে (Westminster Abbey) হচ্ছে শেষকৃত্য। রাজকীয় আনুষ্ঠানিকতার পর উইন্ডসর ক্যাসেলে রাজ সমাধিস্থলে স্বামী ফিলিপের পাশে সমাহিত হবেন রানি। ইতিমধ্যে ওয়েস্টমিনস্টার হলে রানির প্রতি সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা নিবেদনের সময় শেষ হয়েছে। উল্লেখ্য, বহুমূল্য রত্নখচিত মুকুটটি রাখা থাকছে রানি এলিজাবেথের কফিনে। বিদায়বেলায় আর কী কী আয়োজন? রইল সেই তথ্য ও পরিসংখ্যান।

২০০০: ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবেতে রানির অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় অংশ নিচ্ছেন এই সংখ্যক অতিথি। থাকছেন রাজা চার্লস তৃতীয় (King Charles III) ও রাজপরিবারের সমস্ত সদস্য, মার্কিন রাষ্ট্রপতি জো বাইডেন, ভারতের রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও অন্য রাষ্ট্রনেতারা। রানির শেষকৃত্যে আমন্ত্রণ পেয়েছেন ব্রিটিনে মহামারী কোভিডের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে অংশ নেওয়া স্বাস্থ্যকর্মীরাও।

[আরও পড়ুন: ইউক্রেনে পরমাণু হামলা হলে ‘ভয়ঙ্কর প্রত্যাঘাত’, পুতিনকে হুঁশিয়ারি বাইডেনের]

৮০০: এই সংখ্যক বিশেষ অতিথি দিনের শেষে উইন্ডসর ক্যাসেলের সেন্ট জর্জ চ্যাপেলের উপস্থিত থাকবেন। রাষ্ট্রীয় অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় অংশ হিসেবে পবিত্র প্রতিশ্রুতি নেবেন তাঁরা।

৫৯৪৪: ৪ সেপ্টেম্বর রানির মৃত্যুর পরেই এই সংখ্যক সেনা মোতায়েন করা হয় রাজকীয় অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় দেখভালে। এর মধ্যে রয়েছে পদাতিক সেনার ৪৪১৬ জন, নৌবাহিনীর ৮৪৭ জন এবং বিমানবাহিনীর ৬৯৬ জন। এছাড়াও, কমনওয়েলথ দেশগুলির ১৭৫ জন সশস্ত্র সেনা নিযুক্ত হয়েছেন এই কাজে।

১৪২: প্রাসাদের এই সংখ্যক নৌ নিরাপত্তারক্ষীরা কফিন বহন করবেন অন্ত্যেষ্টিস্থল অবধি। ব্রিটেনের সংসদ ভবন থেকে ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবের অন্তেষ্টিস্থল অবধি রানির কফিন বহনের দায়িত্বে থাকবেন রাজপ্রাসাদের নিযস্ব নৌসেনা দল।

১০০০০: এই পরিমাণ পুলিশ কর্মী মোতায়েন করা হয়েছে রানির অন্ত্যেষ্টি কার্যক্রমের নিরাপত্তায়। লন্ডন মেট্রোপলিটিন পুলিশ কমিশনার স্টুয়ার্ট ক্যান্ডি জানিয়েছেন, একটি আয়োজনকে কেন্দ্র করে এত বেশি সংখ্যক পুলিশ মোতায়েনের ঘটনা দেশে প্রথমবার। এর আগে ২০১২ সালে লন্ডন অলিম্পিকসের সময় ১০ হাজার পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছিল।

[আরও পড়ুন: ইরানে ‘নীতি পুলিশ’ বিরোধী বিক্ষোভ, তরুণীর মৃত্যুতে হিজাব পোড়ালেন, চুল কাটলেন মহিলারা]

২৮৬৮: হিরে, ১৭টি নীলকান্তমণি, ১১টি পান্না, ২৬৯টি মুক্তো এবং ৪টি রুবি রানির যে মুকুটে শোভবর্ধন করত। যাতে সব মিলিয়ে দামি পাথরের সংখ্যা ২৮৬৮টি। অন্তেষ্টি সময় ওই মুকুটটি থাকবে রানির কফিনের উপরে।

উল্লেখ্য, সোমবার লন্ডনের সমস্ত থিয়েটার খুলে দেওয়া হয়েছে, সেখানে সরাসরি দেখানে হচ্ছে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের শেষকৃত্য অনুষ্ঠান। রানির বিদায় অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে গোটা দেশেই কার্যত বন্ধের চেহারা নিয়েছে। রানিকে শ্রদ্ধা জানাতে নীরবতা পালনে যাতে বিঘ্ন না ঘটে সে কথা ভেবে হিথরো বিমানবন্দরে উড়ান বন্ধ থাকবে নির্দিষ্ট সময়ে।  

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে