১০ আষাঢ়  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভুয়ো অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে বহু লক্ষ মার্কিন ডলার তছরুপের অভিযোগে সোমবার গ্রেপ্তার হলেন পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট তথা পিপিপি নেতা আসিফ আলি জারদারি। ভুয়ো ব্যাংক অ্যাকাউন্ট মামলায় সোমবার প্রাক্তন প্রেসিডেন্টকে তাঁর ইসলামাবাদের বাসভবন থেকে গ্রেপ্তার করেছে ন্যাশনাল অ্যাকাউন্টেবিলিটি ব্যুরো (এনএবি)।

[আরও পড়ুন: জঙ্গিবিরোধী অভিযানে উত্তপ্ত শ্রীলঙ্কায় মসজিদ ভেঙে গুঁড়িয়ে দিলেন মুসলিমরাই]

অর্থ তছরুপের এই মামলায় এদিন জারদারি ও তাঁর বোন ফারিয়াল তালপুরের অন্তর্বর্তী জামিনের মেয়াদ বৃদ্ধি করতে অস্বীকার করে ইসলামাবাদ হাই কোর্ট। একই সঙ্গে অভিযুক্তদের গ্রেফতারের অনুমতি দেয় দুই সদস্যের বেঞ্চ। আদালতের নির্দেশের কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই ইসলামাবাদের জারদারি হাউসে হাজির হন পাক দুর্নীতি দমন সংস্থার আধিকারিকরা। সেখান থেকেই গ্রেফতার করা হয় জারদারিকে। তবে তাঁর বোনকে গ্রেপ্তার করার খবর মেলেনি। দলের পক্ষ থেকে দলীয় কর্মী ও সমর্থকদের শান্ত থাকার আবেদন জানানো হয়েছে। এর আগে দুর্নীতির অভিযোগে গ্রেপ্তার হয়ে কারাবাস ভোগ করছেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ। দুর্নীতির অভিযোগে পাক প্রশাসনের কয়েকজন পদস্থ কর্তাকেও গ্রেপ্তার করা হতে পারে বলে খবর। এদিন গ্রেপ্তার হওয়ার পর জারদারি এবং তাঁর বোনের সামনে সুপ্রিম কোর্টে যাওয়া ছাড় আর কোনও রাস্তা খোলা রইল না। এদিনই দেশবাসীকে তাঁদের অঘোষিত সম্পত্তির পরিমাণ ঘোষণা করে কর ছাড়ের সুবিধা নেওয়ার আবেদন জানিয়েছেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

এদিন আদালতের নির্দেশের পর এনএবির এক প্রতিনিধি দল ও পুলিশ জারদারি হাউসে উপস্থিত হয়। সেখানে পিপিপি কর্মী ও সমর্থকরা প্রথমে পুলিশকে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করে। কিন্তু কিছুক্ষণের মধ্যেই প্রয়াত পাক প্রধানমন্ত্রী বেনজির ভুট্টোর স্বামী জারদারি আত্মসমর্পণের কথা বলায় তদন্তকারী দলের অফিসাররা জারদারি হাউসে প্রবেশ করেন। কিছুক্ষণের মধ্যেই জারদারি এনএবি অফিসারদের সঙ্গে একটি কালো রঙের ল্যান্ডক্রুজার গাড়ি করে বেরিয়ে যান। ২০০৮ থেকে ২০১৩ পর্যন্ত পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট ছিলেন জারদারি। যদিও প্রাক্তন প্রেসিডেন্টের দাবি, তিনি কখনওই কোনও দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন না। শাসক দল তাঁর নামে কালি ছেটাতেই এ ধরনের অভিযোগ করেছে।

২০১৮-র সাধারণ নির্বাচনে জারদারি সিন্ধু প্রদেশ থেকে জাতীয় আইনসভায় নির্বাচিত হন। এনএবি-র অভিযোগ, জারদারি এবং তাঁর বোন ফরিয়াল ভুয়া ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে ১৫০০০ কোটি টাকা সরিয়ে নিয়েছেন। জারদারির গ্রেফতারির প্রেক্ষিতে জরুরি বৈঠক ডেকেছে পিপিপি নেতৃত্ব। শেষ পর্যন্ত প্রতিবেশী দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির দেখানো পথে হেঁটে ইমরান এদিন দেশবাসীকে তঁাদের যাবতীয় সম্পত্তির হিসাব পেশ করে সঠিক পরিমাণ কর দিতে অনুরোধ করেছেন। ৩০ জুনের মধ্যে দেশবাসীকে তাঁদের সম্পদের পরিমাণ জানাতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী। দেশের উন্নয়নে আরও বেশি মানুষকে কর দিতে অনুরোধ করেছেন ইমরান। মঙ্গলবার ২০১৯-২০ আর্থিক বছরের বাজেট প্রস্তাব পেশ করবেন ইমরান।

[আরও পড়ুন: ষড়যন্ত্রকারী সেনাকর্তাকে রাক্ষুসে মাছ পিরানহা ভরতি পুকুরে ফেললেন কিম]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং