BREAKING NEWS

৩০ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৮  সোমবার ১৪ জুন ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

রাস্তায় সপাটে চড় খেলেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: June 8, 2021 8:19 pm|    Updated: June 8, 2021 8:25 pm

French President Emmanuel Macron slapped in the face | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কিছুটা নিয়ন্ত্রণে এসেছে করোনা সংক্রমণ। খানিকটা শিথিল হয়েছে বিধিনিষেধ। এহেন পরিস্থিতিতে জনতার মনোবল বাড়াতে রাস্তায় ভ্রমণে বেরিয়েছিলেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ (Emmanuel Macron)। সেই সময়  তাঁর গালে সপাটে চড় মারে এক ব্যক্তি।

[আরও পড়ুন: ‘মেহুল চোকসি ভারতীয় নাগরিক’, ডোমিনিকার প্রধানমন্ত্রীর মন্তব্যে বাড়ছে প্রত্যর্পণের আশা]

বিবিসি সূত্রে খবর, মঙ্গলবার দক্ষিণ-পূর্ব ফ্রান্সের ভ্যালেন্স শহরের কাছেই একটি রাস্তায় হাঁটছিলেন প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁ। তাঁকে দেখার জন্য রাস্তার ধারে ব্যারিয়ারের ওপর দিকে দাঁড়িয়েছিলেন অনেকেই। হাঁটতে হাঁটতে হালকা মেজাজে দু’চারটে কথাও বলছিলেন ম্যাক্রোঁ। সেইসময় একব্যক্তিকে নমস্কার জানিয়ে আরও এক যুবকের দিকে করমর্দনের উদ্দেশ্যে হাত বাড়িয়ে দেন তিনি। কিন্তু সকলকে অবাক করে দিয়ে ম্যাক্রোঁর গালে সপাটে চড় বসিয়ে দেয় ওই ব্যক্তি। পাশাপাশি, ‘ম্যাক্রোঁবাদ নিপাত যাক’ বলেও চিৎকার করে ওঠে হামলাকারী।  আকস্মিকতা কাটিয়ে মুহূর্তের মধ্যে প্রেসিডেন্টকে সরিয়ে নিয়ে যান তাঁর নিরাপত্তারক্ষীরা। সঙ্গে সঙ্গে গ্রেপ্তার করা হয় অভিযুক্ত যুবক-সহ দু’জনকে। এই ঘটনার ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে নেটদুনিয়ায়। ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন নেটাগরিকদের অনেকেই।

এদিকে, এই ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে ফ্রান্সে। নিন্দায় সরব হয়েছেন শাসকদল থেকে শুরু করে বিরোধী নেতারা। হামলার ঘটনার কিছুক্ষণের মধ্যেই ফ্রান্সের জাতীয় সংসদে বিবৃতি দেন প্রধানমন্তী জিন ক্যাসটেক্স। তিনি বলেন, “কোনও ক্ষেত্রেই হিংসা বা হামলার ঘটনা মেনে নেওয়া যায় না।” ফরাসি প্রেসিডেন্টের সমর্থনে বক্তব্য পেশ করেছেন অতি দক্ষিণপন্থী নেতা ম্যারিন লি পেন। তাঁর কথায়, “গণতান্ত্রিক আলোচনা অনেক সময় তিক্ত হয়ে ওঠে। তবে হামলার ঘটনা মেনে নেওয়া যায় না।”

উল্লেখ্য, করোনা (Corona) মহামারীর দাপটে আতঙ্কিত গোটা বিশ্ব। একাধিক বিধিনিষেধে পালটে গিয়েছে পরিচিত জীবন। তবে এহেন সংকট কালেও কিছুটা আশার আলো দেখাচ্ছে ইউরোপ। ছ’মাস লকডাউনে থাকার পর গত মে মাসে খানিকটা মুক্তির স্বাদ পেয়েছে অস্ট্রিয়া ও ফ্রান্স। ক্যাফে, রেস্তরাঁ খোলার অনুমতি মিলেছে। এতদিন পর্যন্ত সন্ধে ৭টা থেকেই নাইট কারফিউ বলবৎ হত। এবার তা পিছিয়ে রাত ৯টা করা হয়েছে। মিউজিয়াম, থিয়েটার, সিনেমা হল খোলারও অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

[আরও পড়ুন: ছাত্রীর নগ্ন ছবি ফাঁস ঘিরে অস্বস্তিতে Apple, দিতে হল বিপুল অঙ্কের ক্ষতিপূরণ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement