BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

গাজার রেস্তোরাঁয় বিশেষ ছাড় উত্তর কোরিয়ার নাগরিকদের, জানেন কেন?

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: December 18, 2017 8:59 am|    Updated: September 18, 2019 5:15 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: উত্তর কোরিয়াকে বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী দেশকে প্রতিপন্ন করতে বেপরোয়া হয়ে উঠেছেv একনায়ক কিম জং উন। আন্তর্জাতিক নিয়ম-নীতির তোয়াক্কা না করে একের পর ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ করে চলেছেন তিনি। তা নিয়ে আমেরিকার সঙ্গে উত্তর কোরিয়ার সংঘাত তুঙ্গে। কিন্তু, জেরুজালেমকে ইজরায়েলের রাজধানীর স্বীকৃতি দেওয়ার বিরোধিতার কারণে এই যুদ্ধবাজ, খ্যাপাটে নেতার কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করলেন গাজা ভূ-খণ্ডের এক রেস্তোরাঁ মালিক। তিনি ঘোষণা করেছেন, তাঁর রেস্তোরাঁয় উত্তর কোরিয়ার নাগরিকদের বিশেষ ছাড় দেওয়া হবে। কিন্তু, ঘটনা হল, গাজা অভ্যন্তরীণ মন্ত্রকের তথ্য অনুযায়ী, এই মুহূর্তে সেখানে উত্তর কোরিয়ার কোনও নাগরিক নেই। প্যালেস্টাইনের কোনও বাসিন্দাও কিম জং উনের দেশের নাগরিকত্ব নেননি।

[জেরুজালেমকে ইজরায়েলের রাজধানী ঘোষণা ট্রাম্পের, পালটা হুঁশিয়ারি সৌদির]

ইহুদি ও ইসলামি সংস্কৃতির যৌথ পীঠস্থান জেরুজালেম। কিন্তু, প্রাচীন এই শহরটি রাজনৈতিকভাবে কোনও দেশের অন্তর্গত? ইজরায়েল না প্যালেস্টাইন? এখনও সেই প্রশ্নের মীমাংসা হয়নি। ১৯৬৭ সালে জেরুজালেম শহরের দখলদারি নিয়ে প্যালেস্টাইন ও ইজরায়েলের যুদ্ধ হয়েছিল। সেই থেকেই শহরের পূর্ব দিকের কিছু এলাকা দখলে রেখেছে তেল আভিভ। পরবর্তীকালে গোটা শহরটাকেই ইজরায়েলের রাজধানী বলে ঘোষণাও করে দেওয়া হয়। যদিও এখন জেরুজালেম ইজরায়েল বা প্যালেস্টাইন কোনও দেশেরই রাজধানী নয়। দীর্ঘ কয়েক দশক ধরে প্রাচীন এই শহরটিকে ঘিরে দুই দেশের টানাপোড়েন চলছে।

[ট্রাম্পের ঘোষণাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে জেরুজালেমের স্বীকৃতি খারিজ রাষ্ট্রসংঘে]

চলতি মাসে আচমকাই জেরুজালেমকে ইজরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ঘোষণা করে দেন, ইজরায়েলের বর্তমান রাজধানী তেল আভিভ থেকে মার্কিন দুতাবাসও খুব তাড়াতাড়ি জেরুজালেমে সরিয়ে আনা হবে। প্যালেস্টাইনের প্রেসিডেন্ট তো বটেই, মার্কিন প্রেসিডেন্টকে চরম হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ইরাকের প্রেসিডেন্ট, জর্ডনের রাজা দ্বিতীয় আবদুল্লা ও মিশরের প্রেসিডেন্ট আবদেলস ফতেহ সিসিও। প্রসঙ্গত, প্যালেস্টাইন বাদে সবকটি দেশই আমেরিকার বন্ধু বলেই পরিচিত। ট্রাম্পের সিদ্ধান্তের কড়া সমালোচনা করেছেন উত্তর কোরিয়ার একনায়ক কিম জং উনও।

[জেরুজালেম নিয়ে রক্তগঙ্গা বইবে, হুমকি আল কায়দা ও আইএসের]

এই মার্কিন বিরোধী অবস্থানের জন্য তাঁর রেস্তোরাঁয় উত্তর কোরিয়ার নাগরিকদের বিশেষ ছাড় দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন গাজার বাসিন্দা সালিম রাব্বা। তাঁর ঘোষণা, ‘প্যালেস্টাইন ইস্যুতে কোরিয়ার নেতার (কিম জং উন) অবস্থানের জন্য উত্তর কোরিয়ার নাগরিকদের ৮০ শতাংশ ছা়ড় দেওয়া হবে।’ কিন্তু, ঘটনা হল, উত্তর কোরিয়ার কোনও নাগরিকের বসবাসের তো প্রশ্নই নেই, প্যালেস্টাইনের কোনও বাসিন্দারও উত্তর কোরিয়ার নাগরিকত্বও নেই।

[জেরুজালেমকে ইজরায়েলের রাজধানী স্বীকৃতি দেওয়ায় ক্ষুব্ধ হয় আকায়েদ]

প্রসঙ্গত, প্যালেস্তাইনের দিক থেকে জেরুজালেমে ঢোকার রাস্তা দিয়ে দখল করে রেখেছে ইজরায়েল। ইহুদি রাষ্ট্রটির অনুমতি ছাড়া জেরুজালেমে ঢুকতে পারেননা প্যালেস্টাইনের বাসিন্দারা।

[প্লেটে লোভনীয় পদ, খাবার ফেলে দৌড় খাদ্যরসিকদের

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement