১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

লাদেনের বধ্যভূমি নিয়ে মহাফাঁপরে পাক প্রশাসন

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 24, 2016 5:50 pm|    Updated: July 24, 2016 5:50 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কবরখানা? না কি খেলার মাঠ?
পাকিস্তানের অ্যাবোটাবাদের যে জমিতে একসময় বাড়ি ছিল প্রয়াত আল-কায়দা নেতা ওসামা বিন লাদেনের, সেই জমির ভবিষ্যৎ নিয়ে আপাতত এরকম প্রশ্নেই জর্জরিত পাক-প্রশাসন।
২০১১ সালে মার্কিন সেনা এই জমিতে দাঁড়িয়ে থাকা বাড়িতেই গুলি করে হত্যা করে লাদেনকে। তার পর মিলিটারির তরফে ৩৮০০ একর এই জমির চার ধারে তুলে দেওয়া হয় এক বড়সড় পাঁচিল। সেই সময় থেকেই এইভাবেই পড়ে ছিল জমিটি।
কিন্তু, আপাতত তার ভবিষ্যৎ নিয়ে শুরু হয়েছে বিতর্ক। ”প্রাথমিক ভাবে আমরা জমিটি দেওয়াল তুলে ঘিরে রেখেছিলাম। এখন আমরা চাই, ওই জমিতে একটি কবরখানা গড়ে তোলা হোক। শেষকৃত্যের জন্য দেশে ক্রমশ জায়গা কমে আসছে। সেক্ষেত্রে এই জমিতে কবরখানা তৈরি হলে মানুষ উপকৃতই হবেন”, জানিয়েছেন মিলিটারি-শাসিত অ্যাবোটাবাদ ক্যান্টনমেন্টের ভাইস প্রেসিডেন্ট জুলফিকার আলি ভুট্টো।
অথচ, প্রশাসনের ইচ্ছা ওই জমি পরিণত হোক খেলার মাঠে। ”প্রশাসন এখানে একটা খেলার মাঠ তৈরি করতে চায়। কেন না, লোকালয়ের ঠিক মাঝখানে কবরখানা তৈরি করা যায় না। যদি এই কাজের জন্য প্রয়োজনীয় তহবিল নির্মাণ সম্পূর্ণ হয়, তবে এই বছরের মধ্যেই কাজ শুরু করে দেওয়া যাবে”, বলছেন খাইবার পাখতুনখোয়া প্রশাসনের তরফে মুশতাক ঘানি।
আপাতত, বিষয়টি নিয়ে কথা বলার জন্য আগামী সপ্তাহে একটি বৈঠক ডাকা হয়েছে। মিলিটারি এবং প্রশাসনের সেই বৈঠকের পরেই নির্ধারিত হবে লাদেনের সম্পত্তির ভবিষ্যৎ।
”আমরা মুখোমুখি বসে, কথা বলে একটা মীমাংসায় আসার চেষ্টা করছি”, জানিয়েছেন ভুট্টো।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement