১৭  শ্রাবণ  ১৪২৯  সোমবার ৮ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

লস্কর জঙ্গিদের ‘বিগেস্ট সাপোর্টার’, বিস্ফোরক স্বীকারোক্তি পারভেজ মুশারফের

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: November 29, 2017 4:12 am|    Updated: September 21, 2019 5:50 pm

I am the biggest supporter of LeT, confesses Musharraf

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কুখ্যাত আন্তর্জাতিক জঙ্গি হাফিজ সইদের সঙ্গে দেখা করেছিলেন। তাকে বেশ পছন্দও। লস্কর জঙ্গিদের কাজকর্মেও আছে পূর্ণ সমর্থন। এমনই চাঞ্চল্যকর স্বীকারোক্তি প্রাক্তন পাক প্রেসিডেন্ট জেনারেল পারভেজ মুশারফের। পাকিস্তানের সঙ্গে সন্ত্রাস যোগের যে কথা ভারত বরাবর বলে এসেছে, এরপর যেন তাতে আর কোনও ধোঁয়াশাই থাকল না।

সবথেকে শক্তিশালী মিসাইল উৎক্ষেপণ উত্তর কোরিয়ার, শঙ্কিত বিশ্ব ]

সদ্য গৃহবন্দি দশা থেকে মুক্তি পেয়েছে হাফিজ সইদ। ভারত-মার্কিন চাপের মুখেই তাকে নজরবন্দি করেছিল পাকিস্তান। কিন্তু কৌশলে মুক্ত করেছে। প্রমাণাভাবে সইদকে ছেড়ে দিয়েছে পাক আদালত। অন্যদিকে মুক্তির সঙ্গে সঙ্গেই জেহাদের বিষ ছড়াতে শুরু করেছে জঙ্গিনেতা। রাষ্ট্রসংঘের কাছে তার জঙ্গি তকমা তুলে নেওয়ারও আবেদন জানিয়েছে। সইদের মুক্তি ও কার্যকলাপে যে পাকিস্তানের পুরো মদত আছে তা স্পষ্ট। মুক্তির পর নতুন করে ঘুটি সাজানোরই ছক এই জঙ্গিনেতার। ঠিক এই সময়েই পাকিস্তানের এক টেলিভিশন চ্যানেলে সম্প্রচারিত হয়েছে মুশারফের একটি সাক্ষাৎকার। সেখানে তিনি স্পষ্টই জানিয়েছেন, লস্করের কাজকর্মকে তিনি পুরোমাত্রায় সমর্থম করেন। নিজেকে এলইটি-র বড় সমর্থক বলেও দাবি করেছেন প্রাক্তন পাক প্রেসিডেন্ট। তাঁর পালটা দাবি, লস্কর জঙ্গিরাও তাঁকে পছন্দই করে। অতীতে হাফিজ সইদের সঙ্গে তাঁর দেখা হয়েছে। সঞ্চালক জানতে চান, সইদকে তিনি পছন্দ করেন কিনা। সম্মতি জানাতে বিন্দুমাত্র দ্বিধা করেননি মুশারফ। কাশ্মীরে লস্কর জঙ্গিদের কাজ যে পাকিস্তানের অজানা নয় তাও খোলসা করে দিয়েছেন মুশারফ। তাঁর বিশ্বাস ভারতীয় সেনার হাত থেকে কাশ্মীরকে মুক্ত করতে হলে লস্কর বাহিনীরই সাহায্য নিতে হবে।

তাঁর এই সাক্ষাৎকার সম্প্রচারিত হওয়ার পরই শোরগোল পড়েছে। পাকিস্তান যে সন্ত্রাসে মদত দেয় এ অভিযোগ আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে বারংবার তুলেছে ভারত। অনেকটা ভারত-মার্কিন চাপে পড়েই সইদকে গৃহবন্দি করতে বাধ্য হয়েছিল পাকিস্তান। কিন্তু তাকে মুক্ত করে গোটা বিশ্বের চোখে ধুলো দিয়েছে প্রতিবেশী দেশটি। তবে মুশারফের এই সাক্ষাৎকারের পর অবশ্য পাকিস্তানের দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে আর কোনও ধোঁয়াশা থাকল না। জঙ্গিপন্থা আর সন্ত্রাসে ভরসা করে ভারতের বিরুদ্ধে আক্রমণ করাই যে পাকিস্তানের প্রধান ও প্রথম উদ্দেশ্য, তা আরও একবার স্পষ্ট হল।

জঙ্গি তকমা তুলে নিতে রাষ্ট্রসংঘের দ্বারস্থ হাফিজ সইদ ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে