৩ আষাঢ়  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রথমে টুইটারে শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন তিনি৷ এবার ফোন করলেন৷ ২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনে বিপুল জনসমর্থন পাওয়া ভাবী প্রধানমন্ত্রী মোদিকে এবার সরাসরি শুভেচ্ছা জানালেন ইমরান খান৷ পাক প্রধানমন্ত্রী জানালেন, দক্ষিণ এশিয়ায় শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখতে এবং ওই অঞ্চলের উন্নতিসাধনের উদ্দেশ্যে ভারতের সঙ্গে হাত মিলিয়ে কাজ করতে চায় পাকিস্তান৷

[ আরও পড়ুন: নেই খাবার-পানীয় জল, মাঝসাগরে জাহাজে আটকে দুই ভারতীয়]

গত ২৩ মে মোদি সুনামির জেরে ১৭তম লোকসভা নির্বাচনে আরও একবার একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছে বিজেপি৷ ক্ষমতায় ফিরেছে এনডিএ। আর এই অভূতপূর্ব সাফল্যের জন্য গত বৃহস্পতিবারই ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে টুইটারে অভিনন্দন জানান ইমরান। টুইটে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী জানান, “এই নির্বাচনী সাফল্যের জন্য নরেন্দ্র মোদি, বিজেপি ও তাদের সহযোগীদের অভিনন্দন। আশা করছি দক্ষিণ এশিয়ার শান্তি, উন্নয়ন ও উন্নতির জন্য আমরা একসঙ্গে কাজ করব।” মুখে একসঙ্গে কাজের কথা বললেও, পাক প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি বাস্তবে কতটা কার্যকর হবে তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে কূটনৈতিক মহল৷ 

[ আরও পড়ুন: মোদি ফিরতেই ত্রস্ত দাউদ, পাক গোয়েন্দা সংস্থার সঙ্গে বৈঠক ডনের ]

কারণ, ‘নতুন পাকিস্তান’ গড়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ২০১৮-তে ক্ষমতায় আসেন ইমরান খান৷ ভারত প্রসঙ্গে বলেন, ‘‘নয়াদিল্লি এক পা এগোলে, আমি দু’পা এগোব৷’’ কিন্তু বাস্তবে এর উলটোই হয়৷ মুখে সন্ত্রাসবাদ নির্মূলের কথা বললেও, আদতে সযত্নে জঙ্গিদেরই লালন পালন করে চলেছে পাকিস্তান৷ সেজন্যই পুলওয়ামার মতো ভয়াবহ জঙ্গি হানায় জইশ প্রধান মাসুদ আজহারের যোগ মানতে চায়নি পাক সরকার৷ ভোট প্রচারই হোক বা প্রথম ভাষণ, মৌখিক ভাবে বারবারই ভারতের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক ঠিক করার বার্তা দিয়েছেন ইমরান খান৷ কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর কুরসিতে জাঁকিয়ে বসেই নিজের প্রতিশ্রুতি ভুলে যান বিশ্বখ্যাত প্রাক্তন এই পাক ক্রিকেটার৷ অন্য সরকারের মতোই পাক সেনা, আইএসআই-এর হাতের পুতুলে পরিণত হয় ইমরানের সরকার৷ সে কারণেই, আন্তর্জাতিক মহলের চাপের মুখেও সন্ত্রাসবাদীদের পাশে দাঁড়ায় তারা৷ অস্বীকার করে পুলওয়ামা জঙ্গি হানায় জইশ প্রধান মাসুদ আজহারের যোগও৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং