BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

একরত্তি শিশুকে ১৮ বছর পর স্নাতক হতে দেখলেন প্রাণদায়ী দমকলকর্মী

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 26, 2016 3:35 pm|    Updated: May 26, 2016 3:35 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ১৯৯৮ সালে এক ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ৫ বছরের শিশু জোসিবেল্ক আপন্তে পুড়ে মরতে বসেছিল৷ সেই সময় পিটার গেটজ নামে কর্তব্যরত এক দমকলকর্মী নিজের প্রাণ সংশয়ে ফেলে ওই শিশুটির প্রাণ বাঁচান৷ আগুনের লেলিহান গ্রাস থেকে ওই শিশুটিকে উদ্ধার করে তৎক্ষনাৎ হাসপাতালে ভর্তি করে তাকে এক নতুন প্রাণ দান করেন পিটার৷ ওই আগুনেই পুড়ে মারা গিয়েছিলেন জোসিবেল্কের এক আত্মীয়৷ পিটারের এতটুকু ভুলচুক বা দেরি হলে প্রাণহানি হতে পারত শিশুটিরও৷ যদিও কৃতিত্বের দায় অস্বীকার করে পিটার সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন, শিশুটিকে বাঁচানো তাঁর কর্তব্যের মধ্যে পড়ে৷ তিনি ওই কাজের জন্যই প্রশিক্ষিত৷

জাম্পকাট টু ২০১৬!

জোসিবেল্ক আপন্তের বয়স এখন ২৩৷ চলতি সপ্তাহেই ইস্টার্ন কানেক্টিকাট স্টেট ইউনিভার্সিটি থেকে স্নাতকের পাঠ শেষ করেছেন৷ গ্র্যাজুয়েশন সেরেমনি অনুষ্ঠানে আপন্তের গোটা পরিবারের পাশেই হাজির ছিলেন সেই পিটার গেটজ৷ সঙ্গে তাঁর পরিবার৷ আপন্তে তো মহাখুশি৷ বলছেন, “সেদিন পিটার না থাকলে আমি আজকের দিনটা দেখার জন্য বেঁচে থাকতাম না৷” পিটার এখন অবসর নিয়েছেন৷ মাথার চুল প্রায় সবকটাই সাদা৷ তাঁর বক্তব্য, “আমি আপন্তের জন্য গর্বিত৷ সেদিন মৃত্যুকে হারিয়ে দিয়েছিল একরত্তি মেয়েটা৷ আমারও ও প্রাণ যেতে পারত৷ সেদিন থেকেই ওর সঙ্গে আমার আত্মিক যোগাযোগ৷ ওর জীবনের এরকম একটা দিনে আমি উপস্থিত থাকব না- এটা হয় নাকি?”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement