BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

৯০-এর জন্মদিনে ফিদেল কাস্ত্রোকে ৯০ ফুটের সিগার উৎসর্গ

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: August 15, 2016 4:49 pm|    Updated: August 15, 2016 4:49 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিশ্বের বৃহত্তম সিগার৷ দৈর্ঘ্যে প্রায় একটি ফুটবল মাঠের সমান৷ ৯০ মিটার (২৯৫ ফুট) লম্বা সিগারটি বানিয়েছেন কিউবার হোসে কাস্তেলার কায়রো ওরফে কুয়েতো৷ উপলক্ষ দেশের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট তথা কিংবদন্তি বিপ্লবী ফিদেল কাস্ত্রোর ৯০তম জন্মদিন৷ দিনভর নানা অনুষ্ঠানের মাধ্যমে কিউবা তার প্রাক্তন প্রেসিডেন্টের জন্মদিন পালন করল৷ যে জন্য দেশবাসীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন নবতিপর অবসরপ্রাপ্ত রাষ্ট্রপ্রধান৷ তিনি মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার কড়া সমালোচনাও করেছেন৷

kastro1_web
তৈরি হচ্ছে বিশ্বের দীর্ঘতম সেই সিগার

১৯৫৯ সালের সশস্ত্র বিপ্লবের মাধ্যমে কিউবার ক্ষমতা দখল করেছিলেন কাস্ত্রো৷ প্রায় অর্ধশতাব্দী দেশ শাসন করার পর তিনি দায়িত্ব ছেড়েছেন ভাই রাউলের হাতে৷ দীর্ঘ সময় তাঁকে প্রিয় হাভানা সিগার ও চুরুটে সুখটান দিতে দেখা গিয়েছে৷ যদিও ১৯৮৫-তে তিনি ধূমপান ছেড়ে দেন৷ শুধু কুয়েতোই নন, গোটা দেশই প্রিয় নেতার জন্মদিন পালন করেছে৷ আর্তেমিসা প্রদেশে একটি স্কুলে তাঁর সম্মানে ৯০ জন রক্তদান করেন৷

kastro2_web
এই সেই ৯০ ফুটের সিগার

পাল্টা বার্তায় দেশবাসীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন ফিদেল৷ সন্ধ্যা ৬টার সময় সাদা ট্র্যাকস্যুট ও সবুজ শার্ট পরে ধীরে ধীরে কার্ল মার্কস থিয়েটারে নিজের চেয়ারে এসে বসেন তিনি৷ সঙ্গী ছিলেন ভাই রাউলও৷ ছিলেন ভেনেজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুউরো৷ শিশুশিল্পীরা তাঁর জীবনকথা নিয়ে অনুষ্ঠান করে৷ ফিদেল আগাগোড়া তা উপভোগ করেছেন৷ যদিও দশ বছর আগের তুলনায় এবারের সরকারি অনুষ্ঠান ছিল একটু সংযত, নিচু তারে বাঁধা৷ তবে বিভিন্ন এলাকায় তাঁকে নিয়ে চিত্রপ্রদর্শনীর ব্যবস্থা করা হয়৷ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সরকারের উচ্চপদস্থ মন্ত্রী ও কর্তারা৷ পরে সরকারি সংবাদমাধ্যমে ফিদেলের দীর্ঘ চিঠি প্রকাশ করা হয়৷ সরকারি টিভিতে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি কোনও বক্তব্য রাখেননি৷

kastro3_web
জন্মদিনের অনুষ্ঠানে ভেনেজুয়েলার প্রেসিডেন্টের সঙ্গে ফিদেল কাস্ত্রো

চিঠিতে জানান, “দেশবাসীর শুভেচ্ছা আমার বিশ্বাসের জায়গাটায় জোর ফিরিয়ে এনেছে৷ যা আমি বিভিন্ন সংগঠন ও সেনাবাহিনীর কাছে পৌঁছে দেব৷ আধুনিক চিকিৎসা ব্যবস্থা আমাকে বিশ্ব সম্পর্কে মূল্যায়নের দীর্ঘ সুযোগ দিয়েছে৷” তারপরেই মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার কড়া সমালোচনা করেন ফিদেল৷ গত মার্চে ওবামার সফর নিয়ে তিনি খুব একটা সন্তুষ্ট ছিলেন না৷ সেখানে ওবামা বলেছিলেন, কিউবাকে ভবিষ্যতের দিকে তাকাতে হবে৷ তার কয়েকদিন পরেই তীব্র প্রতিক্রিয়ায় ফিদেল জানান, “সাম্রাজ্যবাদীদের থেকে আমাদের কিছুই নেওয়ার নেই৷”
এবারের চিঠিতে ফিদেল জানান, মে মাসে হিরোশিমায় গিয়ে ওবামা জাপানিদের কাছে ক্ষমা চাননি৷ সেখানে ওবামার বক্তৃতা ‘মর্যাদাসূচক নয়’ বলেও মন্তব্য করেন প্রাক্তন কিউবান প্রেসিডেন্ট৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement