BREAKING NEWS

১৯  মাঘ  ১৪২৯  রবিবার ৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

ফের মুখ পুড়ল ইমরানের, সার্জিক্যাল স্ট্রাইককে সিলমোহর দিল জঙ্গি মাসুদের ভাই

Published by: Tanujit Das |    Posted: March 3, 2019 11:48 am|    Updated: March 3, 2019 7:54 pm

 Indian fighter planes have destroyed our jihad madrasa, says Masood's brother

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতীয় বায়ুসেনার সার্জিক্যাল স্ট্রাইক নিয়ে ডিগবাজি জারি রেখেছে পাকিস্তান৷ গত ২৬ ফেব্রুয়ারির ভারতের সন্ত্রাসদমন অভিযানের কথা কখনও স্বীকার করেছে, আবার কখনও ভোল বদলেছে ইসলামাবাদ৷ ফলে ভারতীয় বায়ুসেনার সার্জিক্যাল স্ট্রাইক নিয়ে ক্রমশ চাপ বাড়ছে পাকিস্তানের৷ যা আরও কয়েক গুণ বাড়িয়ে দিয়েছে জঙ্গিনেতা মাসুদ আজহারের ভাই মৌলানা আমর৷ সম্প্রতি প্রকাশ্যে এসেছে একটি অডিও ক্লিপ৷ যেখানে ভারতীয় বায়ুসেনার হামলার কথা স্বীকার করতে শোনা গিয়েছে এই শীর্ষ জইশ কমান্ডারকে৷ তাকে বলতে শোনা গিয়েছে, ‘আমাদের জেহাদি প্রশিক্ষণ শিবিরে আক্রমণ চালিয়েছে ভারত৷’

[যুদ্ধবিমানের ‘অপব্যবহার’ করছে পাকিস্তান, ভারতের অভিযোগ খতিয়ে দেখবে আমেরিকা]

শনিবার টুইটারে মৌলানা আমরের অডিও ক্লিপটি আপলোড করেন তাহা সিদ্দিকি নামের এক সাংবাদিক৷ এবং এরপর সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতে পাকিস্তানের দ্বিচারিতা দলের মতো স্পষ্ট হয়ে যায়৷ ৫১ সেকেন্ডের অডিও ক্লিপটিতে জঙ্গি মাসুদের ভাইকে ভারতীয় বায়ুসেনার হামলার কথা স্বীকার করতে শোনা গিয়েছে৷ সে জানিয়েছে, বালাকোটে তাদের যে মাদ্রাসা রয়েছে, সেখানে ২৬ ফেব্রুয়ারি হামলা চালিয়েছে ভারতীয় বায়ুসেনা৷ কেবল ভারতীয় বায়ুসেনার হামলার কথা বলেই চুপ থাকেনি মৌলানা আমর৷ একই সঙ্গে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে তুলোধনাও করেছে এই জঙ্গি নেতা৷ সে জানায়, পাক সেনার হাতে বন্দি ভারতীয় বায়ুসেনার পাইলট অভিনন্দন বর্তমানকে নয়াদিল্লির হাতে তুলে দিয়ে ভুল করেছেন ইমরান খান৷ দেশকে অসম্মান করেছেন পাক প্রধানমন্ত্রী৷ একাজের জন্য দেশবাসী ইমরানকে মাফ করবে না৷ সূত্রের খবর, ভারতীয় বায়ুসেনার সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের পর সম্প্রতি একটি জনসভায় উপস্থিত হয়েছিল জইশ কমান্ডার মৌলানা আম্মার৷ সেখানে একাধিকবার ভারতবিরোধী বার্তা দিতে শোনা গিয়েছে তাকে৷ হুঁশিয়ারির সুরে তাকে বলতে শোনা যায়, ভারতীয় বায়ুসেনা তাদের মাদ্রাসায় হামলা চালিয়েছে৷ এর চরম ফল ভোগ করতে হবে ভারতকে৷ এমনকী, জেহাদ ছড়িয়ে দেওয়ার উদ্দেশ্যে পাকিস্তানকে একজোট হওয়ার বার্তা দিতেও শোনা গিয়েছে শীর্ষ এই জঙ্গি কমান্ডারকে৷

[পাক অধিকৃত কাশ্মীরে ভেঙে পড়েছিল এফ-১৬, পাইলটের কী হয়েছিল জানেন?]

গত ২৬ ফেব্রুয়ারি পাক অধিকৃত কাশ্মীরে তিনটি জঙ্গি প্রশিক্ষণ শিবির গুঁড়িয়ে দেয় ভারতীয় বায়ুসেনা৷ ২৭ ফেব্রুয়ারি পাক সংসদে যা নিয়ে বিরোধীদের তীব্র ভর্ৎসনার মুখে পড়তে হয় ইমরান খানের প্রশাসনকে৷ কিন্তু বারংবার এই সার্জিক্যাল স্ট্রাইক সম্পর্কে নিজেদের মত বদলেছে ইমরান প্রশাসন৷ এমনকী, বালাকোটের জঙ্গি প্রশিক্ষণ শিবিরের সাইন বোর্ড প্রকাশ্যে আসার পরও সেটিকে জেহাদি শিবির বলতে অস্বীকার করেছে ইসলামাবাদ৷ এমত পরিস্থিতিতে জঙ্গি নেতার স্বীকারোক্তি আরও একবার ইমরান প্রশাসনের মুখ পোড়াল বলেই মনে করছে আন্তর্জাতিক মহল৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে