BREAKING NEWS

১৪ মাঘ  ১৪২৯  রবিবার ২৯ জানুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

পাকিস্তানের বিরুদ্ধে যুদ্ধে ভারতকে সবরকম সাহায্যের আশ্বাস ইজরায়েলের

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: February 19, 2019 8:26 pm|    Updated: February 19, 2019 8:26 pm

Israel to help India by war technique

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলার পর ভারতের পাশে দাঁড়িয়েছে বহু দেশ। সন্ত্রাসদমনে একযোগে লড়াইয়ের আশ্বাস দিয়েছেন বিভিন্ন রাষ্ট্রপ্রধান। এবার একেবারের নিঃশর্তে ভারতকে সাহায্যের কথা জানাল অন্যতম শক্তিধর দেশ ইজরায়েল। সূত্রের খবর, জঙ্গি বিরোধী অভিযানে নিজেদের পরামর্শ এবং প্রযুক্তি দিয়ে শর্তহীনভাবে ভারতকে সাহায্য করতে প্রস্তুত নেতানিয়াহু প্রশাসন।

বৃহস্পতিবার জম্মু-কাশ্মীরের পুলওয়ামায় সিআরপিএফ কনভয়ের ওপর আত্মঘাতী জঙ্গি হামলায় ৪৯ জন জওয়ান শহিদ হওয়ার পর থেকে আন্তর্জাতিক মহল পাশে দাঁড়িয়েছে ভারতের। প্রতিবেশী নেপাল, ভুটান, শ্রীলংকা থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, রাশিয়া – সকলেই জঙ্গি হামলার তীব্র নিন্দা করে ভারতকে সমর্থনের আশ্বাস দিয়েছেন। এবার ভারতকে নিঃশর্তে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিল অন্যতম শক্তিধর দেশ ইজরায়েল। এমনিতে মধ্যপ্রাচ্যের এই দেশের অস্ত্রভাণ্ডার এবং সমর প্রযুক্তিকে ডরায় অন্যান্য শক্তিশালী দেশগুলিও। রাশিয়ার পর ইজরায়েলের থেকেই সবচেয়ে বেশি সমরাস্ত্র কেনে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক। গত ১০ বছরে দু’দেশের মধ্যে প্রায় ৯০০ কোটি মার্কিন ডলার ব্যবসা হয়েছে শুধুমাত্র অস্ত্র কেনাবেচাতেই। যৌথ সেনামহড়াও হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে পুলওয়ামার ঘটনায় ইজরায়েল পাশে দাঁড়িয়েছে ভারতের। বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে, একেবারে নিঃশর্তে সাহায্য করবে। নয়াদিল্লিকে যুদ্ধের জন্য প্রয়োজনীয় প্রযুক্ত এবং পরামর্শ দেবেন ইজরায়েলি বিশেষজ্ঞরা। ইজরায়েল জন্মলগ্ন থেকেই নিজের প্রয়োজনে যুদ্ধক্ষেত্রের নানা খুঁটিনাটি বিষয়ে নিজের আয়ত্ত্বে রেখেছে। আধুনিক থেকে অত্যাধুনিক সমরাস্ত্র ব্যবহার করেছে। এদেশের অস্ত্রভাণ্ডার অনেককেই হার মানাবে। এমনকী, চিন, রাশিয়া, আমেরিকার মতো দেশগুলিও ইজরায়েলকে রীতিমতো সমঝে চলে। আসলে, ইজরায়েল নিজেও এক যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশ। জন্ম থেকেই নিজেদের অধিকার প্রতিষ্ঠায় প্রতিবেশী দেশগুলির সঙ্গে দীর্ঘ সংগ্রাম করতে হয়েছে। এদেশের সেনাবাহিনী বিশ্বের অন্যতম বড় শক্তি। নিজেদের ভূখণ্ডে কোনওরকম জঙ্গিমূলক কার্যকলাপ নিমেষে রুখে দেয় ইজরায়েলি সেনা।  

প্রমাণ দিলে দোষীদের শাস্তি, সন্ত্রাসে মদতের অভিযোগ ওড়ালেন ইমরান

এই পরিস্থিতিতে পাকিস্তানের মতো সন্ত্রাসবাদে ইন্ধন জোগানো দেশকে শায়েস্তা করতে ভারতকে ইজরায়েলের সাহায্য ঘোষণা আন্তর্জাতিকভাবে বেশ তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে। পাকিস্তানের পাশে রয়েছে অন্যতম শক্তিশালী দেশ চিন। আধুনিক অস্ত্র এবং জঙ্গিদমনে ইজরায়েলি বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ ভারতকে নানা দিক থেকে সাহায্য করে আসলে চিনকেও কিছুটা সমঝে দিতে পারবে নেতানিয়াহু প্রশাসন। তবে ইজরায়েলের প্রযুক্তি পেলে দেশের সুরক্ষা ব্যবস্থা আরও অনেকটাই এগিয়ে যাবে, এবিষয়ে একমত প্রতিরক্ষা বিশেষজ্ঞরা।    

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে