BREAKING NEWS

১২ মাঘ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৬ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

উত্তর কোরিয়ার একনায়ক কিমকে গোপনে করোনা টিকা দিয়েছে চিন! তুঙ্গে জল্পনা

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: December 2, 2020 5:27 pm|    Updated: December 2, 2020 5:27 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা মহামারীর জেরে কাঁপছে উত্তর কোরিয়া। একনায়ক কিম জং উনের নির্দেশে পরিসংখ্যান গোপন রাখলেও, দেশটির অবস্থা যে শোচনীয় তা স্পষ্ট। এবার জল্পনা আরও উসকে এক মার্কিন বিশেষজ্ঞ দাবি করেছেন, কমিউনিস্ট দেশটির প্রেসিডেন্ট কিমকে গোপনে করোনার টিকা দিয়েছে চিন।

[আরও পড়ুন: কোভিড রোধে আশার আলো? ব্রিটেনে ছাড়পত্র পেল ফাইজার-বায়োএনটেকের টিকা]

উত্তর কোরিয়া সম্পর্কে বিশেষজ্ঞ ও ওয়াশিংটনের সেন্টার ফর ন্যাশনাল ইন্টারেস্ট থিঙ্ক ট্যাঙ্কের বিশেষজ্ঞ হ্যারি ক্যাজিয়ানিস জানিয়েছেন, ইতিমধ্যেই কিম জং উন ও উত্তর কোরিয়ার বেশ কয়েকজন শীর্ষ আধিকারিককে করোনার ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে। তবে কোন সংস্থার তরফে এই ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে, তা এখনও জানা যায়নি। এই ভ্যাকসিনেশন আদৌ কতটা নিরাপদ বা কিম ও অন্যান্যদের শরীরে ভ্যাকসিনটির কোনও প্রভাব পড়েছে কি না, সেই সম্পর্কেও এখনও কিছুই জানা যায়নি। 19FortyFive নামের একটি অনলাইন পত্রিকায় ক্যাজিয়ানিস লেখেন, “বিগত দুই থেকে তিন সপ্তাহের মধ্যে কিম ও তাঁর পরিবারের সদস্যদের করোনার টিকা দেওয়া হয়েছে। ওই ভ্যাকসিনের জোগান দিয়েছে চিন। ইতিমধ্যেই চিনের মোট তিনটি সংস্থা করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিনের উপরে গবেষণা করছে। এগুলি হল সিনোভ্যাক বায়োটেক লিমিটেড, ক্যানসিনোবায়ো ও সিনোফার্ম গ্রুপ।”

উল্লেখ্য, করোনার নতুন ধাক্কা রুখতে উত্তর কোরিয়ার (North Korea) রাজধানী পিয়ংইয়ংয়েও লকডাউন জারি করা হয়েছে। বন্ধ করা হয়েছে সমুদ্র থেকে মাছ ধরা ও লবণ তৈরিও। এমনকী, উত্তর কোরিয়ার আমজনতার বিদেশ থেকে পণ্য আমদানির উপরও কড়া নজর রাখছে সরকার। এক্ষেত্রেও জারি হয়েছে নয়া বিধিনিষেধ। দক্ষিণ কোরিয়ায় গুপ্তচর সংস্থা ন্যাশনাল ইনটালিজেন্স সার্ভিসকে উদ্ধৃত করে দক্ষিণ কোরিয়ার (South Korea) এক নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি হা তি কিউয়াং জানিয়েছেন, উত্তর কোরিয়ার শাসক কিম জং করোনা মহামারী নিয়ে প্রবল ক্ষুব্ধ হয়ে রয়েছেন। আর্থিক পরিস্থিতির উপর এর প্রভাব আটকাতে একাধিক ব্যবস্থা নিচ্ছেন। এনআইএস সূত্রে আরও খবর, গতমাসে দেশের মুদ্রা বিনিময় মূল্য বা মানি এক্সচেঞ্জ রেট পতনের জন্য এক মানি এক্সচেঞ্জারকে দায়ি করেন কিম জং। সেই অপরাধের শাস্তিস্বরূপ তাঁকে মৃত্যুদণ্ড দেন তিনি। এমনকী, সরকারি নিয়মভঙ্গ করে বিদেশ থেকে পণ্য আমদানি করায় খুন করা হয় এক সরকারি আধিকারিককেও। তবে তাঁদের পরিচয় এখনও জানা যায়নি বলে জানিয়েছে এনআইএস।

[আরও পড়ুন: করোনা নিয়ে ভয়ানক মিথ্যাচার চিনের, গোপন নথিতে প্রকাশ্যে চাঞ্চল্যকর তথ্য]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement