BREAKING NEWS

১১ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ২৬ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

লন্ডনে গ্রেপ্তার হতে পারেন নীরব মোদি, জারি পরোয়ানা

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: March 19, 2019 9:34 am|    Updated: March 19, 2019 9:48 am

London court issues arrest warrant against Nirav Modi

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কিছুদিনের মধ্যেই গ্রেপ্তার হতে পারেন নীরব মোদি। ব্রিটেন সূত্রে খবর, তাঁর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছে লন্ডনের একটি আদালত। এই সপ্তাহেই নীরবকে গ্রেপ্তার করতে পারে ব্রিটেনের পুলিশ। গ্রেপ্তারির পর তাঁকে আদালতে পেশ করা হতে পারে।

কিছুদিন আগেই লন্ডনের রাস্তায় উটপাখির চামড়ার বহুমূল্য জ্যাকেট পরে ঘুরতে দেখা গিয়েছিল নীরব মোদিকে। সেই সময় ব্রিটেনের ‘দ্য টেলিগ্রাফ’ পত্রিকার এক সাংবাদিক তাঁর সঙ্গে কথা বলারও চেষ্টা করেন। তবে সব প্রশ্ন এড়িয়ে যান নীরব মোদি। ‘দ্য টেলিগ্রাফ’ সূত্রে জানা যায়, লন্ডনের অভিজাত এলাকায় ফের হীরের ব্যবসা শুরু করেছেন নীরব। এমনকী লন্ডনেরই সেন্টার পয়েন্ট টাওয়ার ব্লকে মাসে প্রায় ১৭ হাজার পাউন্ড ভাড়া দিয়ে বিলাসবহুল এক ফ্ল্যাটও ভাড়া নিয়েছেন তিনি।

[জট কাটিয়ে রাতদুপুরেই শপথ গোয়ার নতুন মুখ্যমন্ত্রীর, ক্ষোভে ফুঁসছে কংগ্রেস]

২০১৮ সালের আগস্ট মাসে পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংকে ১৩ হাজার কোটি টাকা কেলেঙ্কারি মামলায় নীরব মোদির প্রত্যর্পণের জন্য ব্রিটিশ সরকারকে অনুরোধ করে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। নীরবকে লন্ডনে দেখা যাওয়ার পরেই তাঁকে দেশে ফেরাতে সচেষ্ট হয় ভারত। ইডি সূত্রে জানা যায়, হিরে ব্যবসায়ী নীরবকে ভারতে প্রত্যর্পণ করার বিষয়টি আদালতে পাঠিয়েছেন ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাজিদ জাভিদ।

[বিদায় পারিকর, জনতা পরিবৃত শোভাযাত্রার পর পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় শেষকৃত্য]

আইনি বিশেষজ্ঞদের অভিমত, গ্রেপ্তার করার পর ওয়েস্টমিনস্টারের আদালতে তাঁর বিরুদ্ধে মামলা শুরু করবে ব্রিটিশ সরকার। আদালত নির্দেশ দিলে তাঁকে ভারতে প্রত্যর্পণ করবে ব্রিটেন। নীরব এবং তাঁর আত্মীয় মেহুল চোকসির বিরুদ্ধে পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংকের মুম্বইয়ের ব্র্যাডি হাউস শাখা থেকে থেকে প্রায় ১৩ হাজার কোটি টাকার জালিয়াতি করার অভিযোগ উঠেছে। ওই মামলার তদন্ত শুরু হওয়ার আগেই দেশ ছাড়েন দু’জনেই। এই মামলায় এখনও নীরব মোদির এক হাজার ৮৭৩ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্তও করেছে ইডি। বিরোধীরা অভিযোগ করেছে, মেহুল ও নীরবকে দেশ ছেড়ে পালাতে সাহায্য করেছে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার। এই নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে কটাক্ষও করেছে তারা। এখন লোকসভা নির্বাচনের আগে নরেন্দ্র মোদি নীরবকে দেশে ফিরিয়ে আনতে পারেন কি না তা নিয়ে জল্পনা শুরু হয়েছে সব মহলে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে