৪ কার্তিক  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২২ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফ্লোরিডাতে স্কুলে ঢুকে বন্দুকবাজের গুলিতে ১৭ জনের মৃত্যুর ঘটনার পর থেকেই উত্তাল আমেরিকা। আরও কড়া আগ্নেয়াস্ত্র আইনের দাবিতে আমেরিকার রাস্তায় আজ অভূতপূর্ব মিছিল দেখতে পাওয়া গেল। হাজার হাজার মানুষ জড়ো হয়ে, মৌন মিছিল করলেন ওয়াশিংটনের রাস্তায়। মিছিলটির আয়োজন করে ফ্লোরিডায় বন্দুকবাজের হাতে আক্রান্ত মার্জারি স্টোনম্যান ডগলাস হাই স্কুলের ছাত্রছাত্রীরাই। মিছিলে যোগ দেন বহু নামীদামি হলিউড তারকারাও।

[ফ্লোরিডায় স্কুলে ঢুকে এলোপাথাড়ি গুলি প্রাক্তনীর, নিহত অন্তত ১৭]

মূল পদযাত্রাটি ওয়াশিংটনে আয়োজিত হলেও গোটা আমেরিকা জুড়েই রবিবার এরকম মিছিল হয়েছে। শুধু আমেরিকাতেই নয়, লন্ডন, জেনেভা, সিডনি ও টোকিওতেও আজ বহু মানুষ ‘March for Our Lives’-এ পা মিলিয়েছেন। সবমিলিয়ে বিশ্ব জুড়ে কমবেশি ৮০০টি এরকম মিছিল বেরোয়। ওয়াশিংটনে মূল মিছিলে পা মেলান অভিনেতা জর্জ ক্লুনি ও তাঁর স্ত্রী আমাল ক্লুনি, আরিয়ানা গ্রান্দে, মাইলি সাইরাস-এর মতো শিল্পীরাও। ভিড়ের মধ্যে থেকে আওয়াজ ওঠে, ‘শিশুদের বাঁচাও, বন্দুক নয়’ বা ‘আমিই কি এরপর হামলার শিকার?’

ছাত্রনেতা ও ফ্লোরিডা হামলায় প্রাণে বেঁচে যাওয়া এমা গনজালেস ওয়াশিংটন ডিসি-র মূল অনুষ্ঠানের মঞ্চে উঠে ঝাঁজাল বক্তৃতা দেন। একে একে নিহতদের নাম পড়ার পর ৬ মিনিট ২০ সেকেন্ড নীরবতা পালন করেন। ঠিক যতটা সময় জুড়ে ওই বন্দুকবাজ স্কুলে তাণ্ডব চালায়। আজ ভোর থেকেই আমেরিকার প্রায় প্রতিটি প্রান্ত থেকে বিক্ষোভকারীরা পোস্টার হাতে ওয়াশিংটনের দিকে এগোচ্ছিলেন। পোস্টারে লেখা, ‘আর বন্দুক চাই না আমেরিকায়।’ মিছিলের একেবারে সামনেই ছিলেন ভিক্টোরিয়া গনজালেস। এবছরের ভ্যালেন্টাইনস ডে-তে প্রেমিক জোয়াকিন অলিভারের কাছ থেকে পেয়েছিলেন একতাড়া লাল গোলাপ। কিন্তু জোয়াকিন স্কুলে যাওয়ার পরই হামলায় নিহত হন। সে খবর এখনও বিশ্বাস করতে পারেন না ভিক্টোরিয়া। বলছেন, ‘সেদিনের খবর পর খুব ভেঙে পড়েছিলাম। বিশ্বাসই করতে পারছিলাম না। কিন্তু আজ দেখলাম, আমি একা নই, আমার মতো আরও অনেকে বেরিয়ে পড়েছে প্রতিবাদ জানাতে। আজ আমার চোয়াল দৃঢ়। এই পরিস্থিতি আর চলতে দেওয়া যাবে না।’

[স্কুলে বন্দুকবাজের তাণ্ডব রুখতে হাতে আগ্নেয়াস্ত্র তুলে নিন শিক্ষকরাও, দাওয়াই ট্রাম্পের]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং