BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বিনিয়োগ করুন ভারতে, বিশ্বমঞ্চে শিল্পপতিদের আহ্বান মোদির

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 23, 2018 3:11 am|    Updated: January 23, 2018 3:22 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিশ্বমঞ্চে দাঁড়িয়ে ভারতে বিনিয়োগের জন্য ফের সওয়াল প্রধানমন্ত্রীর। সুইৎজারল্যান্ডের দাভোসে বিশ্বের প্রথম সারির বানিজ্যিক সংস্থাগুলির সিইওর সঙ্গে বৈঠক করেন মোদি। সেখানে মোদি নানাভাবে বুঝিয়ে দেন বিনিয়োগকারীদের গন্তব্য হওয়া উচিত ভারত।

[কারগিলে লড়েছিলেন বন্দুক হাতে, এবার পাক হ্যাকারদের ত্রাস সেনা অফিসার]

 

মেক ইন ইন্ডিয়া। ভারতীয় মানবসম্পদ ব্যবহার করে বিনিয়োগের স্লোগান আরও একবার নরেন্দ্র মোদির মুখে। দাভোসের সম্মেলনে ভারতের ক্যাচলাইন ছিল ‘ইনভেস্ট ইন্ডিয়া’। এই স্বপ্ন সফলে ভারতে লগ্নির বিষয়ে উৎসাহ দিতে মোদি বৈঠক করেন একাধিক শিল্পকর্তার সঙ্গে। যেখানে ছিলেন বিশ্বের ১৮টি দেশের ৪০ জন সিইও। যাঁর মধ্যে উল্লেখযোগ্য সংস্থা হল এয়ারবাস, হিতাচি, ডবলুইএফ। তাবড় সংস্থাগুলির বাণিজ্যিক প্রধানদের সঙ্গে বৈঠকে মোদি স্পষ্টভাবে জানিয়ে দেন কেন তাদের গন্তব্য হওয়া উচিত ভারত। এর ব্যাখ্যায় প্রধানমন্ত্রী জানান ভারতের বৃদ্ধির গতি ধারাবাহিক, এ দেশের বাজার বিশাল, এখানে শিল্পসম্ভাবনা অত্যন্ত জোরালো। আর এখন এলে বিনিয়োগকারীরা নতুন ভারত দেখবেন। এখানেই থামেননি ভারতের প্রধানমন্ত্রী। যুক্তি দিয়ে শিল্পপতিদের বোঝানোর চেষ্টা করেন ভারতে এখন শিল্পবান্ধব পরিবেশ। বিনিয়োগ করা সহজ। লাল ফিতের ফাঁস নেই। দক্ষ কর্মীর সংখ্যা যথেষ্ট। এর সঙ্গে তিনি জুড়ে দেন ভিন দেশ নয় ভারতের মাটি অর্থাৎ দেশের মানবসম্পদকে কাজে লাগানোর প্রয়োজন। ঘুরে ফিরে মেক ইন ইন্ডিয়ার কথাই বলেছেন তিনি।

34

 

[দেশের সম্পদের ৭৩ শতাংশই কুক্ষিগত করেছে ১ শতাংশ ধনী]

প্রধানমন্ত্রী এদিন যেন ভারতের বিনিয়োগ স্বপ্ন ফেরি করেন। শিল্পপতিদের সঙ্গে মুখোমুখি হওয়ার আগে তিনি সুইৎজারল্যান্ডের প্রেসিডেন্ট আলিয়ান বার্সেতের সঙ্গে দীর্ঘ বৈঠক করেন।  ভারতের দীর্ঘ দিনের আবেদন মেনে কর সংক্রান্ত তথ্য দেওয়ার ব্যাপারে রাজি হয়েছে সুইৎজারল্যান্ড। এমনটাই জানান বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র রবিশ কুমার। কারণ ইউরোপের এই দেশে বহু ভারতীয়র ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট এবং তথ্য রয়েছে। তা হাতে পাওয়ার ব্যাপারে অনেক দিন ধরে সক্রিয় নয়াদিল্লি। ২০১৯ সালের মধ্যে সেই তথ্য আসবে বলে মনে করা হচ্ছে। দাভোসে মোদির পাশাপাশি ভারতীয় পকোড়া, কচুরি এবং যোগ শিক্ষা নিয়ে বিভিন্ন দেশের অতিথিদের মধ্যে ছিল দারুন উৎসাহ।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement