BREAKING NEWS

৯ আষাঢ়  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

সেনাশাসনে দমবন্ধ দেশের! মিস ইউনিভার্সের মঞ্চেই প্রতিবাদ মায়ানমারের সুন্দরীর

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: May 17, 2021 3:17 pm|    Updated: May 17, 2021 4:05 pm

Myanmar Contestant At Miss Universe Pageant protests army rule | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফেব্রুয়ারি মাসে সেনা অভ্যুত্থানের পর থেকেই মায়ানমারের (Myanmar) পরিস্থিতি ক্রমশ জটিল হয়ে উঠছে। গণতন্ত্রকামীদের প্রবল বিক্ষোভের পর এবার বার্মিজ সেনার বিরুদ্ধে মোর্চা খুলেছে বেশ কয়েকটি বিচ্ছিন্নতাবাদী সশস্ত্র সংগঠন। সামরিক জুন্টার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ লড়াইয়ের ডাক দিয়েছে বেশ কয়েকটি বিদ্রোহী সংগঠন। এহেন পরিস্থিতিতে আন্তর্জাতিক মঞ্চের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে ‘মিস ইউনিভার্স’ প্রতিযোগিতার মঞ্চে প্রতিবাদ জানালেন মায়ানমারের সুন্দরী থুজার উইন্ট লুইন।

[আরও পড়ুন: কর্মীর সঙ্গে যৌন সম্পর্ক নিয়ে তদন্ত, বোর্ড থেকে ইস্তফা মাইক্রোসফ্‌ট প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটসের]

রবিবার ফ্লোরিডায় সৌন্দর্য প্রতিযোগিতার মঞ্চে বার্মিজ জুন্টার বিরুদ্ধে প্রতিবাদে সরব হন মায়ানমারের প্রতিযোগী লুইন। হাতে একটি ব্যানার নিয়ে মঞ্চে ওঠেন তিনি। সেখানে লেখা ছিল, ‘প্রে ফর মায়ানমার’ অর্থাৎ ‘মায়ানমারের জন্য প্রার্থনা করুন’। ফ্লোরিডা থেকেই এক ভিডিও বার্তায় তিনি বলেন, “সেনাবাহিনীর গুলিতে প্রতিদিন আমাদের লোকজনের মৃত্যু হচ্ছে। সকলের কাছে আমার আবেদন, আপনারা মায়ানমারের জন্য আওয়াজ তুলুন। আমি যতটা পারি প্রতিবাদ করছি।” উল্লেখ্য, মিস ইউনিভার্স প্রতিযোগিতার শেষ পর্বে যেতে না পারলেও ‘বেস্ট ন্যাশনাল কস্টিউম’-এর পুরস্কার পেয়েছেন তিনি। এর আগে দেশের দুর্দিনে গ্ল্যামার জগতকে বিদায় জানিয়ে হাতে বন্দুক তুলে নেন মায়ানমারের আরও এক সুন্দরী টার টেট টেট।

বিশ্লেষকদের মতে, মায়ানমারে সেনাশাসকদের অত্যাচারের মাত্রা ক্রমেই বাড়ছে। আন্তর্জাতিক মঞ্চের চাপ উপেক্ষা করে রীতিমতো স্বৈরাচার চালাচ্ছে বার্মিজ সেনাবাহিনী। উল্লেখ্য, গত ১ ফেব্রুয়ারি নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ এনে গণতান্ত্রিক সরকারকে সরিয়ে মায়ানমারের রাশ নিজেদের হাতে নেয় টাটমাদাও বা বার্মিজ সেনা। বন্দি করা হয় কাউন্সিলর আং সান সু কি-সহ নির্বাচিত সরকারের শীর্ষ কর্তাদের। তারপর থেকেই সে দেশে গণতন্ত্রের দাবিতে চলছে তুমুল বিক্ষোভ। পালটা অভিযান শুরু করেছে সেনাবাহিনী। এপর্যন্ত ফৌজের গুলিতে প্রাণ হারিয়েছেন প্রায় ৮০০ জন গণতন্ত্রকামী। এদিকে মায়ানমারে গৃহযুদ্ধের সম্ভাবনা ক্রমেই বাড়ছে। মায়ানমারের প্রত্যন্ত এলাকার গেরিলা বাহিনীগুলি সেনার বিরুদ্ধে গোপন প্রতিরোধ শুরু করেছে। ২০ বা তার বেশি সশস্ত্র গেরিলা বাহিনী গর্জে উঠেছে জুন্টার আচরণের বিরুদ্ধে।

[আরও পড়ুন: ইজরায়েল-প্যালেস্তাইন নিয়ে এবার সম্মুখসমরে চিন-আমেরিকা! চড়ছে উত্তেজনার পারদ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement