BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ভারতের সঙ্গে লড়তে ধর্মই ভরসা! নেপালে রাম মন্দির তৈরির নির্দেশ প্রধানমন্ত্রী ওলির

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: August 9, 2020 12:28 pm|    Updated: August 9, 2020 12:28 pm

An Images

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতের সঙ্গে টক্কর নিতে গিয়ে এবার ভগবান রামকেই হাতিয়ার করতে চাইছেন নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলি ( KP Sharma Oli)। নিজের ক্ষমতা ধরে রাখার জন্য একসময়ে হিন্দু রাষ্ট্রের তকমা থেকে বেরিয়ে আসতে চাওয়া নেপালের জনগণকে ফের ধর্মের বাঁধনে বাঁধতে চাইছেন। আর সেই কারণেই রামের জন্ম নেপালে হয়েছিল বলে কয়েকদিন আগে যে দাবি জানিয়েছিলেন তাকে প্রতিষ্ঠিত করতে রাম মন্দির তৈরির নির্দেশও দিয়েছেন। এই ঘটনার কথা জানাজানি হতেই মিশ্র প্রতিক্রিয়া তৈরি হয়েছে নেপালের জনগণের মধ্যে। সেখানকার বেশিরভাগ পুরোহিতই এই ঘটনার জন্য প্রধানমন্ত্রীর সমালোচনায় মুখর হয়ে উঠেছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, কিছুদিন আগেই আসল অযোধ্যা ও রামের জন্মভূমি নেপাল বলে দাবি করেছিলেন ওলি। এরপরই দেশের মধ্যে ও বাইরে প্রবলভাবে সমালোচিত হন তিনি। কিন্তু, তাতে কোনও গুরুত্ব না দিয়ে নিজের বক্তব্যই অনঢ় ছিলেন নেপালের প্রধানমন্ত্রী। শুধু তাই নয়, গত ৫ তারিখ অযোধ্যায় রাম মন্দিরের ভূমিপুজো শেষ হতেই এই বিষয়ে তৎপর হয়ে ওঠেন তিনি। শনিবার নেপালের চিতওয়ানের মাডি (Madi) এলাকার জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে এই বিষয়ে একটি বৈঠকও করেন। ওই বৈঠকে মাডির নাম বদলে অযোধ্যাপুরী করার পাশাপাশি ওই এলাকায় রাম মন্দির তৈরির জন্য স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের একটি প্ল্যান তৈরির নির্দেশ দিয়েছেন ওলি। সেই সঙ্গে স্থানীয় মানুষের সঙ্গে দেখা করে ভগবান রাম সম্পর্কিত তথ্যপ্রমাণ জোগাড় করার আহ্বান জানিয়েছেন। যাতে তাঁর দাবিকে সুপ্রতিষ্ঠিত করা যায়।

[আরও পড়ুন: সোমালিয়ার সেনা ঘাঁটির সামনে আত্মঘাতী জঙ্গি হামলা, মৃত কমপক্ষে ৮ ]

এই ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে মাডির মেয়র ঠাকুর প্রসাদ ঢাকাল জানান, প্রধানমন্ত্রী স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের মাডির নাম বদলে অযোধ্যাপুরী (Ayodhyapuri) রাখার নির্দেশ দিয়েছেন। পাশাপাশি এখানে রাম মন্দির তৈরির জন্য পরিকল্পনা করতে বলেছেন। সেই অনুযায়ী কাজ শুরু হয়েছে।

যদিও কেপি শর্মা ওলির ওই সিদ্ধান্তের তীব্র সমালোচনা করছেন নেপালের পুরোহিত সম্প্রদায়ের বেশিরভাগ মানুষ। এপ্রসঙ্গে অযোধ্যার ভূমিপুজোয় অংশ নেওয়া ওলির নিজের জেলার বাসিন্দা এক পুরোহিত আর্চায্য দুর্গাপ্রসাদ গৌতম বলেন, ‘ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির পাশে বসে ভূমিপুজোয় অংশ নেওয়া আমার কাছে অত্যন্ত গর্বের বিষয়। আজকে পুরো বিশ্ব যখন অযোধ্যাকে রামের জন্মভূমি হিসেবে মেনে নিচ্ছে তখন কেপি শর্মা ওলির বক্তব্যের কোনও ভিত্তি থাকতে পারে না। নিজের স্বার্থসিদ্ধির জন্যই উনি ভগবান রামকে হাতিয়ার করতে চাইছেন। তবে তাতে আখেরে কোনও লাভই হবে না।’

[আরও পড়ুন: করোনার টিকা নিয়ে ‘স্বার্থপরতা’ নয়, ধনী দেশগুলিকে হুঁশিয়ারি WHO’র]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement